Featured Posts

[Travel][feat1]

ডেল কার্নেগীর ৩১ টি অসাধারণ বানী - জীবন বদলে দেওয়ার মতো

মে ১১, ২০২১
dale-carnagie_quotes

• আমরা যদি দুশ্চিন্তা বন্ধ করে জীবনকে উপভােগ করতে চাই, তাহলে তার সহজ পথ হল আমাদের দুঃখের হিসাব না করে কত সুখ তার হিসাব করা।

• জনপ্রিয়তাকে ধরে রাখা কষ্টকর।

• জনপ্রিয়তা বাড়াবার চাবিকাঠি লুকিয়ে আছে এই সত্যের মধ্যে যে নিমেষে নিজেকে অন্যের কাছে আকর্ষণীয় করে তুলতে হবে।

• জুয়া খেলে কখনাে কেউ বড়লােক হতে পারে না বরং সর্বশান্ত হয়েছে পরিণামে।

• টাকা মানে সুখ, টাকা মানে আনন্দ, টাকা মানে ভােগ-উপভােগ, টাকা মানে সম্ভোগ, টাকা মানে সুন্দরী রমণী।

• দাম্পত্য জীবনে অসুখী মানুষকে সুখী বলা যায় না।

• আমরা আমাদের তুলনা করি যারা আমাদের চেয়ে ভালাে অবস্থায় আছে তাদের সঙ্গে। আমরা যদি আমাদের চেয়ে যারা খারাপ অবস্থায়। আছে, তাদের সঙ্গে তুলনা করতাম, তাহলে আমরা সন্তুষ্ট হতে পারতাম।

• যখন আমরা সবচেয়ে খারাপ ব্যাপারটা গ্রহণ করতে প্রস্তুত থাকি তখন আর কিছু আমাদের হারাবার থাকে না।

• আমরা জীবনযুদ্ধের ঝড় এবং হিমবাহের ধাক্কা অনেক সহ্য করতে পারি, কিন্তু ছােট ছােট দুশ্চিন্তা যা আমরা দুটি আঙুলের সাহায্য মেরে ফেলতে পারি, তার কাছে পরাস্ত হই।

• দুঃখ-দুর্দশা এড়াবার জন্যে নিজেকে জিজ্ঞাসা করুন সবচেয়ে খারাপ কী ঘটতে পারে। সেটা যখন ঘটবেই তখন সেটাকে গ্রহণীয় করে তুলুন। তারপর শান্তভাবে চিন্তা করুন সবচেয়ে খারাপ অবস্থা থেকে কিভাবে উন্নতি করা সম্ভব।

• দুশ্চিন্তার হাত থেকে মুক্তি পেতে হলে নিজেকে সব সময় কাজের মধ্যে দায়িত্বের মধ্যে ব্যস্ত রাখুন।

• মানুষ নানাবিধ সমস্যার ভারে প্রপীড়িত এবং জর্জরিত, তবু আপনি সমস্যাটা বা সমস্যাগুলো সমাধানের চিন্তা করুন কিন্ত দুশ্চিন্তা করবেন না । 

• আলস্য ঝেড়ে ফ্যালাে। উঠে দাঁড়াও। মন স্থির করে দৌড় দাও। তুমি অবশ্যই তােমার গন্তব্যে পৌঁছতে পারবে।

• সমস্যায় পড়লে মানুষের সাথে পরামর্শ করাে। কারাে সদুপদেশ তােমার সমস্যা থেকে উত্তীর্ণের পথ দেখত পারে।

• তােমার ইচ্ছানুযায়ী জগতে সবকিছু হবে এটা তুমি আশা করাে কী করে?

• উন্নতি করতে হলে আত্মীয়স্বজন বন্ধু-বান্ধবদের সহযােগিতা লাগেই।

• আমাদের ক্লান্তির অন্যতম কারণ একঘেঁয়েমি।

• মিথ্যা ওজর বেশিরভাগ ক্ষেত্রে ধরা পড়ে যায় এবং অবশেষে তা লজ্জার কারণ হয়ে দাঁড়ায়।

• কর্মহীন জীবন হতাশার কফিন জড়ানাে একটি জীবন্ত লাশ।

• কাজের দক্ষতা কমে যাবার একমাত্র বাস্তব কারণ হল বিরক্তি।

• নিষ্ঠা ও একাগ্রতা দ্বারা কাজ করলে সাফল্য আসবেই-এ কথা সকল ক্ষেত্রের জন্যেই প্রযােজ্য।

• অনেকে অভিযােগ করেন একটু কাজ করলেই তারা হাঁপিয়ে ওঠেন। এটা আর কিছু নয় এ হল কাজের প্রতি অনীহা।

• একজন লােককে খাইয়ে যতটা সন্তুষ্ট করা যায় আর কিছুতে নয়। 

• আমরা কী চিন্তা করি সেটাই সবচেয়ে বড় কথা।।

• যদি আমরা খুব চিন্তা করি, তাহলে দুঃখী হই। যদি খুব দুঃখের চিন্তা করি, তাহলে দুঃখী হব। যদি কেবল ভয়ের চিন্তা করি, তাহলে ভীত হব। যদি রােগ সম্বন্ধে চিন্তা করি তাহলে হয়তাে অসুস্থ হয়ে পড়ব। 

• খ্যাতির সাথে সাথে অর্থও আসে।

• চিন্তা ও দুশ্চিন্তার মধ্যে পার্থক্য হল যখনি আমি প্রচুর গাড়ি চলা নিউইয়র্কের রাস্তার পার হই, তখন চিন্তা করি দুশ্চিন্তা করি না। চিন্তা মানে সমস্যার সমাধান করা, দুশ্চিন্তা মানে পাগল করে দেওয়া। অর্থহীন ঘুরপাক খাওয়া।

• দুঃসংবাদ শুনে আপনি কখনোই ঘাবড়াবেন না বা দুর্ভাবনায় ভেঙে পড়বেন না। কারগ সুসংবাদ যেমন দুঃসংবাদও তেমনি জীবনের স্বাভাবিক ঘটনা। : 

• বিপদে অবিচল থাকুন, ধৈর্য ধারণ করুন, সন্ত্রস্ত হবেন না, বিপদ মুক্তির পথ পেয়ে যাবেন। 

•  পীড়িত ব্যক্তি ভাবে তার পীড়া আর কোনোদিন বোধ হয় নিরাময় হবেনা! কিন্ত অচিরেই সে তার ভুল বুঝতে পারে। কোনো পীড়া দীর্ঘস্থায়ী নয়! . 

•  বেকাদের জীবনে কোনো পরিবর্তন আসে না।

ডেল কার্নেগীর ৩১ টি অসাধারণ বানী - জীবন বদলে দেওয়ার মতো ডেল কার্নেগীর ৩১ টি অসাধারণ বানী - জীবন বদলে দেওয়ার মতো Reviewed by WisdomApps on মে ১১, ২০২১ Rating: 5

এই সপ্তাহ আপনার কেমন যাবে ? ০৯ থেকে ১৫ই মে ২০২১

মে ০৯, ২০২১

                   


এই সপ্তাহ আপনার কেমন যাবে ? ০৯ থেকে ১৫ই মে ২০২১ এই সপ্তাহ আপনার কেমন যাবে  ? ০৯ থেকে ১৫ই মে ২০২১ Reviewed by WisdomApps on মে ০৯, ২০২১ Rating: 5

একজিমা থেকে ক্যান্সার - সারাতে পারে নিম - জেনে নিন মহৌষধি নিমের ১১টি বিশেষ গুন

মে ০৮, ২০২১

 

benefits_of_neem

১) ডায়াবেটিসের চিকিৎসায় নিমের ব্যবহার বহুল প্রচলিত। নিম ব্লাড সুগার কমায় তাই অন্য আ্যান্টি ডায়াবেটিক ওষুধের সঙ্গে নিম খেলে নিয়মিত ব্লাড সুগার লেভেল পরীক্ষা করানো দরকার। নিমের কাঁচা পাতা চিবিয়ে খেতে পারেন অথবা নিমপাতার রস ৩ থেকে-৫ এমএল মাত্রায় খেতে পারেন। 

. ২)🌿 চর্মরোগে নিমপাতা বেটে তার প্রলেপ লাগালে উপকার হয়। নিম ও চন্দনের প্রলেপ হিট র‍্যাশ ও ঘামাচির সমস্যা দূর করে। নিমের প্রলেপ অ্যাকনে বা ব্রণ প্রতিরোধ করে। একজিমা, সেরিয়াসিস এবং রিং ওয়ার্ম (দাদ) সারাতে নিম তেল ব্যবহার করা হয়। 

৩) নিমের অ্যান্টিএজিং গুণ আছে। ত্বকের দাগ ছোপ, জীবাণু সংক্রমণ দূর ফরতে নিম খুব ভালো কাজ দেয়। 

৪) 🌿ত্বকের মতোই চুলের জন্য নিম খুব উপকারী। মাথার স্ক্যাল্পে জীবাণু সংক্রমণ এবং ছত্রাক সংক্রমণ রোধ করতে হেয়ার ওয়াশের পর নিমপাতা ফোটানো জল লাগালে উপকার হয় । নিমপাতা বেটে প্রলেপ দিলে মাথায় উকুন হয় না । 

৫) নিমে আছে অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট গুন , ভাইরাস ও ব্যাকটেরিয়া ঘটিত রোগ প্রতিরোধে অত্যন্ত কার্যকারী ।  নিম আ্যান্টিক্যান্সারাস। এটি টিউমারের কোষের বৃদ্ধি প্রতিহত করে ৷  প্যাংক্রিয়াস এবং ব্রেস্ট ক্যান্সার প্রতিরোধে নিয়মিত নিমপাতা খেতে পারেন । এছাড়া কেমোথেরাপির ক্ষতিকারক প্রভাব রোধ করতেও নিমপাতা খাওয়াযায়। 

৬)🌿 অ্যাজমা এবং অ্যালার্জি প্রতিরোধ করতে নিমপাতা চুর্ণ খাওয়া ভালো। নিম অ্যালার্জি কমাতে সাহায্য করে। অ্যাজমা জনিত কাশি এবং শ্বাসনালীর প্রদাহ কমায়। অ্যাজমা রোগীর ঘরে সামান্য মাত্রায় নিমের পাতা ধোঁয়া দিয়ে জীবাণু মুক্ত রাখতে পারেন। তবে সেই সময় অবশ্যই রোগী যেন অন্যত্র থাকেন, সে দিকে লক্ষ রাখা দরকার। 

৭)  চরক সংহিতায় দাঁত ও মাড়ি ভালো রাখতে এবং বিভিন্ন মুখরোগ প্রতিরোধের জন্য নিমের দাঁতিন ব্যবহার করার কথা বলা হয়েছে। নিমপাতা জলে ফুটিয়ে ছেঁকে নিয়ে মাউথ ওয়াশ হিসেবে ব্যবহার করলে ডেন্টাল প্লাক ও জিঞ্জিভাইটিস (মাড়ির অসুখ) হয় না। মুখ জীবাণুমুক্ত থাকে ।

৮) 🌿করোনারি আর্টারি ডিজিজ,  অ্যারিদমিয়া, কোলেস্টেরল নিয়ন্ত্রণে নিম খুবই কার্যকর। নিম হার্টের রক্ত সঞ্চালনের হার বাড়ায় এবং হৃদস্পন্দন স্বাভাবিক রাখতে সাহায্য কৰে। 

৯) নিম অ্যান্টি ম্যালেরিয়াল গুণযুক্ত। ম্যালেরিয়া জ্বরে নিম পাতার ক্কাথ মধুসহ খাওয়ালে উপকার হয় । এছাড়া নিম ইন্সেক্ট রিপিল্যান্ট । তাই মশা আসতে পাড়ে না । 

১০)🌿 নিম আলসার এবং গ্যাস্ট্রাইটিস প্রতিরোধ করে । বমি , হাইপার অ্যাসিডিটি এবং পেটের সংক্রমন প্রতিরোধে নিম কার্যকারী ভেষজ । 

১১) নিম্বাদি বটি , নিম ক্কাথ বা নিমপাতা চূর্ণ খেলে কৃমি চিরতরে দূর হয় । 


আরো পড়ুনঃ হার্ট অ্যাটাক আটকাবেন কিভাবে ? 


টপিকঃ 

neem benefits , neem uses ,how to use neem leaves, neem oil, diseases cured by neem leaves, neem for skin, নিমপাতার গুন, নিমপাতা ,নিমের উপকারিতা

একজিমা থেকে ক্যান্সার - সারাতে পারে নিম - জেনে নিন মহৌষধি নিমের ১১টি বিশেষ গুন একজিমা থেকে ক্যান্সার - সারাতে পারে নিম - জেনে নিন মহৌষধি নিমের ১১টি বিশেষ গুন Reviewed by WisdomApps on মে ০৮, ২০২১ Rating: 5

বাচ্চাদের ন্যাপী পড়ানো উচিৎ কি উচিৎ নয় ? কি বলছেন বিশেষজ্ঞ ডাক্তারেরা ?

মে ০৭, ২০২১

diapers_for_babies_good



কাঁথা কাপড় না ন্যাপী ? বাচ্চা জন্মানোর সাথে সাথেই মা , ঠাকুমার মনে এই প্রশ্ন ভিড় করে । আগেকার দিএর মানুষের মধ্যে সুতির কাঁথায় বাচ্চাকে শুয়িয়ে রাখার চল ছিল বেশি , প্রস্রাব করলে বারংবার কাঁথা বদল করে বাচ্চা পালন করার কষ্টের জন্য একটা আলাদাই গর্ব অনুভব করতেন মায়েরা । কিন্ত  এখন ছােটদের ন্যাপি পরানাের চল বহুগুণ বেড়েছে। তার কারণও খুব সময়োচিত ।  আসলে ন্যাপির মধ্যে অ্যাবসর্পটেন্স স্তর রয়েছে। এই স্তর তরল শোষণ করার ক্ষমতা রাখে। ফলে বাচ্চা প্রস্রাব করলে এই স্তরটি তা শোষণ করে নেয়। এর লাভ রয়েছে অনেকগুলি। 
প্রথমত, এর শুষে নেওয়ায় ফলে বারংবার বাচ্চার বিছানা বদলাতে হয় না। দ্বিতীয়ত, বাচ্চা প্রস্রাব করার পরও অনায়াসে ঘুমােতে বা খেলতে পারে। ইউরিন হয়েছে বলে বুঝতে পারে না। তৃতীয়ত, সাধারণ অবস্থায় বাচ্চা ইউরিন করলে বিছানা ও তার জামাকাপড় ভিজে যায়। এই ভিজে বিছানা এবং জামাকাপড় দ্রুত না বদলালে ছােট্ট সদস্যের ঠান্ডা লাগার আশঙ্কা দেখা দেয়। ন্যাপি পরা থাকলে ইউরিন শুষে যায়। ফলে ঠান্ডা লাগার আশঙ্কা কমে। চতুর্থত, ন্যাপি পরানাের সামাজিক দিকটি ভুললে চলবে না। রাস্তাঘাটে বেরিয়ে, কোনও সামাজিক অনুষ্ঠানে পৌঁছে বাচ্চা প্রস্রাব বা মলত্যাগ করে ফেলতেই পারে। এটা খুবই স্বাভাবিক ঘটনা। এই পরিস্থিতিতে ন্যাপি পরানাে থাকলে দুই-চার ঘণ্টার জন্য অন্তত নিশ্চিন্তে থাকা যায়। আর বাচ্চা মলত্যাগ করলেও কিছুটা সময় হাতে পাওয়াই যায় ন্যাপি বদলে ফেলার 

তবে এহেন এক কাজের সামগ্রী নিয়েও অভিভাবক থেকে সাধারণ মানুষের মনে অনেক প্রশ্ন। এবার সেই সকল প্রশ্নেরই উত্তর খুজে নেওয়া যাক- 

কতক্ষণ অন্তর ন্যাপী বদল করতে হবে?

বিভিন্ন ন্যাপি প্রস্তুতকারক সংস্থাগুলি বলে একবার ইউরিন হওয়ার পরই ন্যাপি চেঞ্জ করতে। তবে এই নিয়ম মানতে গেলে বহু পরিবারের অর্থনীতি একেবার খাদের কিনারে এসে ঠেকবে। তাই একটু নমনীয় হতেই হবে। এক্ষেত্রে একবার ইউরিনের বদলে দুইবার ইউরিন করলে ন্যাপি বদলাতে হবে। ঘণ্টার হিসেবে মােটামুটি চার থেকে পাঁচ ঘণ্টায় বদলাতে হবে। আর হ্যাঁ, মল কিন্তু ন্যাপি শুষতে পারে না। ফলে একবার মলত্যাগ করলেই বদলাতে হবে ন্যাপি।

ন্যাপী কি সারাক্ষণ পরানাে উচিত?

একেবারেই না। রাতের বেলা, বাইরে কোথাও বেরলে ন্যাপি পরানাে যায়। কিন্তু দিনের বেলায় যতটা সম্ভব বাচ্চাকে স্বাভাবিক অবস্থায় রাখুন । 

কোন বয়স থেকে ন্যাপী পড়ানো উচিৎ ?

র‍্যাশ না বেরলে ১০ থেকে ১৫ দিনের বাচ্চাকেও অনায়াসে এক থেকে দুই ঘণ্টার জন্য ন্যাপি পরানাে যায়। 

কোন বয়স পর্যন্ত ন্যাপী পড়ানো উচিৎ ?

মােটামুটি বাচ্চার বয়স দুই বছর পেরনাের পরই ন্যাপি পরানাের অভ্যেস কমাতে হবে। 

ন্যাপি থেকে অ্যালার্জি হতে পারে কি ? 

সাধারণত ন্যাপি র‍্যাশ বলা হয়। তবে এই সমস্যাকে ঠিক র‍্যাশ বলা চলবে না। এটা ক্যানডিডা নামক ফাঙ্গাসের ইনফেকশন। ন্যাপি পরার সঙ্গে এই সমস্যার সরাসরি কোনও যােগ নেই। তবে এই সমস্যা হওয়ার সময় ন্যাপি পরলে অসুখ বাড়ে। এক্ষেত্রে কুঁচকি, কোমর, নিতম্বের মতাে জায়গা লাল হয়ে যায়। এই জায়গাটিতে ইউরিন। লাগলে ভীষণই জ্বালা অনুভূত হয়। বাচ্চা সর্বক্ষণই অস্বস্তি বােধ করে। এমন সমস্যা দেখা দিলে। চিকিৎসকের কাছে বাচ্চাকে আনতেই হবে। সাধারণত এসব ক্ষেত্রে অ্যান্টিফাঙ্গাল মলম লাগানাের পরামর্শ দেওয়া হয়। কয়েকদিনের মধ্যেই সমস্যা কমে যায়। 

মনে রাখবেন, ইনফেকশনের সময় বাচ্চাকে কোনওভাবেই ন্যাপি পরানাে যাবে না। সংক্রমণ কমলে ফের পরানাে যায়।

ন্যাপি পরলে ঠান্ডা লাগতে পারে কি  ? 

এমনটা হওয়ার আশঙ্কা কম। কারণ ন্যাপি ইউরিন শুষে নেয়। কিন্তু চার-পাঁচ ঘণ্টা হয়ে যাওয়ার পর বা বাচ্চা দুই-তিনবার ইউরিন করে ফেলার পরও ন্যাপি না বদলালে ন্যাপি লিক করে। তখন বাচ্চার ঠান্ডা লাগার আশঙ্কা তৈরি হয়।

ন্যাপী পরলে কি টয়লেট ট্রেনিং হয় না ?

ন্যাপি পরালে নাকি বাচ্চা ঠিক জায়গায়, ঠিক সময়ে মলত্যাগ করতে শেখে না, এই অভিযােগ রয়েছে।  আসলে সত্যিটা হল, দুই বছর বয়সের আগে কোনও বাচ্চাকে টুল ট্রেনিং করানাে উচিত নয়। এমনটা করলে তার কোষ্ঠকাঠিন্য হতে পারে। দুই বছরের পরই হবে স্টুল ট্রেনিং। সেক্ষেত্রে দুই বছরের পর ন্যাপি ব্যবহারও কমিয়ে দেওয়ার কথা বলা হয়। ফলে ন্যাপির সঙ্গে টয়লেট ট্রেনিংকে জুড়ে দিলে চলবে না। তাই কোনও সমস্যা না থাকলে দুই বছর বয়স পর্যন্ত বাচ্চাকে ন্যাপি পরাতেই পারেন। চিন্তার কিছুই নেই। 


বাচ্চাদের ন্যাপী পড়ানো উচিৎ কি উচিৎ নয় ? কি বলছেন বিশেষজ্ঞ ডাক্তারেরা ? বাচ্চাদের ন্যাপী পড়ানো উচিৎ কি উচিৎ নয় ? কি বলছেন বিশেষজ্ঞ ডাক্তারেরা ? Reviewed by WisdomApps on মে ০৭, ২০২১ Rating: 5

গৌরি মাতার বানী - যে সংসারে শান্তি পায় না সে সংসার ত্যাগ করেও শান্তি পায় না

মে ০৬, ২০২১

 quotes_by_gouri_mata

• যদি প্রকৃত শান্তি ও আনন্দের সন্ধান পেতে চাও তবে সব (আসক্তি) ছেড়ে ভগবানকে ডাকো। পেছন ফিরে চেয়াে না। সকল রকম বিষয়বাসনা না ছাড়লে সে পথে এগােনাে যায় না।

• নিষ্কামভাবে কাজ করে যাবে। যশ আর প্রতিষ্ঠাকে বিষ্ঠার ন্যায় ঘৃণা করবে। পরের সেবা করতে এসে যদি মনের কোণেও আত্মপ্রশংসার আকাঙ্খা জাগে, তবে সাধক জীবনে তা আত্মহত্যারই তুল্য জানবে।

• ভগবানকে সে সত্যিকারের ভালােবাসতে পারে, ভগবান কি কখনাে তাকে দেখা না দিয়ে থাকতে পারেন। তিনি ভক্তের কাঙাল। ভক্ত ব্যাকুল হয়ে তাকে ডাকলে।

• ধর্মলাভের পথে যােগ্যতার বিচারে নারী-পুরুষে কোনাে ভেদ নেই।

• বাড়ির, গ্রামের, দেশের, বিদেশের....অনন্ত ব্রহ্মান্ডের সবাইকে আপন করে নাও, ভালােবাসাে।

• ক্রোধ, মান-অভিমান, ঘৃণা, ভয়, অনিষ্ঠা জন্মের মতাে ছেড়াে। বিষয়-চিন্তা, 'ভােগ-বিলাস ত্যাগ করাে। বিরােধ, বিদ্বেষভাব রেখাে । খাদ্য বিচার সবাই করাে, সুরায় মানুষ খায়। কুসঙ্গ, কুজনের অনুরােধ, কু-স্থানে গমন, কু-দৃশ্য দর্শন, কু-দান গ্রহণ, কু-গ্রন্থ পঠন, কায়মনে বর্জন করাে। নিদ্রালস্য ত্যাগ করাে, চিন্তা করে কাজ করাে।

• প্রেমভক্তি ভিন্ন জীব শব-তুল্য, অসার। লক্ষ লক্ষ জন্ম অশেষ কর্মভােগ এবং দুর্গতির পর...প্রেম ও রতি জন্মায়।

• বৃথা সময় নষ্ট করাে না। তেজ অচল, অটল থাকলে, একান্ত ইচ্ছায় মানুষ সবই পারে । মূর্খ থেকো না।

• চৈতন্য লাভ করাে নৈষ্ঠিক হও। মাঙ্গল্যে রও। ধর্মে জয়যুক্ত হও। ভজন, দর্শন, জপন, স্মরণ, নিবেদন, আত্মসমর্পণ।

• এক সচ্চিদানন্দ ভগবানই বিশ্বরূপ ধারণ করেন।

• মুক্তি, প্রাক্তন, পরকাল ও পরিণামাদি (জীবের) স্ব-স্ব কর্মানুযায়ী। ...সময় থাকতে থাকতে হরিনাম করাে।...মঙ্গল হবে।

•“আমি” যে “আমি” সে “আমিই মাত্র। সুতরাং দ্বিতীয় “আমি” কদাচ হতে পারে না। 

• কারাের প্রতি কটু, কুৎসা ও ঘৃণিত বাক্য বলতে নেই।...জীবমাত্রেই। প্রাণে উদ্বেগ দেবে না।...কাউকে মর্মে ব্যথা দেওয়া উচিত না।

• ক্ষুধার্ত দেখলে খাদ্য দিও সাধ্যমত।...সকলকে আপন ভেবে এক হয়ে থাকো।

• যে সংসারে শান্তি পায় না, সে সংসার ত্যাগ করেও শান্তি পায়। ...ভ্রষ্ট বুদ্ধি হয়ে পিতা-মাতার মনে কষ্ট দিতে নেই।

• আত্মসংযমে আত্মরক্ষা। আত্মবিশ্বাসে ধর্ম হয়।..সদা সত্য, সদা পবিত্রতা, সদা নিষ্ঠা, আত্মশুচিতে বপুরক্ষায় গৃহশুচিতে গ্রাম্যশুচি। গ্রামশুচিতে দেশশুচি। দেশশুচিতে জগৎশুচি। জগৎশুচিতে চতুর্দশ ভুবনশুচি।

• দেহ-মন শুদ্ধ হলে জ্ঞানের উদয়। জ্ঞান বিনা মনুষ্য জন্ম বৃথা।...চৈতন্যলাভ করাে।

• কোনাে রিপুকে প্রশ্রয় দিলে উপায় নেই।....একটি রিপুকে প্রশ্রয় দিলে ক্রমে সমস্ত রিপু এসে শক্ত করে ধরবে। যেমন লােভকে প্রশ্রয় দিলে সঙ্গে সঙ্গে ক্রোধ এসে উপস্থিত হয়। ক্রমে সব রিপু প্রবল হবে। সুতরাং আত্ম হিতাকাঙ্খী ব্যক্তি কখনাে কোন রিপুর বশীভূত হবে না....বিষয় বৈরাগ্য, ত্যাগই ধর্ম।

• হরিনামই রক্ষা, তােমরা সর্বত্র হরিনামই করবে।

• নিন্দায় জীবকে ভ্রান্তিকে ফেলে। সবাইকে সম্মান করবে। সবাই বিনয়ী হও। পরচর্চা বিষের মতাে ত্যাগ করাে। বৃথা বাক্য বলাে না।

গৌরি মাতার বানী - যে সংসারে শান্তি পায় না সে সংসার ত্যাগ করেও শান্তি পায় না গৌরি মাতার বানী - যে সংসারে শান্তি পায় না সে সংসার ত্যাগ করেও শান্তি পায় না Reviewed by WisdomApps on মে ০৬, ২০২১ Rating: 5

বঙ্কিমচন্দ্র চট্টোপাধ্যায়ের অসাধারণ কয়েকটি বানী - পড়ুন - শেয়ার করুন

মে ০২, ২০২১
quotes-by-bankim-chandra-chatterjee


• দুর্বল শরীর ইন্দ্রিয় জয় করিতে পারে না , ব্যায়াম ভিন্ন ইন্দ্রিয় জয় নাই । 

• যাহাকে স্বয়ং বিবাহ করিতে না পারি তাহার বিবাহ দিতে ইচ্ছে করে । 

• সমাজে কোনো অভাব হইলেই পূরণ হয় - সমাজ কিছু চাহিলেই তাহা জন্মে । 

•  যত্ন ভিন্ন কোনো কাজই সফল হয় না । 

• বাঙলার ইতিহাস চাই। নহিলে বাঙালি কখনও মানুষ হইবে না।

• যদি অন্য কেহ তােমার প্রণয়ভাগী না হইল, তবে তােমার মনুষ্যজন্ম বৃথা।

• সাহিত্যও ধর্ম ছাড়া নহে, কেন না, সাহিত্য সত্যমূলক।

• প্রণয় জন্মিলেই তাহাকে যত্নে স্থান দিবে ; কেননা প্রণয় অমূল্য।

• সুশিক্ষিত-অশিক্ষিতে সমবেদনা চাই।

•.বিধবা বিবাহ ভালােও নহে, মন্দও নহে, সকল বিধবার বিবাহ হওয়া কদাচ ভালাে নহে। তবে বিধবাগণের ইচ্ছামতাে বিবাহে অধিকার থাকা ভালাে। যে সাধ্বী, পূর্বপতিকে আন্তরিক ভালােবাসিয়াছিল, সে কখনােই পুনর্বার পরিণয় করিতে ইচ্ছা করে না।

• নাটকের উদ্দেশ্য হৃচ্চিত্র। 

• রাজা যেরূপ হয়েন, রাজানুচর এবং রাজপৌরজন প্রভৃতিও সেইরূপ হয়।

• বাঙালিরা আপন গৃহিণীকে সর্বাপেক্ষা সুন্দরী দেখে। 

• ধন লিপ্লাই মনুষ্যজাতির অধিকতর মঙ্গলকর হইয়াছে। বস্তুত জ্ঞানলিঙ্গা কদাচিৎ, ধন লিপ্সা সর্বসাধারণ, এজন্য অপেক্ষাকৃত ফলােপদায়ক। দেশের উৎপন্ন ধনে জনসাধারণের গ্রাসাচ্ছাদনের কুলান হইতেছে বলিয়া সামাজিক ধনলিপ্সা কমে না। সর্বদা নূতন নূতন সুখের আকাঙ্ক্ষা জন্মে। পূর্বে যাহা নিষ্প্রয়ােজন বলিয়া বােধ হইত, পরে তাহা আবশ্যকীয় বােধ হয়।

• যখন হৃদয় কোনাে বিশেষভাবে আচ্ছন্ন হয়,—স্নেহ, কি শােক, কি ভয়, কি যাহাই হউক, তাহার সমুদায়াংশ কখনও ব্যক্ত হয় না। কতকটা ব্যক্ত হয়, কতকটা হয় না। যাহা ব্যক্ত হয়, তাহা ক্রিয়ার দ্বারা বা কথা দ্বারা। সেই ক্রিয়া এবং কথা নাটককারের সামগ্রী, যেটুকু অব্যক্ত থাকে, সেইটুকুই গীতিকাব্য প্রণেতার সামগ্রী।

• সংসার সমুদ্রে স্ত্রীলােক তরণী স্বরূপ।

• সন তারিখ শূন্য যে ইতিহাস, সে পথশূন্য অরণ্যতুল্য।

• সামান্য কণ্ঠভঙ্গীতেও মনকে চঞ্চল করে। কণ্ঠভঙ্গীর সেই চমােকই সঙ্গীত। কণ্ঠভঙ্গী মনের ভাবের চিহ্ন। অতএব সঙ্গীতের দ্বারা সকল প্রকার মনের ভাব প্রকাশ করা যায়। 

• যাহার যাহাতে অভাব, তাহার তাহাতেই লােভ।

• পশুবৃত্তির জন্য বিবাহ ব্যবস্থা দেবতা করেন নাই। পশুদিগের বিবাহ নাই। কেবল ধর্মার্থেই বিবাহ।

• পরকাল নাই মান, কেবল ইহকালকে সার করিয়াও সম্পূর্ণরূপে ধার্মিক হওয়া যায়।

• প্রেমবুদ্ধি বৃত্তিমূলক। প্রণয়াস্পদ ব্যক্তির গুণ-সকল যখন বুদ্ধিবৃত্তি দ্বারা পরিগৃহীত হয়, হৃদয় সেই সকল গুণে মুগ্ধ হইয়া তৎ প্রতি সমাকৃষ্ট এবং সঞ্চালিত হয়, তখন সেই গুণাধারের সংসর্গে লিপ্সা এবং তৎপ্রতি ভক্তি জন্মে। ইহার ফল, সহৃদয়তা এবং পরিণামে আত্মবিস্মৃতি ও বিসর্জন। এই যথার্থ প্রণয়।

• দুঃখময় জীবনে দুঃখ আছে বলিয়া তাহাকে অসার বলিব না। কিন্তু অসার বলি এইজন্যে যে দুঃখই দুঃখের পরিণাম—তাহার পর আর কিছু নাই।

• ধনের ধার বড়াে ধার।

• সস্তা খরিদের অবিরত চেষ্টাকে মনুষ্য জীবন বলে।

• কেহ একা থাকিও না।

• কবিরা জগতের শ্রেষ্ঠ শিক্ষাদাতা, এবং উপকার কর্তা এবং সর্বাপেক্ষা অধিক মানসিক শক্তিসম্পন্ন। কি প্রকারে কাব্যকারেরা এই মহৎ কার্য সিদ্ধি করেন? যাহা সকলের চিত্তকে আকৃষ্ট করিবে, তাহার সৃষ্টির দ্বারা। সকলের চিত্তকে আকৃষ্ট করে, সে কি? সৌন্দর্য, অতএব সৌন্দর্য অর্থ কেবল বাহ্য প্রকৃতির বা শারীরিক সৌন্দর্য নহে। সকল প্রকারের সৌন্দর্য বুঝিতে হইবেক।

বঙ্কিমচন্দ্র চট্টোপাধ্যায়ের অসাধারণ কয়েকটি বানী - পড়ুন - শেয়ার করুন বঙ্কিমচন্দ্র চট্টোপাধ্যায়ের অসাধারণ কয়েকটি বানী - পড়ুন - শেয়ার করুন Reviewed by WisdomApps on মে ০২, ২০২১ Rating: 5

১২ রাশির নিখুঁত সাপ্তাহিক রাশিফল ০২রা মে থেকে ৮ই মে ২০২১ - পড়ুন

মে ০২, ২০২১

                  


১২ রাশির নিখুঁত সাপ্তাহিক রাশিফল ০২রা মে থেকে ৮ই মে ২০২১ - পড়ুন ১২ রাশির নিখুঁত সাপ্তাহিক রাশিফল ০২রা মে থেকে ৮ই মে ২০২১ - পড়ুন Reviewed by WisdomApps on মে ০২, ২০২১ Rating: 5

কবি বিষ্ণু দে'র অসাধারণ কিছু বানী - পড়ুন , শেয়ার করুন

এপ্রিল ২৯, ২০২১

 বিষ্ণু দে'র অসাধারন কিছু বানী 


• কবিতা তাে লেখাই হয় কাজের শব্দের প্রায় অবচেতন অর্থাৎ খনিকটা ব্যক্তির বাইরে নিজস্ব তাড়নায়। ভাষার প্রকাশ্য সত্তা শক্তি পায় কবিতার ক্ষেত্রে সবচেয়ে বেশি কথার এই চেতন-অবচেতন সঞ্চারিত ধ্বনি ফল্গুস্রোতে।

• যাকে এর ভঙ্গিতে আকস্মিক বা এলােমেলাে ঘটনা মনে হয়, আর এক দিক থেকে তাই স্ট্যাটিস্টিকাল বা সংখ্যাবিজ্ঞানের নিয়মে প্রকাশিত।

• ভাষার একটা স্বাভাবিক স্থিতিপ্রবণতার জন্য রচনার গতিতে আসে দ্বিধা। গতিতে গা ভাসালে অবশ্য খুঁটিতে বাঁধা মনের দ্বিধাও নিষ্প্রয়ােজন। সজীব রচনাতে তাই শিল্পী ও শিল্পবস্তু, বিষয় ও টেকনিকে টান পড়ে জ্যা বদ্ধ ধনুকের টংকারে ধনু ও ছিলা টানের 

• স্বর্গ সে তাে চেতনার সিঁড়ি।

• লৌকিক সংস্কৃতির আকর্ষণ যেন জীবন্ত মানুষকে আমাদের জাদুঘরের সামগ্রী না করে তােলে।

• লােকশিল্প বাস্তববিরােধী নয়, বাস্তব পরিপক্ক পরােক্ষ (আবস্ট্রাক্ট ফর্ম) আসলে তার লােকায়িত মুক্তিই।

• লােকনৃত্যের প্রেরণা ও প্রয়ােগ অনেকখানি নির্ভর করে তার সামাজিক উপলক্ষে। শহুরে মঞ্চের উপরে অনেক নৃত্যই মানায় না, অধিকন্তু দর্শকরা তার প্রেরণায় অংশ নিতে অক্ষম।

• বন্ধুত্বের পারস্পরিকতায় যে কথা মুখে বলা যায়, সে কথা কাগজের শীতল প্রকাশ্যতায় লেখা অর্থহীন।

• লাঙল ফলায় চেতনাকে করাে উর্বর তবে তাে ফলবে জ্ঞান-বিজ্ঞানে মনের ফসল, তবে তাে গড়বে যন্ত্র হাতের দরদে সচল।

• সাময়িক আনন্দ ছাড়া আরেক দিক থেকে লােকনৃত্যের সার্থকতা। স্পষ্টতর; সেটা হচ্ছে নৃত্যের রূপশিক্ষার দিক, নতুন নৃত্য-প্রেরণায়। যার প্রভার কার্যকর হবে। বিশেষ করে আজ যখন আমরা জানি। যে শিক্ষায় শরীরের ছন্দশিক্ষার মূল্য প্রথমিক। এই ছন্দশিক্ষায় আমরা যত বেশি লােকনৃত্য দেখতে পারি এবং স্থানকালপাত্র ভেদে ও ক্ষমতানুসারে তার থেকে পাঠ নিতে পারি, ততই লাভ। তাছাড়া, আমরা এবং আমাদের ছেলেমেয়েরা কেন নিছক সৌন্দর্য দর্শনের। সুযােগ পাব না?

• সূর্য ফের প্রত্যহই সহিষ্ণু আস্থায় উদয় - শিখরে । 

• আপন সমস্যাকে শুধু নিজের মনের গহুর নিষ্ক্রান্ত জীব না ভেবে সে যে ইতিহাসব্যাপী সমস্যারও অংশ এই উপলব্ধির নিয়ত চর্চা লেখকের প্রস্তুতির সহায়।

• শিল্পী জানে, কবি জানে, যেহেতু প্রেমিক তারা তাই জানে দ্বন্দ্বের যন্ত্রণা, জানে সমাধা দুরূহ, তবু আশা দুর্মর।

• শব্দের অর্থের ছন্দের স্বরের দ্বন্দ্বে রূপান্তর চাই, শব্দে শব্দে আপতিক ভেদাভেদ অতিক্রমে কবিতায় কবিতায় স্বাতন্ত্রের অনন্য ও অন্যোন্যের যােগাযােগে অর্থের বিন্যাস।

• সভ্যতার আর একটি বড় প্রত্যয় হচ্ছে ব্যক্তিত্ববােধ। কি করে সমাজ ও ব্যক্তিতে দ্বন্দ্বাশ্রয়ী সম্বন্ধের দীর্ঘ ইতিহাসে এই ব্যক্তি স্বরূপ মর্যাদা পেতে লাগল, তার ব্যাখ্যা সভ্যতার ইতিহাস। বহির্জগতে বিরুদ্ধশক্তি, অন্ধপ্রকৃতি, জন্তু-জানােয়ার, হিংস্র-গােষ্ঠীর দলাদলি যতদিন না মানুষের শুভবুদ্ধি কর্তৃত্বে রূপান্তরিত হবার সম্ভাবনা পেয়েছে ততদিন ব্যক্তির এই মহিমা কবিদের মনেও আসেনি। বাল্মীকি বা হােমার গােষ্ঠীর রচনাই করছেন, রবীন্দ্রনাথই বলতে পেরেছেন স্বকীয়তার কথা।



Searched: Quotes by Bishnu Dey , Bishnu Dey Quotes in bengali , Bangla bani of Bishnu Dey , Bishnu Dey Bani ,bishnu dey quotes in bengali , বিষ্ণু দে বানী 

কবি বিষ্ণু দে'র অসাধারণ কিছু বানী - পড়ুন , শেয়ার করুন কবি বিষ্ণু দে'র অসাধারণ কিছু বানী - পড়ুন , শেয়ার করুন Reviewed by WisdomApps on এপ্রিল ২৯, ২০২১ Rating: 5

এই সপ্তাহ আপনার কেমন যাবে ? ২৫ এপ্রিল থেকে ১লা মে ২০২১

এপ্রিল ২৫, ২০২১

                 


এই সপ্তাহের সব রাশির রাশিফল 


মেষঃ সপ্তাহের শুরুটা তুলনামূলকভাবে শুভ। শরীরস্বাস্থ্যের উল্লেখযােগ্য উন্নতি। ব্যবসায় নতুন যােগাযােগ। দাম্পত্য শান্তি। সপ্তাহের মধ্যভাগে চাকুরিস্থানে অস্থিরতা বৃদ্ধি। প্রেম-পরিণয়ে বিরহ বেদনা। বিদ্যালাভে মনঃসংযােগের অভাব। সপ্তাহের অন্তভাগে চাকুরিক্ষেত্রে গােলােযােগের সাময়িক অবসান। বহুদিনের আটকে থাকা অর্থ আদায়। দৈব কৃপায় জটিল সমস্যার সন্তোষমূলক সমাধান। শত্রুদমনে উল্লেখযােগ্য সাফল্য। গবেষণামূলক কাজে সাফল্য। 


☞ বাড়িতে অশুভ শক্তির বসবাস ? তাড়াবেন কিভাবে ? জেনে নিন 

বৃষঃ নতুন আসা- কর্মোদ্যমের সপ্তাহের সূচনা। সম্পত্তিজনিত সমস্যায় মানসিক চাপ বৃদ্ধি। বিদ্যাক্ষেত্রে যথেষ্ট বাধা-বিঘ্ন। শত্রুদমনে সাফল্য। সপ্তাহের মধ্যভাগে বিদ্যাস্থানে মনঃসংযােগ বৃদ্ধি। ব্যবসা-বাণিজ্য সাময়িক ঋণ বৃদ্ধি। কর্মস্থানে অস্থিরতা বজায় মানসিক অস্থিরতা বৃদ্ধি। সপ্তাহের অন্তভাগে দাম্পত্য সন্তোষ। প্রেমজ সম্পর্কে আবেগ অনুরাগ বৃদ্ধি।  অর্থনৈতিক ক্ষেত্রে নতুন আশা-আকাঙ্ক্ষার সঞ্চারে মানসিক প্রফুল্লতা বৃদ্ধি।

কানে শুনতে পেতেন না বিটোভেন , করেছেন পৃথিবীর সবথেকে বিখ্যাত সুর সৃষ্টি । কিভাবে ? 

 মিথুনঃ  ব্যক্তিগত শত্রুতার অবসান। আত্মীয় বন্ধু সহায়তায় পুরানাে মনােমালিন্যের সন্তোষজনক সমাধান। আয় উন্নতিতে বাধা-বিঘ্ন বজায় থাকায় মনােবল হ্রাস। সপ্তাহের মধ্যভাগে ব্যবসা ক্ষেত্রে নতুন উদ্যম। চাকুরিক্ষেত্রে অস্থিরতা বজায়, হতাশা বৃদ্ধি। আধ্যাত্মিক কৃপায় বিকল্প রােজগারের উপায়-অনুসন্ধানে সাফল্য। সপ্তাহের অন্তভাগে রাজনৈতিক ব্যক্তিদের নতুন যােগাযােগ ও পদপ্রাপ্তি। পুরানাে  মামলা মােকদ্দমায় মানসিক চাপ বৃদ্ধি। গৃহজ শান্তিতে মানসিক প্রফুল্লতা বৃদ্ধি। 



কর্কটঃ সপ্তাহের শুরুতে নতুন কর্মানুসন্ধানে আশাতীত সাফল্য। পুরানাে কর্মক্ষেত্রে কর্তৃপক্ষের উদাসীনতায় অর্থপ্রাপ্তিতে বিলম্ব। ব্যবসায়ীদের পক্ষে এই সপ্তাহের মধ্যভাগটা যথেষ্ট চাপের। পারিবারিক মনােমালিন্য , গার্হস্থ্য হিংসা বৃদ্ধি, ঋণশােধে মানসিক অস্থিরতার অবসান। সপ্তাহের অন্তভাগে ব্যবসায়িক সমস্যার আশাপ্রদ সমাধান। প্রেম-পরিণয়ে অভাব অভিযােগ পরিত্যাজ বিদ্যার্থীদের বিদ্যার্জনে নতুন উদ্যম। গুরুজন স্থানীয় ব্যক্তির শরীর-স্বাস্থ্যের উল্লেখযােগ্য উন্নতি। 

কোলকাতার কাছাকাছি ৯ টি অসাধারন পিকনিক স্পটের সন্ধান জেনে নিন 

সিংহঃ  এই রাশির জাতক/ জাতিকারা এই সপ্তাহটা যথেষ্ট  সাবধানে থাকবেন। আকস্মিক ভাবে উঁচু স্থান থেকে পতন, কীটপতঙ্গ সংক্রমণ থেকে সাবধানতা অবলম্বন প্রয়ােজন। উচ্চবিদ্যার প্রভূত উন্নতি। সপ্তাহের মধ্যভাগে কর্মস্থানে নতুন আশার সঞ্চার। আয় উন্নতি বৃদ্ধি। দাম্পত্য সমস্যা, গার্হস্থ্য হিংসায় অস্থিরতা বৃদ্ধি। সপ্তাহের অন্তভাগে ঐশ্বরিক কৃপায় শরীর-স্বাস্থ্যের উল্লেখযােগ্য উন্নতি। পারিবারিক সমস্যার সন্তোষজনক মীমাংসা। শত্রুদমনে সাফল্য। 


কন্যাঃ  অনেক দিনের জমে থাকা মনােমালিন্যের অবসানে মানসিক স্বস্তি। সপ্তাহের শুরুতেই কর্মক্ষেত্রে নতুন যােগাযােগে বিকল্প কর্মসংস্থানের শুভ যােগ। প্রেম-পরিণয়ে মান-অভিমান বৃদ্ধি। সঞ্চার সপ্তাহের মধ্যভাগে ব্যবসাক্ষেত্রে আটকে থাকা অর্থ আদায়। আইন-পুলিস সংক্রান্ত সন্তানের বিষয়ে সুচিন্তিত সিদ্ধান্ত নেওয়া আবশ্যক। উন্নতিতে  সপ্তাহের অন্তভাগে পারিবারিক চাপ বৃদ্ধি। অন্তভাগে অর্থতি বৃদ্ধি। রাজনৈতিক ব্যক্তিদের পক্ষে নতুন আশা-আকাঙ্ক্ষার সঞ্চার।



তুলাঃ  সপ্তাহের প্রথমভাগে। আধ্যাত্মিক কৃপায় শরীর স্বাস্থ্যের উন্নতি। ব্যবসায়িক যোগাযোেগ কর্মোদ্যম। বিদ্যাস্থানে মনঃসংযােগ হ্রাস। সপ্তাহের মধ্যভাগে আয়-উপার্জনে যথেষ্ট বাধা-বিঘ্ন। চোট-আঘাত প্রাপ্তির সম্ভাবনা। ঋণ বৃদ্ধি। প্রেম-পরিণয়ে রাগ অনুরাগ  বৃদ্ধি। সপ্তাহের অন্তভাগে ব্যবসাক্ষেত্রে। নতুন করে বিনিয়ােগ। গবেষণামূলক কাজে উল্লেখযােগ্য সাফল্য। উত্তেজনা রয়েছে। এইরকম বিতর্ক বিবাদ এড়িয়ে যাওয়াই শ্রেয়।

☞ মায়াপুর ঘুরতে যেতে চান ? খুঁটিনাটি সব জেনে নিন এই লেখা থেকে 

বৃশ্চিকঃ সপ্তাহের শুরুতেই শুভ যােগাযােগ। ব্যবসায় নতুন আশার সঞ্চার। কর্মস্থানে অস্থিরতার অবসান। দাম্পত্য সন্তোষ বজায় থাকবে। সপ্তাহের মধ্যভাগে পেট, মুখমণ্ডল, ত্বকের সমস্যা বৃদ্ধি। |  গুরুজনের শারীরিক অবস্থা স্থিতিশীল। | নিজের পরিশ্রম ও ধৈর্য বজায় রাখায় আয়। উপার্জন বৃদ্ধি। সপ্তাহের শেষের দিকে ব্যবসা ক্ষেত্রে অস্থিরতা বৃদ্ধি হলেও খুব একটা দুশ্চিন্তার কিছু নেই। বিতর্কিত বিষয়ে | অনর্থক মন্তব্যে প্রেমজ সম্পর্কে উত্তেজনা বৃদ্ধি।


ধনুঃ শরীর-স্বাস্থ্যের বিষয়ে অত্যন্ত সতর্কতা আবশ্যক। সপ্তাহের শুরুতে আয় উপার্জনে। মন্দা। মানসিক |  অসন্তোষের কারণ হতে পারে। শেয়ার,ফাটকা ইত্যাদিতে হঠকারী সিদ্ধান্ত নেওয়ার থেকে বিরত থাকাই শ্রেয়। সপ্তাহের মধ্যভাগে অর্থ সমস্যার সাময়িক সুরাহা। কর্মক্ষেত্রে অস্থিরতা বজায় থাকায় হতাশা বৃদ্ধি। সপ্তাহের অন্তভাগে বিদ্যাস্থানে প্রভূত উন্নতি। রাজনৈতিক আকাক্ষায় নতুন সঞ্চার। দাম্পত্য সমস্যার সন্তোষজনক সমাধান। স্বাস্থ্যোন্নতি।



মকরঃ  ব্যবসাক্ষেত্রে নতুন লগ্নির মাধ্যমে সপ্তাহের শুভ সূচনা। কর্মক্ষেত্রে আটকে থাকা বেতন প্রাপ্তি। প্রেম-পরিণয়ে উল্লেখযােগ্যভাবে বিতর্ক বিবাদের অবসান। সপ্তাহের মধ্যভাগের শরীর-স্বাস্থ্যের বিষয়ে সতর্কতা অবলম্বন আবশ্যক। আকস্মিক চোট আঘাত, পুরানাে ব্যাধিতে মানসিক অস্থিরতা বৃদ্ধি। যদিও ঐশ্বরিক কৃপায় সপ্তাহের শেষের দিকেই শরীর-স্বাস্থ্যের উল্লেখযােগ্য উন্নতি। নতুন করে অর্থলগ্নির চিন্তা এখনই না করা উচিত। 

কুম্ভঃ সপ্তাহের শুরুটা খুব একটা মন্দ যাবে না। গুরুজনের নিয়ে উদ্বেগ থাকবে। পারিবারিক ক্ষেত্রে বিতর্ক-বিবাদ এড়িয়ে যাওয়াই শ্রেয়। সপ্তাহের মধ্যভাগে ব্যবসা ক্ষেত্রে ঋণ। বৃদ্ধি। কর্মস্থানে কর্মী-সংকোচনে উদ্বেগ বৃদ্ধি। গবেষণামূলক কাজে আশাতীত সাফল্য। সপ্তাহের অন্তভাগে শারীরিক সুস্থতা বৃদ্ধি। বিদ্যার্জনে প্রভূত সাফল্য। গার্হস্থ্য হিংসায় প্ররােচনা থেকে সাবধান। প্রেমে সাফল্য। 


☞ জানেন কি দু'বেলা খাবার জুটতো না হোমিওপ্যাথির জনক হ্যানিম্যানের ? পড়ুন জীবনী 


মীনঃ সপ্তাহের শুরুটা বেশ আশাপ্রদ। আধ্যাত্মিক কৃপায় জটিল রােগের উপশম। ব্যবসাক্ষেত্রে নতুন আশার সঞ্চার। সপ্তাহের মধ্যভাগে রাজনৈতিক ক্ষেত্রে শুভ যােগাযােগে নব আশা-উদ্যম। সন্তানের বিদ্যাশিক্ষায় উন্নতিতে মানসিক প্রফুল্লতা। সপ্তাহের অন্তভাগে শেয়ার, ফাটকায়, নিবেশে অর্থক্ষতি। কর্মক্ষেত্রে বিকল্প কর্মানুসন্ধানে সাফল্য। গুপ্তশত্রুতার যথােপযুক্ত জবাব। দাম্পত্য সন্তোষ বজায়।

এই সপ্তাহ আপনার কেমন যাবে ? ২৫ এপ্রিল থেকে ১লা মে ২০২১ এই সপ্তাহ আপনার কেমন যাবে ? ২৫ এপ্রিল থেকে ১লা মে ২০২১ Reviewed by WisdomApps on এপ্রিল ২৫, ২০২১ Rating: 5

এই সপ্তাহের রাশিফল ১৮ই এপ্রিল থেকে ২৪শে এপ্রিল ২০২১

এপ্রিল ১৮, ২০২১

                


এই সপ্তাহের সব রাশির রাশিফল 


মেষঃ এই সপ্তাহের শুরুতে এই রাশির জাতক জাতিকারা নতুন উদ্যম , উদ্দীপনা অনুভব করবেন । সপ্তাহের শুরুতেই মানসিক প্রফুল্লতা বৃদ্ধি পাবে । ধীরে ধিরে কাজ কর্মে অগ্রগতীর সূচনা হবে । সপ্তাহের মধ্যভাগে মানসিক সংশয় ও উৎকণ্ঠার সাময়িক অবসান। দাম্পত্য শান্তি। শরীরস্বাস্থ্যের উন্নতি। মানসিক বলবৃদ্ধি। সপ্তাহের অন্তভাগে ব্যবসায়িক ঋণশোধ। আত্মীয়পরিজন-গুরুজন . স্থানীয় ব্যক্তির স্থাস্থ্যোন্নতি। প্রেম-পরিণয়ে অতিরিক্ত সংবেদনশীলতা পরিত্যাজ্য। আয়-ব্যয়ের মধ্যে সমতা বিধান জরুরি। 


☞ জানেন কি ? টেলিগ্রাম নয় , সন্দেশ অ্যাপ হল ভারতের নিজস্ব মেসেজিং অ্যাপ - সরকারী ভাবে , পড়ে নিন বিস্তারিত 

বৃষঃ সপ্তাহের শুরুতে আধ্যাত্মিক, অনুপ্রেরণার বিকাশে মানসিক বল-বৃদ্ধি। ঈশ্বরের কৃপায় দীর্ঘদিনের শারীরিক ব্যথা-বেদনার আংশিক উপশম। সপ্তাহের মধ্যভাগে ঋণশোধ। আর্থিক অবস্থার কিছুটা উন্নতি। বিদ্যার্থীদের পক্ষে ঈপ্তাহের চতুর্থ দিন অত্যন্ত ফলপ্রসূ । ব্যবসায়িক ক্ষেত্রে উৎকন্ঠা বৃদ্ধি পেলেও অতিরিক্ত দুশ্চিন্তার কোনও প্রয়োজন নেই। সপ্তাহের অন্তভাগে সাংসারিক শান্তি, প্রচেষ্টায় সাফল্য। শরীর-স্বাস্থ্যের বিষয়ে সতর্কতা আবশ্যক। শক্রদমন। 

☞ ঘরোয়া কিছু পদ্ধতি ব্যবহার করেই আটকানো যায় চুলপড়া , খুশকি ও পাকা চুল । জেনে নিন 

 মিথুনঃ  এত দুশ্চিন্তা কেন? ঐশ্বরিক কৃপায় এই সপ্তাহেই আপনার যাবতীয় উৎকণ্ঠা, উদ্বেগ থেকে অনেকটাই মুক্তি লাভ করবেন। সপ্তাহের শুরুতে আয় উন্নতির যোগ পরিস্কার। তবে ব্যয়ভাবও বয়েছে। আয়-ব্যয়ের মধ্যে সামঞ্জস্য বিধান অত্যন্ত জরুরি। সপ্তাহের মধ্যভাগেই শারীরিক অবস্থার অনেকটাই উন্নতি। ধর্মাচরণ , আধ্যাত্মিক শক্তির বিকাশে মনোবল বৃদ্ধি। সপ্তাহের অন্তভাগে দাম্পত্য সমস্যা কিছুটা মাথাচাড়া দিতে পারে। দ্রুত সামঞ্জস্য বিধান প্রয়োজন। কর্মসন্ধানে নতুন উৎসাহে মানসিক প্রফুল্লতা বৃদ্ধি। 


☞ লোকনাথ বাবার কিছু বানী আপনার জীবনে আশার আলো আনতে পারে । একটু সময় দিয়ে পড়ে নিন । 

কর্কটঃ এই রাশির জাতক-জাতিকার পক্ষে শুভাশুভ ফল দেবে । সপ্তাহের শুরুতে প্রতিকূলতা বৃদ্ধি পাবে। অর্থচিন্তায় মানসিক উদ্বেগ বৃদ্ধি। সাংসারিক 'অশাস্তিতে চিত্তচাঞ্চল্য। সপ্তাহের মধ্যভাগ সন্তানের পক্ষে শুভ । ব্যয়-বৃদ্ধি থাকলেও অর্থের সংস্থান হয়ে যাবে। শারীরিক অবস্থার উল্লেখযোগ্য উন্নতি। সপ্তাহের শেষদিক তুলনামূলকভাবে শুভ। ঐশ্বরিক কৃপায় মানসিক গীড়া, উৎকন্ঠার সাময়িক সমাধান।

কোলকাতার কাছাকাছি ৯ টি অসাধারন পিকনিক স্পটের সন্ধান জেনে নিন 

সিংহঃ  সপ্তাহের শুরুতে আর্থিক ্‌ দীনতায় মানসিক অস্থিরতা বৃদ্ধি । তবে খুব একট চিন্তার কারন নেই। শুভাকাঙ্ক্ষী আত্মীয়, বন্ধুদের সহায়তায় যাবতীয় প্রতিকূলতা থেকে জয়লাভ অবশ্যম্ভাবী। সপ্তাহের মধ্যভাগে গৃহশান্তি বৃদ্ধি। মানসিক প্রফুল্লতা বৃদ্ধি। . যোগচর্চা, প্রাণায়ামে সুস্থতা বজায় থাকবে। ঋণশোধ। শক্রদমন। সপ্তাহের অন্তভাগে আর্থিক সমস্যার সাময়িক সুরাহা | মানসিক সন্তোষ বৃদ্ধি । 

☞ বাজারে এসেছে ভেসপা কোম্পানীর ইলেক্ট্রিক স্কুটার , ১ বার চার্জ দিলে চলবে ১০০ কিমি দেখে নিন

কন্যাঃ  ব্যবসায়িক মন্দায় সপ্তাহটা শুরু হলেও শারীরিক সুস্থতায় মনোবল বৃদ্ধি। কর্মে নতুন উদ্দীপনা। শুভ যোগাযোগ। দাম্পত্য শান্তি। সপ্তাহের মধ্যভাগে ব্যবসায় কিছুটা অগ্রগতি। আর্থিক অবস্থা স্থিতিশীল। চাকুরিক্ষেত্রে আটকে থাকা বেতনে ছাড়পত্র। বিদ্যার্থীদের মনোসংযোগে বাধা-বিপত্তি। সপ্তাহের অন্তভাগে উচ্চশিক্ষায় শুভ সংবাদ ও নতুন কর্মো উদ্দীপনায় মানসিক বলবৃদ্ধি। সাংসারিক ক্ষেত্রে মনোমালিন্যের অবসানে মানসিক সন্তোষ বৃ্দ্ধি। 



তুলাঃ  তুলা রাশির জাতক/ জাতিকার ক্ষেত্রে এই সপ্তাহটা বিশেষ অর্থবহ। সপ্তাহের প্রথম দিকে সম্পত্তিজনিত বিবাদ পুনরায় মাথাচাড়া, দিতে পারে । পুরনো মামলা মোকদ্দমা, পুলিশি ঝামেলায় মানসিক অস্থিরতা বৃদ্ধি। সপ্তাহের মধ্যভাগে স্থির সিদ্ধান্তে জটিল সমস্যার আপাত সমাধান। বন্ধুস্থানীয় ব্যক্তির সহযোগিতায় আইনি সমস্যায় আপাত স্বস্তি। সপ্তাহের অন্তভাগ তুলনামূলকভাবে বেশ শুভ। অর্থচিন্তার অবসান। শরীর, স্বাস্থ্যের আশ্চর্যজনক উন্নতি। ঈশ্বরের কৃপায় মানসিক অস্থিরতার অবসান। শরীর , স্বাস্থ্যের আশ্চর্যজনক উন্নতি । ঈশ্বরের কৃপায় মানসিক অস্থিরতার অবসান । 

☞ জানেন কি দাঁতের পোকা বলে কিছু হয়না ? আর দাঁত ভালো রাখার সিক্রেট জেনে নিন 

বৃশ্চিকঃ সপ্তাহের শুরুতেই  কর্মক্ষেত্রের অস্থিরতা, মানসিক উদ্বেগ বৃদ্ধি। প্রিয়জন/ শুভাকাঙ্খী ব্যক্তিবর্গের সহযোগিতায় নতুন কর্মোদ্যোগ শুরু করা অভিপ্রেয়। ঈশ্বরের কৃপায়, সপ্তাহের মধ্যভাগে কর্মস্থানে নতুন আশার আলো। অর্থনৈতিক ক্ষেত্রে স্থিতাবস্থা। নতুন ব্যবসার সন্ধানে আশার আলো। শারীরিক অবস্থার তাৎপর্যমন্ডিত অগ্রগতি। সপ্তাহের অন্তভাগে গুরুজন স্থানীয় ব্যাক্তির স্বাস্থ্যোন্নতি। দাম্পত্য সমস্যায় ভুল বোঝাবুঝির অবসান। সন্তানের বিদ্যার্জনে একাগ্রতা বৃদ্ধিতে মানসিক সস্তোষ। 



ধনুঃ অর্থোপার্জনে উল্লেখযোগ্য অগ্রগতিতে সপ্তাহের শুরুতে নতুন কর্মোদ্দীপনা বৃদ্ধি। প্রেমপরিণয়ে ভুল বোঝাবুঝির অবসান। ব্যবসাক্ষেত্রে শুভ যোগাযোগ। সপ্তাহের মধ্যভাগে সম্পত্তিজনিত সমস্যায় মানসিক পীড়া। আত্মীয়-বন্ধুর আচরণে মতানৈক্য। আধ্যাত্মিক শক্তির বিকাশে শারীরিক অবস্থার উল্লেখযোগ্য উন্নতি। সপ্তাহের অন্তভাগে সাংসারিক সমস্যায় মানসিক অস্থিরতা বৃদ্ধি। গুরুজনস্থানীয় ব্যক্তির শারীরিক অবস্থার সন্তোষজনক উন্নতি। মানসিক প্রফুল্পতা বৃদ্ধি । 


মকরঃ  সপ্তাহের শুরুর দিকে শুভচিন্তার উদ্রেক। অর্থনৈতিক ক্ষেত মোটামুটি স্থিতিশীল। দাম্পত্য সন্তোষ বৃদ্ধি। বিদ্যার্জনে বাধা-বিপত্তির অবসান। সপ্তাহের মধ্যভাগে প্রেম-পরিণয়ে মানসিক প্রফুল্লতা বৃদ্ধি। যাবতীয় মতানৈক্যের অবসান। ঋণশোধ। শক্রদমন। সপ্তাহের অন্তভাগে কর্মক্ষেত্রে কর্মপ্রতিভার স্বীকৃতি । ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের অনুরোধে কর্ম ক্ষেত্রে উৎকণ্ঠার অবসান । স্বাস্থ্যের ব্যাপারে সতর্কতা অত্যন্ত জরুরী । ব্যাবসায়িক অগ্রগতি । 

কুম্ভঃ ব্যবসায়িক চিন্তায় নতুন সমাধানে আশার আলো । সপ্তাহের প্রথম দিকে নতুন কর্মোদ্দীপনা। বিদ্যাস্থানে বাধাবিপত্তি। প্রেমজ ব্যথা-বেদনা। সপ্তাহের মধ্যভাগে গুপ্ত শত্রতার যথোপযুক্ত জবাব। গৃহশান্তি বজায় রাখা অত্যন্ত জরুরি। শারীরিক সতর্কতা আবশ্যক।. সপ্তাহের অন্তভাগে আর্থিক সমস্যার কিছুটা সুরাহা। শরীর-স্বাস্থ্যের উন্নতিতে মানসিক উদ্বেগের আপাত অবসান। প্রেম-পরিণয়ে মানসিক উৎফুল্পতা বৃদ্ধি।

☞ বাজার থেকে পচা টম্যাটোর সস কিনে খাওয়ার থেকে বাড়িতে সস বানানোর এই পদ্ধতি জেনে নিন 

মীনঃ সপ্তাহের শুরুতে শারীরিক অবস্থার উল্লেখযোগ্য অগ্রগতি। অর্থনৈতিক স্থিতাবস্থা জারি। দাম্পত্য-শান্তি বিধান। সপ্তাহের মধ্যভাগে বিকল্প কর্মচিন্তায় নতুন পথের সমাধান। সংসারে মানসিক দূরত্বের অবসান। বিদ্যাস্থানে উল্লেখযোগ্য উন্নতি। ব্যয় বৃদ্ধি। সপ্তাহের অস্তভাগে গৃহজ সমস্যা বৃদ্ধি । আত্মীয় পরিজনের উদাসীন আচরণে মানসিক পীড়া। 

এই সপ্তাহের রাশিফল ১৮ই এপ্রিল থেকে ২৪শে এপ্রিল ২০২১ এই সপ্তাহের রাশিফল ১৮ই এপ্রিল থেকে ২৪শে এপ্রিল ২০২১ Reviewed by WisdomApps on এপ্রিল ১৮, ২০২১ Rating: 5

বাড়ি থেকে অশুভ শক্তি তাড়াবেন কিভাবে ? বাস্তুশাস্ত্র মতে উপায় জেনে নিন

এপ্রিল ১৩, ২০২১


বাস্তু শব্দের আক্ষরিক অর্থই হল বাসস্থান । সেই বাসস্থান সংক্রান্ত বিজ্ঞান বা শাস্ত্রতে বলা আছে কীভাবে পৃথিবী, জল, আগুন, হাওয়া এবং শূন্য-এর সঠিক তালমিলে ঘরে অবস্থান করে সম্পূর্ণ সমন্বয়। আপনার বাড়িতে বাস্তুর সমস্যা আপনার জীবনে ডেকে আনতে পারে নানা অপ্রীতিকর পরিস্থিতি, নানা অঘটন। তবে অন্দরমহলে বাস্তশাস্ত্র মেনে সামান্য রদবদল জীবনে শান্তি, সুখ ও সমৃদ্ধি নিয়ে আসবে।

যারা ফ্ল্যাট বা পুরনো বাড়ি কেনেন তাঁদের বাস্ত নিয়ে সব থেকে বড় সমস্যায় পড়তে হয়। একটি বাড়ি বা ফ্ল্যাটের নকশা তো পুরোপুরি বদলে দেওয়া সম্ভব হয় না, তাই সামান্য রদবদলেই হোক বাস্ত-শুদ্ধি। 

বাড়ি থেকে অশুভ শক্তি তাড়াবেন কী ভাবে? 

আপনার বাড়িতে কি প্রতিদিন অশান্তি হয়? ঝগড়াঝাটি রোজকার ঘটনা? বা বাড়ির সদস্যদের অসুখ-বিসুখ লেগেই আছে ? কী করে এই সমস্যা থেকে রেহাই পাবেন, ভাবছেন? জ্যোতিষশাস্ত্রে কিন্ত এর সমাধান আছে। বাড়িতে প্রতিদিনের অশান্তির কারণ হতে পারে নেগেটিভ এনার্জি। আমাদের আশেপাশে যা কিছু আছে, তার সবকিছু থেকেই এনার্জি নির্গত হয়। আপনি কি অজান্তেই বাড়িতে নেগেটিভ এনার্জি জমাচ্ছেন ? সামান্য কয়েকটি অদল-বদল করে বাড়িতে সুখশান্তি ফিরিয়ে আনতে পারেন। কী করে ? জেনে নিন! 


১) সি সল্ট ঘরে রাখা অত্যন্ত শুভ । ঘরের নেগেটিভ এনার্জি দূরে সরায় সি সলট। একটা পাত্রে খানিকটা সি সল্ট ঘরে উত্তর-পূর্ব অথবা দক্ষিণ- পশ্চিম কোনে রেখে দিন। প্রতিদিনের ঘর মোছার জলেও কিছুটা সি সল্ট মিশিয়ে নিতে পারেন। 

২) ঘরের কার্পেট ও রাগে ধুলো জমে থাকলে, তা থেকে নেগেটিভ এনার্জি নির্গত হয়। সপ্তাহে অন্তত একদিন করে কাপেট ও রাগ পরিস্কার করুন। ধুলোবালির সঙ্গে নেগেটিভ এনার্জিও সরে যাবে। 

৩) বাড়িতে অপ্রয়োজনীয় জিনিস জড়ো করে রাখবেন না। নষ্ট হয়ে গ্বাওয়া জিনিসপত্র ফেলে সেখানে নতুন জিনিস আনুন। অপ্রয়োজনীয় জিনিস ফেলে দিতে দ্বিধাবোধ করবেন না। ঘর যত স্তুপিকৃত হয়ে থাকবে, ততই নেগেটিভ এনার্জির গুদাম হবে। 

৪) ঘরের টেবিল 'গোছগাছ করে রাখুন। টেবিল যেন নোংরা হয়ে না থাকে। ড্রয়ারগুলি মাঝেমধ্যে পরিস্কার করুন। ধুলোবালি নেগেটিত এনার্জিকে আকৃষ্ট করে। 

4) নোংরা জামাকাপড় বাড়ির এখানে সেখানে ছড়িয়ে রাখবেন না। একটা লন্ড্রি বাস্কেটে সব গুছিয়ে রাখুন। নোংরা জামাকাপড় ছড়িয়ে-ছিটিয়ে থাকলে পজিটিভ এনার্জি আপনার বাড়ি থেকে দূঝে পালাবে। আলমারির মধ্যে পরিস্কার জামাকাপড় গুছিয়ে ভাঁজ করে রাখুন। 

৬) ঘুমের সময় ছাড়া একদম চুপচাপ ঘরে থাকা ঠিক নয়। এতে ঘরের মধ্যেকার বাতাসের ভারসাম্য নষ্ট হয়। ঘরে একা থাকলে, হালকা কোনও মিউজিক চালিয়ে রাখুন। 

৭) বদ্ধ ঘর নেগেটিভ এনার্জির গুদাম হয়ে থাকে। সব জানালা খুলে বাইরের আলো-বাতাস আসতে দিন। এতে ঘরের মধ্যের পরিবেশ উন্নত হবে। মন ভালো হবে ঘরের বাসিন্দাদেরও। 

৮) দিনের একটা নির্দিষ্ট সময় ধ্যান করুন। ধ্যান শুধু যে আপনাকে শান্ত ও সংযত করবে তাই নয়, ঘরের পরিবেশও উন্নত করতে সাহায্য করবে। 

৯) সুগন্ধী মোমবাতি ঘরে পজিটিভ এনার্জি বাড়াতে সাহাব্য করে। ঘরের এক কোণে সুন্দর সুগন্ধি মোমবাতি জ্বালিয়ে রাখুন। দেখুন ম্যাজিকের মতো কাজ হবে। 

১০) ঘরকে একগাদা ফার্নিচারের গুদাম করে তুলবেন না। যতটা সম্ভব ফাঁকা জায়গা রাখুন। 

১১) টবে কিছু গাছ লাঁগান। ইনডোর প্ল্যান্ট ঘরে পজিটিভ এনার্জি আনবে। সঙ্গে পাবেন শুদ্ধ অক্সিজেন । যা ঘরের বাসিন্দাদের মন ভালো করবে। 


বাথরুম . - বাথরুম ব্যবহারের পরে তার দরজাটি বন্ধ রাখা স্বাস্থ্যের কারণেই সঙ্গত, একথা আমরা জানি। কিন্ত ভারতীয় বাস্তশাস্ত্র তার উপরে কিছু বিপদের কথা জানায়। কেবল নিজের বাড়ির বাথরুম নয়, অফিস, এমনকী পাবলিক টয়লেটের ক্ষেত্রেও একই নিয়ম পালনের নির্দেশ দেয় ভারতীয় বাস্তশাস্ত্র। জেনে নিন এই বিষয়ে বাস্ত-মত। 


* বাড়িতে অশাস্তি ক্রমাগত লেগে থাকলে লক্ষ্য রাখুন, বাথরুমের দরজা ঠিকঠাক বন্ধ থাকছে কি না। অফিসের ক্ষেত্রে একাই বিষয় লক্ষ রাখবেন। 

* বাথরুম নেগেটিভ এনার্জিকে দুর করে। সেই কারণে এই ঘর থেকে নেগেটিভ এনার্জি বেরিয়ে বাড়ির অন্যান্য ঘরে ছড়িয়ে পড়তে পারে। সেই কারূণে বাথরুমের দরজা বন্ধ থাকা জরুরি। আর তার ভেন্টিলেটর বা এগজস্ট ফ্যান খোলা ও চালু থাকা প্রয়োজন। 

* বেডরুমের লাগোয়া বাথরুমের দরজা যদি বেশির ভাগ সময়ে খোলা থাকে, তা হলে দাম্পত্য কলহ অনিবার্য বলে জানায় বাস্তবিজ্ঞান। 

* বাড়ি ও অফিসে বাথরুমের দরজা যদি বেশির ভাগ সময়ে খোলা থাকে, তা হলে আর্থিক বিপর্যর অনিবার্য! 

* বেশির ভাগ সময়ে বাথরুম খোলা থাকলে নেগেটিভ এনার্জি আপনার সামাজিক প্রতিপত্তিকে বিঘ্নিত করতে পারে। 

* পরীক্ষা চলাকালে লক্ষ রাখুন বাথরুমের দরজা বন্ধ থাকছে কি না। এতে মারাত্মক প্রভাব পড়তে পারে পরীক্ষার্থীর উপরে।


তথ্য সংগ্রহ -  কোলকাতার আস্ট্রলজি ও বাস্তু সায়েন্স একাডেমীর প্রেসিডেন্ট অধ্যাপক অভিজ্ঞান আচার্যের লেখা থেকে । যে কোনো বাস্তু সমস্যায় প্রফেসরের সাথে যোগাযোগ করুন - 9830142491

বাড়ি থেকে অশুভ শক্তি তাড়াবেন কিভাবে ? বাস্তুশাস্ত্র মতে উপায় জেনে নিন বাড়ি থেকে অশুভ শক্তি তাড়াবেন কিভাবে ? বাস্তুশাস্ত্র মতে উপায় জেনে নিন Reviewed by WisdomApps on এপ্রিল ১৩, ২০২১ Rating: 5

সাপ্তাহিক রাশিফল ১১ই এপ্রিল থেকে ১৭ ই এপ্রিল ২০২১

এপ্রিল ১১, ২০২১

                  


এই সপ্তাহের সব রাশির রাশিফল 

মায়াপুর ঘুরতে যেতে চান ? এই ভিডিওটা অবশ্যই দেখবেন - YouTube

মেষঃ এই সপ্তাহের শুরুতে এই রাশির জাতক/জাতিকা নতুন উদ্দ্যম , উদ্দীপনা অনুভব করবেন। সপ্তাহের প্রথম দিনেই মানসিক প্রফুল্লতা বৃদ্ধি পাবে। ধীরে ধীরে কাজেকর্মে অগ্রগতির সূচনা হবে। সপ্তাহের মধ্যভাগে মানসিক সংশয় , উৎকণ্ঠার সাময়িক অবসান। দাম্পত্য শান্তি। শরীর-স্বাস্থ্যের উন্নতি, মানসিক বল বৃদ্ধি ৷ সপ্তাহের অন্তভাগে ব্যাবসায়িক ঋণ শোধ । আত্মীয়-পরিজন-গুরুজন স্থানীয় ব্যক্তির স্বাস্থ্যোন্নতি । প্রেম-পরিণয়ে অতিরিক্ত সংবেদনশীলতা পরিতাজ্য। আয়-ব্যয়ের মধ্যে সমতা বিধান জরুরি ।

হকার থেকে হলেন পৃথিবীর সেরা বিজ্ঞানী । পড়ে নিন আলভা এডিসন এর আশ্চর্য জীবনী । 

বৃষঃ সপ্তাহের শুরুতে আধ্যাত্মিক বিকাশে মানসিক বলবৃদ্ধি।  ঈশ্বরের কৃপায় দীর্ঘদিনের  শারীরিক ব্যথা-বেদনার আংশিক উপশম। সপ্তাহের মধ্যভাগে ঋণশোধ। অর্থিক অবস্থার কিছুটা উন্নতি। বিদ্যার্থীদের পক্ষে সপ্তাহের চতুর্থ দিন অত্যন্ত ফলপ্রসূ। ব্যবসায়িক ক্ষেত্রে উৎকণ্ঠা বৃদ্ধি পেলেও অতিরিক্ত দুশ্চিন্তার কোনও প্রয়ােজন নাই। সপ্তাহের অন্তভাগে সাংসারিক শান্তি । প্রচেষ্টায় সাফল্য। শরীর-স্বাস্থ্যের বিষয়ে সততা আবশ্যিক। শত্রুদমন। 

 মিথুনঃ  এত দুশ্চিন্তা কেন, ঐশ্বরিক কৃপায় এই সপ্তাহেই আপনার যাবতীয় উৎকণ্ঠা, উদ্বেগ থেকে অনেকটাই মুক্তি লাভ করবেন। সপ্তাহের শুরুতে আয়-উন্নতির যােগ পরিষ্কার। তবে ব্যায়ভাবও রয়েছে। আয়-ব্যয়ের মধ্যে সামঞ্জস্য বিধান অত্যন্ত জরুরি। সপ্তাহের মধ্যভাগেই শারীরিক অবস্থার অনেকটাই উন্নতি । ধর্মাচরণ, আধ্যাত্মিক শক্তির বিকাশে মনােবল বৃদ্ধি। সপ্তাহের অন্তভাগে দাম্পত্য সমস্যা কিছুটা মাথাচাড়া দিতে পারে। দ্রুত সামঞ্জস্য বিধান প্রয়ােজন। কর্মস্থানে নতুন উৎসাহে মানসিক প্রফুল্লতা বৃদ্ধি। 

☞ ঘরোয়া কিছু পদ্ধতি ব্যবহার করেই আটকানো যায় চুলপড়া , খুশকি ও পাকা চুল । জেনে নিন 

কর্কটঃ এই সপ্তাহটা কর্কট রাশির জাতক-জাতিকার পক্ষে শুভাশুভ ফল দেবে। সপ্তাহের শুরুতে প্রতিকূলতা বৃদ্ধি পাবে। অর্থচিন্তায় মানসিক উদ্বেগ বৃদ্ধি। সাংসারিক অশান্তিতে চিত্ত চাঞ্চল্য। সপ্তাহের মধ্যভাগ সন্তানের পক্ষে শুভ। ব্য-বৃদ্ধি যােগ থাকলেও অর্থের সংস্থান হয়ে যাবে। শারীরিক অবস্থার উল্লেখযােগ্য উন্নতি। সপ্তাহের শেষদিক তুলনামূলকভাবে শুভ। ঐশ্বরিক কৃপায় মানসিক পীড়া,উৎকণ্ঠার সাময়িক অবসান । 


কোলকাতার কাছাকাছি ৯ টি অসাধারন পিকনিক স্পটের সন্ধান জেনে নিন 

সিংহঃ  সপ্তাহের শুরুতে আর্থিক অবস্থার দীনতায় মানসিক অস্থিরতা বৃদ্ধি। তবে খুব একটা চিন্তার কারণ নেই। শুভাকাঙ্খী আত্মীয়, বন্ধুবর্গের  সহায়তায় যাবতীয় প্রতিকুলতায় জয়লাভ অবশ্যম্ভাবী। সপ্তাহের মধ্যভাগে গৃহশান্তি বৃদ্ধি। মানসিক প্রফুল্লতা বৃদ্ধি। যােগাচর্চা, সমস্যায় প্রাণায়ামে শারীরিক সুস্থতা বজায় থাকবে।  ঋণশােধ হবে | শক্রদমন হবে। সপ্তাহের অন্তভাগে আর্থিক সমস্যায় সাময়িক সুরাহা। মানসিক সন্তোষ বৃদ্ধি।

☞ বাজারে এসেছে ভেসপা কোম্পানীর ইলেক্ট্রিক স্কুটার , ১ বার চার্জ দিলে চলবে ১০০ কিমি দেখে নিন

কন্যাঃ ব্যবসায়িক মন্দায় সপ্তাহটা শুরু হলেও শারীরিক সুস্থতায় মনােবল বৃদ্ধি। কর্মে নতুন উদ্দীপনা শুভ যােগাযােগ। দাম্পত্য শান্তি। সপ্তাহের মধ্যভাগে ব্যবসায় কিছুটা অগ্রাতি। আর্থিক অবস্থা স্থিতিশীল। চাকুরিক্ষেত্রে অটকে থাকা বেতনে ছাড়পত্র। বিদ্যার্থীদের মনসংযােগে বাধা-বিপত্তি। সপ্তাহের অন্তভাগে উচ্চশিক্ষায় শুভ সংবাদ ও নতুন কর্মোদ্দীপনায় মানসিক বলবৃদ্ধি। সাংসারিক ক্ষেত্রে মনমালিন্যের অবসানে মানসিক সন্তোষ বৃদ্ধি।


তুলাঃ তুলা রাশির জাতক/ জাতিকাদের ক্ষেত্রে এই সপ্তাহটা বিশেষ অর্থবহ। সপ্তাহের প্রথম দিকে সম্পত্তিজনিত বিবাদ পুনরায় মাথাচাড়া দিতে পারে। পুরানাে মামলা-মােকদ্দমা, পুলিসি ঝামেলায় মানসিক অস্থিরতা বন্ধি। সপ্তাহের মধ্যভাগে স্থির সিদ্ধান্তে জটিল সমস্যার আপাত সমাধান। বন্ধুস্থানীয় ব্যক্তির সহযােগিতায় আইনি সমস্যায় আপাত স্বস্তি। সপ্তাহের অন্তভগ তুলনামূলকভাবে বেশ শুভ। অর্থচিন্তার অবসান। শরীর-স্বাস্থ্যের আশ্চর্যজনক উন্নতি। ঈশ্বরের কৃপায় মানসিক অস্থির অবসান। 


☞ জানেন কি দাঁতের পোকা বলে কিছু হয়না ? আর দাঁত ভালো রাখার সিক্রেট জেনে নিন 

বৃশ্চিকঃ সপ্তাহের শুরুতেই  কর্মক্ষেত্রের অস্থিরতায় মানসিক উদ্বেগ বৃদ্ধি । প্রিয়জন/ শুভাকাক্ষী ব্যক্তিবর্গের সহযােগিতায় নতুন কর্মোদ্যোগ শুরু করা অভিপ্রেয়। ঈশ্বরের কৃপায়, সপ্তাহের মধ্যভাগে কর্মস্থানে নতুন আশার আলাে। অর্থনৈতিক ক্ষেত্রে স্থিতাবস্থা। নতুন ব্যবসার সন্ধানে আশার আলাে। শারীরিক অবস্থার তাৎপর্যমণ্ডিত অগ্রগতি। সপ্তাহের অন্তভাগে গুরুজন স্থানীয় ব্যক্তির স্বাস্থ্যোন্নতি। দাম্পত্য সমস্যায় ভুল বােঝাবুঝির অবসান। সন্তানের বিদ্যার্জনে একাগ্রতা বৃদ্ধিতে মানসিক সন্তোষ।




ধনুঃ অর্থোপার্জনে উল্লেখযোগ্য অগ্রগতিতে সপ্তাহের শুরুতে কর্মোদ্দীপনা বৃদ্ধি। প্রেম-পরিণয়ে ভুল বােঝাবুঝির অবসান। ব্যবসাক্ষেত্রে শুভ যােগাযোগ। সপ্তাহের মধ্যভাগে সম্পত্তিজনিত সমস্যায় মানসিক পীড়া। আত্মীয়-বন্ধুর আচরণে মতানৈক্য ৷ আধ্যাত্মিক শক্তির বিকাশে শারীরিক অবস্থার উল্লেখযােগ্য উন্নতি। সপ্তাহের অন্তভাগে সাংসারিক সমস্যায় মানসিক অস্থিরতা বৃদ্ধি। গুরুজন স্থানীয় ব্যক্তির শারীরিক অবস্থার সন্তোষজনক উন্নতি। মানসিক প্রফুল্লতা বৃদ্ধি। 



মকরঃ সপ্তাহের শুরুর দিকে শুভচিন্তার উদ্রেক। অর্থনৈতিক ক্ষেত্র মােটামুটি স্থিতিশীল। দাম্পত্য সন্তোষ বৃদ্ধি। বিদ্যার্জনে বাধা-বিপত্তির অবসান। সপ্তাহের মধ্যভাগে প্রেম-পরিণয়ে। মানসিক প্রফুল্লতা বৃদ্ধি। যাবতীয় মতানৈক্যের অবসান। ঋণশোধ । সপ্তাহের অন্তভাগে কর্মক্ষেত্রে কর্মপ্রতিভার স্বীকৃতি। উর্ধতন কর্তৃপক্ষের অনুগ্রহে কর্মক্ষেত্রে উৎকণ্ঠার অবসান। স্বাস্থ্যের ব্যাপারে সতর্কতা পালন অত্যন্ত জরুরি। ব্যবসায়িক অগ্রগতি।

☞ লোকনাথ বাবার কিছু বানী আপনার জীবনে আশার আলো আনতে পারে । একটু সময় দিয়ে পড়ে নিন । 


কুম্ভঃ  ব্যবসায়িক চিন্তায় নতুন সমাধানে আশার আলাে। সপ্তাহের প্রথমদিকে নতুন কর্ম উদ্দীপনা । বিদ্যাস্থানে বাধা-বিপত্তি। প্রেমজ ব্যথা-বেদনা। |  সপ্তাহের মধ্যভাগে গুপ্ত শত্রুতার যথােপযুক্ত জবাব। গৃহশান্তি বজায় রাথা অত্যন্ত জরুরি। শারীরিক সতর্কতা আবশ্যক। সপ্তাহের অন্তভাগে আর্থিক সমস্যায় কিছুটা সুরাহা। শরীর-স্বাস্থ্যের উন্নতিতে মানসিক উদ্বেগের আপাত অবসান। প্রেম-পরিণয়ে মানসিক উৎফুল্লতা বৃদ্ধি। 

☞ বাজার থেকে পচা টম্যাটোর সস কিনে খাওয়ার থেকে বাড়িতে সস বানানোর এই পদ্ধতি জেনে নিন 

মীনঃ সপ্তাহের শুরুতে শারীরিক অবস্থার উল্লেখযােগ্য অগ্রগতি। অর্থনৈতিক স্থিতাবস্থা জারি। দাম্পত্য-শান্তি বিধান। সপ্তাহের মধ্যভাগে বিকল্প কর্মচিন্তায় নতুন পথের সন্ধান। সংসারে মানসিক দূরত্বের অবসান। বিদ্যাস্থানে উল্লেখযােগ্য উন্নতি।  ব্যয়বৃদ্ধি। সপ্তাহের অন্তভাগে গৃহজ সমস্যা বৃদ্ধি। আত্মীয়-পরিজনের উদাসীন আচরণে মানসিক পীড়া। 


☞ জানেন কি দু'বেলা খাবার জুটতো না হোমিওপ্যাথির জনক হ্যানিম্যানের ? পড়ুন জীবনী 


সাপ্তাহিক রাশিফল ১১ই এপ্রিল থেকে ১৭ ই এপ্রিল ২০২১ সাপ্তাহিক রাশিফল ১১ই এপ্রিল থেকে ১৭ ই এপ্রিল ২০২১ Reviewed by WisdomApps on এপ্রিল ১১, ২০২১ Rating: 5

অনুপ্রেরণাদায়ক অসাধারণ ৮ টি বানী - whatsapp status

এপ্রিল ০৬, ২০২১

 

inspirational_quotes_1


inspirational_quotes_3


inspirational_quotes_8


inspirational_quotes_4





inspirational_quotes_2



inspirational_quotes_5


inspirational_quotes_7

অনুপ্রেরণাদায়ক অসাধারণ ৮ টি বানী - whatsapp status অনুপ্রেরণাদায়ক অসাধারণ ৮ টি বানী - whatsapp status Reviewed by WisdomApps on এপ্রিল ০৬, ২০২১ Rating: 5
Blogger দ্বারা পরিচালিত.