Featured Posts

[Travel][feat1]

পঞ্চতন্ত্রের নীতিকথা - খুব সহজ কথায় জীবনদর্শন ।। Panchatanrta Nitikatha In Bengali

সেপ্টেম্বর ২৭, ২০২০

পঞ্চতন্ত্রের নীতিকথা 


• একজন মানী লােক অপর মানী লােকের অপমান দেখলে খুশি হাতে পারে না । 

• কাজ শুরু করার আগে ভেবে নেওয়া উচিত। শুরু করলে অবশ্যই শেষ করতে হয় । 

•  চোখের সামনে কুকাজ ঘটতে দেখেও যে মধুর বাক্যে ভােলে তার পরিনতি খারাপ হয় । 

• জ্ঞানীর লক্ষণ হল, সে প্রশ্ন করে, মন দিয়ে উত্তর শােনে এবং তা মনে রাখে।

• নিশ্চিত ছেড়ে অনিশ্চিতের পিছনে ছােটা উচিত নয়, তাতে দুটোই হারায়।

• দুষ্ট লােকের স্বভাবই হল, অন্যের অনিষ্ট করা। প্রয়ােজনে তারা নিজের নাকও কেটে ফেলতে রাজি।

• ভালােবাসলে মানুষ গােপন কথা বলে ও জানতে চায়, খায় ও খাওয়ায়, দেয় এবং নেয়।

• সর্বস্ব চলে গেলে যখন প্রাণ পর্যন্ত যাবার উপক্রম তখন শত্রুর কাছে নত হয়ে ধন-প্রাণ রক্ষা করাই বুদ্ধিমানের কাজ।

• যে খাবার খাওয়ার যােগ্য, সহজপাচ্য এবং বলবর্ধক তাহাই খাদ্য।

• সম্পূর্ণ না জেনে, না দেখে কাউকে গুণী বলে ঘােষণা করা বুদ্ধির দুর্বলতা।

• শত্রুকে বিন্দুমাত্র সুযােগ দিতে নেই। কারণ সে তাকেই কাজে লাগিয়ে তােমার বিনাশ ঘটাবে।

• একবার যে বিশ্বাসের অমর্যাদা করে তাকে দ্বিতীয়বার বিশ্বাস করলে পরিণামে আপশােস করতে হয়।

• সুসময়ে বন্ধুর অভাব হয় না। কিন্তু বিপদে যে বন্ধু হয় সে-ই প্রকৃত বন্ধু। প্রকৃত বন্ধুর বিত্ত বাড়লেও চিত্তের বিকার হয় না।

• অসাবধানী, অসৎ, লােভী, অলস, অস্থির, বােকা—এমন শত্রুকে সহজেই শেষ করা যায়।

• যে কাজ ব্যক্তি ও সমাজের পক্ষে মঙ্গলকর তাহাই পুণ্য বা ধর্ম। আর যে কাজ ব্যক্তি কিংবা সমাজের পক্ষে অহিতকর তাহাই পাপ বা অধর্ম।

• কিছু লােক ভালাে কথা বলতে পারেন। কিছু লােক ভালাে কথা মনে আসলেও মুখে তেমন বলতে পারেন না। ব্যতিক্রমী মানুষেরা দুটোতেই সমান দক্ষ।

• সব কাজই ভেবেচিন্তে ও ধীরে-সুস্থে করতে হয়। কেবল ধর্মকাজ করতে হয় যথাসম্ভব দ্রুত।

• বুদ্ধিমান ব্যক্তিই বলবান, বুদ্ধি না থাকলে বিদ্যা ব্যর্থ হয়। যে বুদ্ধিহীন সে দুর্বল। শত্রু ও ব্যাধি শুরুতেই নির্মূল করা উচিত। তা না করলে সে তােমাকে ধ্বংস করবে।

• বিচক্ষণ ব্যক্তিরা একবার দেখেই মানুষ চিনতে পারেন। কেবল কথাই নয়, চোখ-মুখের ভঙ্গি ও ভাব, ইশারা-ইঙ্গিত প্রভৃতি দেখেও মানুষ চেনা যায়।

• যে ব্যক্তি অকারণে প্রশংসা করে, অকারণে হাসে—তার সঙ্গে সাবধানে মিশতে হয়।

• আনন্দে, শশাকে কিংবা ভয়ে—ঘটনাটির গভীরে ঢুকে অনুসন্ধান করতে হয়, তাহলে পরিতাপ করতে হয় না।

• বুদ্ধিমান ব্যক্তি কথা বলেন ভেবেচিন্তে। কিছু কথা চেপে রাখতে হয় স্ত্রীর কাছে, কিছু কথা বন্ধুদের কাছে, কিছু কথা ছেলেমেয়েদের কাছে, কিছু কথা আত্মীয়-স্বজনের কাছে।

• রাজার কাছাকাছি মানুষদের যেমন ভৃত্য, দারােয়ান, চালক— সকলকেই মর্যাদা দিতে হয়।

• উপদেশ দিয়ে স্বভাব বদলানাে অসম্ভব। 

• জাত-শত্রুতা বা স্বাভাবিক শত্রুতা যাবার নয়। যেমন তৃণভােজী ও নখী, জল ও আগুন, ধনী ও দরিদ্র, নামী ও অনামী, সুরূপ ও কুরূপ, অধার্মিক ও ধার্মিক, সুজন ও দুর্জন, কৃপণ ও দাতা, দেবতা ও দৈত্য, মহৎ ও নীচ।

• যারা হয়কে নয় কিংবা নয়কে হয় করে তাদের সর্বদা এড়িয়ে চলা উচিত।

• নিজ বুদ্ধি, যুক্তি, বিচার ক্ষমতা এবং বিশ্বস্ত বন্ধুর পরামর্শ নিয়ে কাজ করলে ঠকার ভয় কম।

• বুদ্ধিমান ব্যক্তি অপর ব্যক্তিসত্তাকে সহজেই চিনে নেয় এবং তাকে বশ করে ফেলে।

• ভালাে বন্ধু, ভালাে চিকিৎসক এবং ভালাে শিক্ষক—পাওয়া বেশ কঠিন।

• যে-কোনাে আলােচনা শুনে প্রত্যেকের মতামত জেনে তারপর নিজের মত প্রকাশ করা উচিত। ঘটনা বা প্রস্তাব শােনা মাত্র নিজের অভিমত প্রকাশ করা বুদ্ধিমানের পরিচয় নয়।

• অজানা, অচেনা মানুষকে আশ্রয় দেবার আগে দুবার ভাবা উচিত।

• মানুষের ভাবনাচিন্তা তার ভাগ্যকে অনেকাংশে নিয়ন্ত্রণ করে। আমরা যা ভাবি তা-ই করি, সেই কর্মফলই আমাদের ভবিষ্যৎ তৈরি করে।

• সমাজের চোখে যা কিছু দোষণীয় তা যদি কারও চরিত্রে বর্তমান থাকে, সে কথা অতি বিশ্বস্তজনকেও বলা উচিত নয়।

পঞ্চতন্ত্রের নীতিকথা - খুব সহজ কথায় জীবনদর্শন ।। Panchatanrta Nitikatha In Bengali পঞ্চতন্ত্রের নীতিকথা - খুব সহজ কথায় জীবনদর্শন ।। Panchatanrta Nitikatha In Bengali Reviewed by WisdomApps on সেপ্টেম্বর ২৭, ২০২০ Rating: 5

লোকনাথ বাবার এই বানী গুলো - একবার পড়ুন আপনার জীবন বদলে যেতে পারে

সেপ্টেম্বর ২৫, ২০২০


• উচ্ছৃঙ্খলা  দারিদ্র্যের বাহন। সাংসারিক জীবনে বা ধর্মীয় জীবনে যখনই অনুভব করবে, মনের মধ্যে উচ্ছৃঙ্খলা বিস্তার লাভ করছে তখনই বুঝবে (চেতনার) দারিদ্র্য তােমাকে গ্রাস করছে।

• যে কাজের দ্বারা তুমি নিজে তাপগ্রস্ত হও, অথবা তােমার সমাজকে তাপগ্রস্ত করাে, তা-ই পাপ কাজ।  সমাজে থেকেই সাধনা করতে হবে। যে অবস্থায় কোনাে পাপ তােমাকে স্পর্শ করতে পারবে না,তখনই হরি তােমাদের কোলে নেবেন, তার আগে নেবেন না।  

• লােকেরা দামড়ি (অর্থ), চামড়ি (দেহভােগ) পেট (আহার) এই তিন বিষয় নিয়ে সর্বদা ব্যস্ত। এই তিনের আসক্তি যার যতটুকু কমেছে, তার ততটুকু ভক্তির উদয় হয়েছে। এই আসক্তি একেবারে নির্মূল না হলে প্রকৃত ভক্তির উদয় হতে পারে না।

• গভীর রাতে নির্জন স্থানে “পূর্ণভাবে নিশ্চিত" হতে চেষ্টা করে দেখাে, তােমার মন কোনােদিকে যায়। তােমার মন পুনঃ পুনঃ নিবারণ করা সত্ত্বেও যেই দিকে যাবে তা-ই তােমার কর্ম। সেই সময় চিন্তা করে দেখাে, তুমি সমস্ত দিন যে সব কাজ করেছে তা সত্ত্বপ্রধান, কি রজঃপ্রধান, কি তমঃপ্রধান। তােমার অধিকাংশ কাজ যে গুণের তুমি সেই গুণবিশিষ্ট ।  “পূর্ণভাবে নিশ্চিন্ত" হতে চেষ্টা করার উদ্দেশ্য কী? যেদিন পূর্ণভাবে নিশ্চিন্ত হতে পারবে, সেদিনই এর উত্তর পাবে। বলে দেওয়ার প্রয়ােজন নেই, বলে দিলে তা কল্পনাতে পরিণত হয়, প্রকৃত তত্ত্ব অনুভূত হয় না।

• ভােগ ভিন্ন প্রারব্ধকর্ম ক্ষয় হয় না।

• শাস্ত্রজ্ঞান শিক্ষা দিতে পারে, কিন্তু শাস্ত্র পাঠে “বিজ্ঞান” লাভ হয় না ।  অর্থাৎ যার প্রত্যক্ষ অনুভূতি হয়েছে তিনি-ভিন্ন শাস্ত্রের প্রকৃত অর্থ ও মর্ম অন্যে বুঝতে পারে না। নিজে যা অনুভব করতে পারােনি তা কাউকে বলাে না।

• সূর্যোদয়ে যেমন অন্ধকার থাকে না, গৃহস্থ জাগ্রত হলে যেমন চোর পলায়ন করে, তেমনি পুনঃ পুনঃ ধর্মালােচনা করলে নিকৃষ্ট বৃত্তির কার্যসমূহ দিন দিন পলায়ন করবে, দেহ একটি দেবমন্দির হবে, ব্রহ্মশক্তি তােমার হৃদয়কে অধিকার করবে এবং তুমি (ব্রহ্মজ্ঞানে) ব্রাহ্মণত্ব লাভ করবে।

• বাক্যবান, বিত্তবিচ্ছেদ বান, বন্ধুবিচ্ছেদ বান, এই তিনটি বান যে সহ্য করতে পারে, সে মৃত্যুকে জয় করতে পারে। 

• বাসনা ত্যাগ হলেই জীব অমরত্ব (বােধ) প্রাপ্ত হয়, (দেহ) ঘটের নাশই মৃত্যু। যাঁর দেহে আত্মবুদ্ধি নেই, তার আবার মৃত্যু হবে কী ভাবে? (অহং) অভিমান না থাকাতে কোনাে কাজই তিনি তার নিজের কর্তৃত্বে হয়েছে বলে বােধ করেন না। এই অবস্থায় তিনি সংসারের সব কাজই করতে থাকেন, অথচ কিছুই করেন না। জীবন যখনই বাসনাশূন্য হয়, তখনই তাঁর “জীবত্ব” শেষ হয়ে যায় এবং তিনি “শিবত্ব" লাভ করেন অর্থাৎ তার জীবভাব ব্রহ্মসত্তায় বিলীন হয়ে যায়।

• সাময়িক ভ্রমবশতঃ তুমি মনে করতে পারাে, তােমার বৈরাগ্য জন্মেছে, কিন্তু ভেতরে যে তােমার অন্ধতা প্রযুক্ত বাসনা আছে, তুমি তা দেখতে পাও না। বাসনা থাকতে (গৃহ ছেড়ে) গাছতলায় গেলেও সন্ন্যাস হবে না। সন্ন্যাস মনের অবস্থা। তা যার হয়নি তার পাহাড়ে গেলেও হবে না। যার হওয়ার তার:...সব জায়গাতেই হয়েছে, হবে। তার স্থান পরিবর্তনের প্রয়ােজন নেই।..সংসার অতিক্রম করতে হবে বনে যেতে হয় না। “কার্য পরিত্যাগ” ও “কার্য করা” উভয়কেই যে একই অবস্থা মনে করে সে-ই সন্ন্যাসী (আত্মজ্ঞানী)।

• জ্ঞানের সাথে ভক্তির যােগ করে দিয়ে তােমরা মনিকাঞ্চন হও। শ্রদ্ধা হবে তােমাদের আশ্রয়, তােমাদের বান্ধব ; শ্রদ্ধাই হবে তােমাদের পাথেয়।

“ রনে বনে জলে জঙ্গলে যখন বিপদে পরিবে,
আমাকে স্বরন করিও আমিই রক্ষা করিব ”








Tags: quotes of Lokenath baba in Bengali , Bani of Lokenath baba , Loknath babar bani , লোকনাথ বাবার বানী , বাংলা বানী , লোকনাথ বাবা , রনে বনে জলে জঙ্গলে বানী 

লোকনাথ বাবার এই বানী গুলো - একবার পড়ুন আপনার জীবন বদলে যেতে পারে লোকনাথ বাবার এই বানী গুলো - একবার পড়ুন আপনার জীবন বদলে যেতে পারে Reviewed by WisdomApps on সেপ্টেম্বর ২৫, ২০২০ Rating: 5

বর্তমান যুগের উপযোগী গান্ধীজীর কয়েকটি বানী ও ছবি - Quotes by Mahatma Gandhi in Bengali

সেপ্টেম্বর ২৪, ২০২০


বর্তমান যুগের উপযোগী গান্ধীজীর এই বানীগুলি সবার জানা প্রয়োজন  - Quotes by Mahatma Gandhi in Bengali 


• অহিংসা পরম ধর্ম, আমি সর্বক্ষেত্রে হিংসাকে নিন্দা করি। ...আমরা জীবনই আমার বাণী।

• হিংসার দ্বারা হয়তাে তাৎক্ষণিক ফল লাভ করা যায়, কিন্তু শেষ পর্যন্ত হিংসা ক্রিয়াশীল থাকে না। 

• হে আমার ভারতবাসী, শান্ত সংযতভাবে ব্রিটিশরাজ শক্তির বিরুদ্ধে রুখে দাঁড়াও। আসমুদ্র হিমাচলে যদি আমার এই কণ্ঠস্বর পৌঁছে যায়, তাহলে আমি বারবার বলব, শুধুমাত্র অহিংসা মন্ত্রে উজ্জীবিত হয়ে লড়াই করার শক্তি অর্জন করাে।

• অহিংসার দ্বারা যেকোনাে মানুষের মন জয় করা সম্ভব। পরম হিংস্র মানুষ অহিংসা মন্ত্রের কাছে পরাস্ত হতে বাধ্য হয়। 

• হরিজনদের কাছে টেনে নিতে হবে, অস্পৃশ্যদের দূরে রাখা চলবে না, অস্পৃশ্যতাই সমাজের সব থেকে বড় শত্রু। এই শত্রুকে জয় করতে হবে। সততা সব থেকে বড় ধর্ম। সৎ মানুষ কখনাে কোনাে বিপদের মুখে পড়ে না। সততার বিকল্প কোনাে কিছু হতে পারে না। 



• মনে রেখাে, ঈশ্বর নির্দিষ্ট কর্ম সম্পাদনের জন্য তুমি ভারতবর্ষে এসেছ। এই কর্ম সম্পাদন না করা পর্যন্ত তােমার মুক্তি নেই। তাই জীবনের প্রতিটি মুহূর্তে তুমি এই কথা মনে রেখে পথ চলার চেষ্টা করবে। জীবনে কখনাে কোথাও কোনাে মিথ্যে কথা বলবে না। মিথ্যে আচরণকে ঘৃণা করবে। মিথ্যা ভাষণকে সর্বতােভাবে দূরে সরিয়ে রাখবে। মনে রেখাে, মিথ্যার দ্বারা হয়তাে তাৎক্ষণিক জয় লাভ করা সম্ভব হয় কিন্তু শেষ পর্যন্ত সত্য জয়যুক্ত হয়। মানব জাতির ইতিহাসে বহুবার নরঘাতী, স্বৈরাচারী এসেছে এবং যতদিন তারা ক্ষমতায় আসীন ছিল, ততদিন তাদেরই জয় প্রতীয়মান।

• স্বাধীন ভারতের প্রধান কর্তব্য হওয়া উচিত, বিভাজন ভিন্ন সমাজ।স্থাপন করা। এই সমাজে উচ্চ নীচের মধ্যে কোনাে তফাৎ থাকবে।ভগবৎ-ইচ্ছায় প্রকৃতিই আমাদের সব কর্ম করে চলেছে এবং সে।সব কর্ম নির্ধারিত রয়েছে আমাদের স্বভাব অনুযায়ী। কর্ম সমর্পণের।এই শ্রেষ্ঠ উপলব্ধিটির পরই প্রত্যক্ষবােধে সব ভগবৎ-কর্ম হয়ে যায়,হয়েছে, কিন্তু সব সময়েই তাদের পতন হয়েছে সর্বদা।না। সেই সমাজই হবে এক আদর্শ সমাজ।



• যথেষ্ট শৃঙ্খলা ও সংযম ছাড়া স্বরাজ আন্দোলন করা পৰ্বত-প্রমাণ দুরূহ। বর্তমানে এর দুর্গন্ধ আমার নাকে লেগে রয়েছে।

• সত্য এবং অহিংসা আমার দুই ঈশ্বর।

• করবাে, না হয় মরবাে। 

• সেই রাষ্ট্র ভালাে যা কম শাসন করে।





• যাঁরা দুর্বল, তাঁরা কখনও ক্ষমা করতে পারেন না। কিন্তু যাঁরা মানসিক ভাবে দৃঢ়চেতা, তাঁরাই খোলা মনে অন্যকে ক্ষমা করে দিতে পারেন। তাই দুর্বল নয়, সবল হওয়ার চেষ্টায় নিজেকে নিয়োজিত করুন।

 

 একজন মানুষের চরিত্র এবং জীবন কতটা সুন্দর হবে, তা নির্ভর করে তাঁর মানসিকতার উপরে। তাই কোনও মানুষকে যদি ভিতর থেকে চিনতে চান, তাহলে তাঁর মানসিকতা কেমন, তা জানার চেষ্টা করুন।

 

 আপনার ভাবনার সঙ্গে যদি আপনার কাজ এবং মতামতের সাদৃশ্য থাকে, তাহলে চরম সুখের সন্ধান পাবেনই।

 

 সমাজে ইতিবাচক পরিবর্তন আনার লক্ষ্যে লড়ার শুরু করার আগে, নিজেকে পরিবর্তন করাটা জরুরি।

 

 মানুষের প্রতি বিশ্বাস হারালে চলবে না। কারণ, মানবতা হল সাগরের মতো। সাগরের জলে ময়লা মিশে গেলে সমগ্র সাগরের জল কি নোংরা হয়ে যায়? তা যেমন হয় না, তেমনই কিছু খারাপ মানুষের জন্য সমগ্র মানবজাতিকে খারাপ ভাবলে ভুল হবে।

 

 আপনি আদৌ শক্তিশালী কিনা, তা কিন্তু দৈহিক ক্ষমতার উপর নির্ভর করে না। বরং আপনি মানসিক ভাবে কতটা শক্তিশালী, তার উপর সবটা নির্ভর করে থাকে। তাই মানসিকভাবে নিজেকে শক্তিশালী করে তুলুন।





Keywords: Quotes by Gandhiji in Bengali, Gandhiji Quotes in Bangla, Mahatma Gandhi popular Quotes, Picture Quotes by Gandhiji in Bengali, Mahatma Gandhi Quotes in Bangla , Picture quotes of Mahatama Gandhi , Gandhi Ji Bani 


বর্তমান যুগের উপযোগী গান্ধীজীর কয়েকটি বানী ও ছবি - Quotes by Mahatma Gandhi in Bengali বর্তমান যুগের উপযোগী গান্ধীজীর কয়েকটি বানী ও ছবি - Quotes by Mahatma Gandhi in Bengali Reviewed by WisdomApps on সেপ্টেম্বর ২৪, ২০২০ Rating: 5

সুস্বাদু ডিমের পায়েস , সেমাইয়ের ও ছানার পায়েসের 3 টি দুর্দান্ত রেসিপি

সেপ্টেম্বর ১৪, ২০২০


ছানার পায়েস

উপকরণঃ বাড়িতে কাটা শিলে চাপা দিয়ে জল ঝরানাে শক্ত ছানা ২৫০ গ্রাম, দুধ ২ লিটার বা ৪ বােতল, চিনি ৪০০ গ্রাম, পেস্তা ১০ গ্রাম, বাদাম ১০ গ্রাম, চিরঞ্জি (নিউ মার্কেটে শুকনাে ফলের দোকানে পাওয়া যায়) ১০ গ্রাম।

প্রস্তুত প্রণালীঃ ছানা বটি দিয়ে বা ছুরি দিয়ে লম্বা সর, সর, করে কুচিয়ে নিতে হবে। দুধ জাল দিয়ে ঘন করে এক লিটারে পরিণত করতে হবে। চিনি দিতে হবে এবং চিনি গলে গেলে ছানার কুচি দিতে হবে। দশ মিনিট ফুটলে নামিয়ে নিতে হবে। পেস্তা বাদাম, চিরঞ্জি আগের রাত থেকে ভিজিয়ে রাখতে হবে ও কালে পেস্তা বাদাম খােসা ছাড়িয়ে সর সর করে কুচিয়ে নিতে হবে। এবং চিরঞ্জি আয় রাখতে হবে। একটা সুদশ্য বাটিতে ছানার পায়েস ঢেলে রাখতে হবে এবং ওপর থেকে পেস্তা বাদাম ছড়িয়ে সাজিয়ে দিতে হবে।




সেমাইয়ের পায়েস

উপকরণ : সেমাই ৫০ গ্রাম, দুধ ১ লিটার, চিনি ৩০০ গ্রাম, কিসমিস ১০ গ্রাম, ছােট এলাচের গড়াে সিকি চা-চামচ, ভাজবার জন্যে ঘি। 

প্রস্তুত প্রণালীঃ কিসমিস বেছে ধুয়ে রাখতে হবে। সেমাই ঘিয়ে লাল করে ভেজে নিতে হবে। দুধ ঘন করে আধ লিটার করে নিতে হবে। চিনি মেশাতে হবে ও চিনি গলে গেলে ভাজা সেমাই মেশাতে হবে।পাঁচ মিনিট ফটে সেমাই নরম হয়ে এলে নামিয়ে নিয়ে কিসমিস মেশাতে 




ডিমের পায়েস

উপকরণ : দুধ ১ লিটার, মুরগির ডিম ৩টি, চিনি ৩০০ গ্রাম, কমলা লেব, ৪টি, কমলা রঙ সামান্য, অরেঞ্জ বা ভ্যানিলা এসেন্স সিকি চা-চামচ, কিসমিস ২৫ গ্রাম।

প্রস্তুত প্রণালী: মুরগির ডিম ভাল করে ফেটিয়ে ঠাণ্ডা দুধে মিশিয়ে দিতে হবে। চিনি মেশাতে হবে। বির কোয়া থেকে শাস ছাড়িয়ে নিতে হবে। কিসমিস ধুয়ে বেছে রাখতে হবে। একটি বড় ডেকচিতে জল বসিয়ে তার ওপরে একটি সসপ্যানে দুধ, ডিম ও চিনির মিশ্রণ ধরে রেখে জাল দিতে হবে। এক হাতে সসপ্যানের হাতল ধরে থাকতে হবে এবং আরেক হাতে হাতা দিয়ে মিশ্রণটি ঘন না হওয়া পর্যন্ত নাড়তে হবে । মিশ্রণটি যখন হাতার পিঠে ঘন হয়ে লেগে যাবে তখন নামিয়ে নিতে হবে । কিসমিস , রঙ ও এসেন্স দিতে হবে । ঠান্ডা হয়ে গেলে কমলা লেবুর শাঁস মেশাতে হবে । 


সুস্বাদু ডিমের পায়েস , সেমাইয়ের ও ছানার পায়েসের 3 টি দুর্দান্ত রেসিপি সুস্বাদু ডিমের পায়েস , সেমাইয়ের ও ছানার পায়েসের 3 টি দুর্দান্ত রেসিপি Reviewed by WisdomApps on সেপ্টেম্বর ১৪, ২০২০ Rating: 5

এই সপ্তাহের সব রাশির রাশিফল ( ১৩ সেপ্টেম্বর থেকে ১৯ শে সেপ্টেম্বর ২০২০ )

সেপ্টেম্বর ১৩, ২০২০

 


এই সপ্তাহের সব রাশির রাশিফল 


মেষঃ অর্থনৈতিক ক্ষেত্রে এই সপ্তাহের প্রথমদিক লাভের যোগ সুস্পষ্ট। স্বজন বিরোধের যথাবিহিত মোকাবিলায় সাফল্য। প্রম-পরিণয়ে আবেগের বশবর্তী হয়ে কোনও সিদ্ধান্ত নেওয়া উচিত হবে না। সপ্তাহের মধ্যভাগে দাম্পত্যকলহ মাথা চাড়া দিয়ে উঠতে পারে। আলাপ-আলোচনার মাধ্যমে উক্ত সমস্যার সমাধান করে নেওয়াই সমীচীন। সপ্তাহের অন্তভাগে বিদ্যার্জনে সাফল্য। বৃত্তিমূলক প্রশিক্ষণে কৃতিত্বের পরিচয়। শরীর-স্বাস্থ্যের উল্লেখযোগ্য উন্নতিতে মানসিক বল বৃদ্ধি। ব্যাবসায়িক ক্ষেত্রে প্রত্যাশিত আয়-উন্নতি না হওয়ার হতাশা।


বৃষঃ এই সপ্তাহের গোড়ার দিকে এই রাশির জাতক/জাতিকারা কর্মক্ষেত্রে যথেষ্ট কৃতিত্বের পরিচয় দিতে পারেন। ব্যাবসায়িক ক্ষেত্রে বুঝেশুনে লগ্নি করা প্রয়োজন। সপ্তাহের মধ্যভাগে সন্তানের বিদ্যাশিক্ষার অগ্রগতি বিষয়ে সুচিন্তিত পরিকল্পনা করে নেওয়া প্রয়োজন। সম্পত্তি ক্রয়-বিক্রয়ে স্বজন বিরোধের আশঙ্কা থাকছে। বুঝে শুনে এগোনো প্রয়োজন। সপ্তাহের অন্তভাগে প্রিয়জনের শরীর-স্বাস্থ্যের উন্নতি। বিবাহযোগ্য সন্তানের বিবাহ-পরিকল্পনার আগে বেশী উদ্যোগী হওয়া প্রয়োজন। শিল্পী, কলাকুশলীদের পক্ষে সপ্তাহের শেষ ভাগটা বেশ আশাপ্রদ।


মিথুনঃ সপ্তাহের গোড়ার দিকে ব্যাবসায়িক লাভের যোগ থাকলেও ঋন বৃদ্ধি যোগাযোগ সুস্পষ্ট। পাওনাদারের তাগাদায় সামাজিক বিড়ম্বনা। সপ্তাহের মধ্যভাগে উচ্চতর বিদ্যার্জনে সাফল্য। স্বনিযুক্তি প্রকল্পে যুক্ত ব্যাক্তিবর্গদের আয়-উপার্জন বৃদ্ধি। স্বামী-স্ত্রীর সম্পর্কের উন্নতি। সপ্তাহের অন্তভাগে সম্পত্তি সংস্কার সংক্রান্ত বিষয়ে স্বজন বিরোধের আশঙ্কা। ঈর্ষাকাতর সহকর্মীদের ষড়যন্ত্র বিফল করে দিয়ে কর্মক্ষেত্রে পদোন্নতি। চাকুরির প্রয়োজনে দূরযাত্রার যোগ দেখা যাচ্ছে- যদিও তা এড়িয়ে যেতে পারলে ভালো হয়।


কর্কটঃ আলোচ্য সপ্তাহের প্রথমদিকে সন্তানের বিদ্যা শিক্ষায় মনোযোগ বৃদ্ধিতে হতাশার অবসান। বিকল্প জীবিকা/কর্মানুসন্ধানে সাফল্যতে মানসিক বল বৃদ্ধি। সপ্তাহের মধ্যভাগের ব্যাবসায়িক ক্ষেত্রে অতিরিক্ত লগ্নি সত্ত্বেও আশানুরূপ অগ্রগতি না হওয়ায় নৈরাশ্য। উচ্চতর বিদ্যার্জন ও গবেষণার সুত্রে দুরযাত্রার যোগাযোগ দেখা যাচ্ছে। সপ্তাহের অন্তভাগে প্রেম-পরিণয়ে আশাভঙ্গ। পারিবারিক ক্ষেত্রে গৃহ সংস্কার বিষয়ে স্বজন বিরোধের আশঙ্কা।


সিংহঃ এই সপ্তাহের প্রথমভাগটা চাকুরীজীবীদের পক্ষে যথেষ্ট চাপের। উর্ধতন পরিশ্রম অনুযায়ী বেতন না মেলায় নৈরাশ্য বৃদ্ধি। সপ্তাহের মধ্যভাগে ব্যাবসায়িক ক্ষেত্রে অগ্রগতি। গুরুজন স্থানীয় ব্যক্তির শরীর-স্বাস্থ্য বিষয়ে সতর্কতা প্রয়োজন। সম্পত্তি সংস্কার, ক্রয়-বিক্রয় আইনি পরামর্শ নেওয়া জরুরি। সপ্তাহের অন্তভাগে দাম্পত্যজীবনে ভুল বোঝাবুঝির অবসান। প্রেম-পরিণয়ে বিতর্কিত বিষয়ে মন্তব্য না করাই শ্রেয়। শেয়ার, ফটকায় অপ্রত্যাশিত লাভে মানসিক প্রফুল্লতা।


কন্যাঃ এই সপ্তাহের প্রথমদিকে ব্যাবসায়িক ক্ষেত্রে আয়-উপার্জন বৃদ্ধির যোগ সুস্পষ্ট। কর্মক্ষেত্রে অস্থিরতা বজায় থাকলেও বিকল্প জীবিকা/কর্মানুসন্ধানে সাফল্য। সপ্তাহের মধ্যভাগে দাম্পত্য-কলহে তৃতীয় পক্ষের ইন্ধনে রাশ টানা প্রয়োজন। পারিবারিক ক্ষেত্রে আপস-মীমাংসার দ্বারা যাবতীয় ভুল বোঝাবুঝি মনোমালিন্যের অবসান। সপ্তাহের অন্তভাগে সন্তানের বিদ্যা শিক্ষায় ক্রমিক অবনতিতে হতাশা বৃদ্ধি। শিল্পী, কলাকুশলীদের পক্ষে এই সপ্তাহের শেষভাগটা যথেষ্ট তাৎপর্যমন্ডিত হয়ে উঠতে পারে। 


তুলাঃ এই রাশির জাতক/জাতিকাদের ক্ষেত্রে সপ্তাহের প্রথম দিকটা বেশ আশাপ্রদ। বিকল্প জীবিকা/কর্মানুসন্ধানে আটকে থাকা অর্থ আদায়। সপ্তাহের মধ্যভাগে প্রেম-পরিণয়ে বাদানুবাদ। দাম্পত্যজীবনে বিতর্কিত বিষয়ে মন্তব্য করা থেকে বিরত থাকা প্রয়োজন। সপ্তাহের অন্তভাগে ঈশ্বরের কৃপায় শরীর-স্বাস্থ্যের উল্লেখযোগ্য উন্নতিতে মানসিক বল বৃদ্ধি। প্রবাসী প্রিয়জনের বিষয়ে উদ্বেগ বৃদ্ধি অমূলক। ব্যবসাক্ষেত্রে বহুদিনের পরিশ্রমে সফলতা। সন্তানের উচ্চবিদ্যার্জনে সঠিক পরিকল্পনা সিদ্ধান্ত নিরূপণে উদ্যোগী হওয়া প্রয়োজন। 


বৃশ্চিকঃ এই সপ্তাহের প্রথমদিকে ব্যবসায়িকক্ষেত্রে আয়-উপার্জন বৃদ্ধির যোগ দেখা যাচ্ছে। কর্মক্ষেত্রে বহুমুখী প্রতিভার স্বীকৃতি মিলতে পারে। সপ্তাহের মধ্যভাগে গুরুজনস্থানীয় ব্যক্তির শরীর-স্বাস্থ্য নিয়ে উদ্বেগ বৃদ্ধি। দাম্পত্যজীবনে কথা কাটাকাটি ও মতবিরোধ/ মনোমালিন্য। সপ্তাহের অন্তভাগে বিবাহযোগ্য সন্তানের বিবায় পরিকল্পনায় উদ্যোগ বৃদ্ধি। বৃত্তিমুলক প্রশিক্ষণ স্বনিযুক্তি প্রকল্পে যুক্ত ব্যক্তিবর্গের আয় উপার্জন বৃদ্ধি। বলবান শত্রুর ক্রিয়াকলাপ বিষয়ে সজাগ-সতর্ক দৃষ্টি রাখা প্রয়োজন। 


ধনুঃ সপ্তাহের প্রথমভাগে গৃহসংস্কার রক্ষণাবেক্ষণের পরিকল্পনায় উদ্যোগ বৃদ্ধি। গুরুজনস্থানীয় শরীর-স্বাস্থ্যের অভূতপূর্ব উন্নতিতে মানসিকভার লাঘব। সন্তানের বিদ্যাশিক্ষায় অমনোযোগ বৃদ্ধি। সপ্তাহের মধ্যভাগে স্বামী-স্ত্রীর যৌথ প্রচেষ্টায় পারিবারিক বিতর্ক-বিবাদের অবসান, কোনও সহৃদয় বন্ধু/আত্মীয়ের পরামর্শ/ সহায়তায় বিকল্প জীবিকা/ কর্মানুসন্ধানে সফলতা প্রাপ্তি। সপ্তাহের অন্তভাগে পেটের সমস্যা, বাতজ বেদনা, শিরঃপীড়ায় নাজেহাল হতে পারেন। যৌথ প্রাণায়ামে অবসাদ মুক্তি।


মকরঃ এই সপ্তাহের প্রথমভাগে বিবাহযোগ্য সন্তানের বিবাহ-পরিকল্পনার উদ্যোগ সফল হতে পারে। আয়-উপার্জন বৃদ্ধির যোগও বেশ সুস্পষ্ট। সপ্তাহের মধ্যভাগে দাম্পত্যজীবনে বিতর্ক-বিবাদ পরিহার করা প্রয়োজন। প্রেম-পরিণয়ে নৈরাশ্য। সপ্তাহের অন্তভাগে কর্মক্ষেত্রে অচলাবস্থার অবসান। আটকে থাকা অর্থ আদায়। গৃহ ক্রয়-বিক্রয়, রক্ষণাবেক্ষণ বিষয়ে গুরুজনের/ প্রিয়জনের সঙ্গে মতানৈক্য। শিল্পী, কলাকুশলী ব্যক্তিদের পক্ষে সপ্তাহটা বেশ আশাব্যঞ্জক।


কুম্ভঃ এই রাশির জাতক/জাতিকারা আলোচ্য সপ্তাহের প্রথমদিকে বেশকিছু শুভ খবর পেতে পারেন। কর্মক্ষেত্রে অচলাবস্থার অবসানে নৈরাশ্য মুক্তি। সপ্তাহের মধ্যভাগে সন্তানের বিদ্যাশিক্ষায় সাফল্যতে মানসিক প্রফুল্লতা বৃদ্ধি। স্বামী-স্ত্রীর যৌথ প্রচেষ্টায় পারিবারিক কোন্দলের সাময়িক অবসান। সপ্তাহের সন্তভাগে আধ্যাত্মিক কৃপায় শরীর-স্বাস্থ্যের উল্লেখযোগ্য অগ্রগতি। প্রেম-পরিণয়ে সফলতা প্রাপ্তিতে সামাজিক ভার লাঘব।


মীনঃ আলোচ্য সপ্তাহের প্রথমদিকটা সম্পত্তি সংস্কার রক্ষণাবেক্ষণের বিষয়ে উদ্যোগী হওয়া প্রয়োজন। কর্মক্ষেত্রে বহুদিন ধরে চলতে থাকা অচলাবস্থার বিষয়ে স্থির সিদ্ধান্তে আশা প্রয়োজন। সপ্তাহের মধ্যভাগে ব্যাবসায়িক ক্ষেত্রে আয় বৃদ্ধি যোগ সুস্পষ্ট। সন্তানের বিদ্যাশিক্ষায় মনোযোগহীতায় হতাশা সপ্তাহের অন্তভাগে আলাপ-আলোচনার মাধ্যমে পারিবারিক সমস্যার সমাধান। প্রেম-পরিণয়ে মনোমালিন্য বৃদ্ধি। 





    

এই সপ্তাহের সব রাশির রাশিফল ( ১৩ সেপ্টেম্বর থেকে ১৯ শে সেপ্টেম্বর ২০২০ ) এই সপ্তাহের সব রাশির রাশিফল ( ১৩ সেপ্টেম্বর থেকে ১৯ শে সেপ্টেম্বর ২০২০ ) Reviewed by WisdomApps on সেপ্টেম্বর ১৩, ২০২০ Rating: 5

অম্লান দত্তের বানী - quotes by Amlan Dutta

সেপ্টেম্বর ১১, ২০২০

 অম্লান দত্তের বানী 



*সুন্দরকে রক্ষা করবার জন্যও নিতান্ত সৌন্দর্যপ্রিয়তাকে অতিক্রম করেতে হয়। এখানে ভােগটা প্রধান কথা নয়, পুজোটাই প্রধান। এ যেন আরতির ধোঁয়ার ভিতর দিয়ে দেবীর মুখ দর্শনের মতাে।

* সন্তানকে জননী ভালােবাসেন বলেই সন্তান পালনের ক্লেশও রমণীয়। এখানে সুখ-অসুখের হিসাবটা আগে নয়, ভালােবাসাটাই আগে। এই অযৌক্তিক ভালােবাসার প্রভাবেই সাধারণ দৃষ্টিতে যা ক্লেশ তা সুখদায়ক হয়ে ওঠে।

* বিনয় যদি বিদ্যার ভূষণ হয় তবে তার মূলে সত্যের প্রতি একটা সদাগ্রহ থাকে। বিজ্ঞানের সত্য সর্বক্ষণই নতুন তথ্য ও যুক্তির আলােতে নিজেকে সংশােধন করতে আগ্রহী। এই সত্যাগ্রহই বিদ্যার ক্ষেত্রে বিনয়ের রূপে দেখা দেয়।

* মানুষের চেতনার মৃত্তিকাকে মৃত্যু নিয়ত উর্বরা করে চলেছে। মৃত্যু করুণার উৎস। আবার মৃত্যুই পারে মানুষকে দিতে মৃত্যুঞ্জয়ী সাহস। এই করুণা ও ভয়হীনতার মিশ্র উপাদানে সৃষ্টি হয় মানুষের মহত্ত্ব।

* মানুষের সঙ্গে মানুষের তিন প্রকার সম্পর্ক লক্ষ করা যায়। প্রথমটির নাম দেওয়া যেতে পারে আত্মীয় সম্পর্ক, দ্বিতীয় ব্যবহারিক বা ব্যবসায়িক সম্পর্ক, তৃতীয় আগ্রাসী সম্পর্ক।

* যন্ত্র পাবার ইচ্ছেটাকেই প্রবল করে তােলে, দিতে শেখায় না। যন্ত্র মানুষকে করে তােলে ভােগবাদী, ত্যাগী করে না। যদিও যন্ত্র মানুষেরই সৃষ্টি তবু যান্ত্রিকতার গুণে অধিকাংশ মানুষ স্রষ্টার ভূমিকা থেকে নির্বাসিত।

* মৃত্যুর একটি দৈবীশক্তি আছে। সে সংসার থেকে উত্থিত হয়েও সংসারের সঙ্গে এমন দূরত্ব সৃষ্টি করে দাঁড়ায় যে, আমরা তখন ক্ষুদ্র কলহ স্বার্থবুদ্ধির তুচ্ছতা থেকৈ মুক্ত হয়ে ব্যক্তিকে যেন একটি চিরন্তন রূপে দেখতে পাই।

* মৃত্যু সামান্য জীবনের দুয়ার ভেঙ্গে আমাদের এক জ্যোতির্ময়তার প্রান্তে এনে দাঁড় করিয়ে দেয়।

* এই যে আমরা সত্যের আলােককে হৃদয়ে গ্রহণ করতে পারছি না, এ জন্য একটা অভাববােধ অন্তরে জাগিয়ে রাখা দরকার।

* জীবনের এই চলমান গাড়িটি স্টেশনে কিছু যাত্রীকে নামিয়ে দেয়, কিছু যাত্রী তুলে নেয়। যদি কাউকেই নামানাে না যেত তবে কয়েক স্টেশন পরেই গাড়ির ভিতর ভিড়ের চাপ এমন অসহ্য হত যে নতুন যাত্রীকে তােলা একেবারে অসম্ভব হত। মৃত্যুর অবিরাম ধারাই নবজন্মের জন্য অবিরত স্থান সৃষ্টি করে দেয়। অর্থাৎ ব্যক্তিগত মৃত্যু যদিও আমাদের দুঃখে কাতর করে তবু এই মহাবিশ্বের দিকে দৃষ্টি প্রসারিত করে যখন আমরা তাকাই, তখন দেখি যে, বহু দুর্যোগের ভিতর দিয়ে মহামরণের সযত্ন হস্ত মহাজীবনকে এগিয়ে নিয়ে চলেছে।

* শিক্ষা ও রাজনীতির প্রকৃতি ভিন্ন। দলীয় রাজনীতির প্রয়ােজন শিক্ষাকে নিয়ন্ত্রণ করতে গেলে শিক্ষার চরিত্র নষ্ট হয়।

* অবিভাজ্য সংস্কৃতি অহমিকার পতাকা তুলে হিংসা এবং অসহিষ্ণুতার আঘাতে সংস্কৃতিকে খণ্ড খণ্ড করাটা শােচনীয় হঠকারিতা।

* নিয়মই ন্যায়ের ভিত্তি। শুধু প্রেমের ওপর ন্যায়কে প্রতিষ্ঠিত করা যায় না, কারণ প্রেম চঞ্চল, প্রেম নিরপেক্ষ নয়, প্রেম বিচারে অপটু।

* ধর্মরােষ অথবা আদর্শবাদী উৎসাহের আতিশয্য নিয়ে সুস্থ সমাজ চলকরে, যুক্তিবিচারের সাহায্যে, এটাই সমাজজীবনের পক্ষে অধিক নিরাপদ। বিচার-বিবেচনা করে নিজ নিজ স্বার্থসিদ্ধির জন্য মানুষ মানুষের সঙ্গে সহযােগিতার সম্পর্কে আবদ্ধ হবে, এতেই সকলের মঙ্গল। 

* ব্যক্তিস্বার্থকে উপেক্ষা করে নয়; বরং স্বার্থকে আশ্রয় করে যে সহযােগিতা, মানুষের দৈনন্দিন প্রয়ােজনের কঠিন মাটিতে যার মূল, সেই সহযােগিতাই নির্ভরযােগ্য।

* সাম্প্রদায়িক চেতনায় বাস্তবে বিকৃত প্রতিফলনই দ্বন্দ্বের প্রধান কারণ। 

* প্রতিটি গ্রামের কয়েক মাইলের ভিতর একটি করে মহানগরী বসানাে যায় , কিন্তু ছােটো শহর এনে দেওয়া যায়। ইংল্যাণ্ড, ফ্রান্স, জাপান প্রভৃতি দেশে আছে গােটা পনেরাে গ্রামের জন্য একটি ছােট শহর। ...আমাদের দেশে শহর পিছু গ্রামের সংখ্যা দুশাে, কোথাও কোথাও আরও অনেক বেশি।

শহর ও গঞ্জ জাগিয়ে তােলার জন্য পরিকল্পনা চাই। এটাও উন্নয়নের ভিত তৈরি করার কাজের অঙ্গ। কোনাে একটি অঞ্চলের এত মাইল রাস্তা হবে বলাটাই যথেষ্ট নয়। গ্রাম এবং বর্তমান ও সম্ভাব্য ছােটো শহর নিয়েই আমরা সেই বিন্দুগুলাে পাই, যাদের ভিতর রেখা টেনে টেনে পথ-ঘাটের একটা রূপরেখা অর্থপূর্ণ হয়ে ওঠে। আর এ কথাটা শুধু পথঘাট সম্বন্ধে প্রযােজ্য নয়। শিক্ষা, বিদ্যুৎ সব কিছু পরিকল্পনার জন্যই এইরকম কয়েকটি স্থির বিন্দুর প্রয়ােজন হয়। গ্রাম এবং নতুন উন্নয়ন কেন্দ্র নিয়েই রচনা করা যায় আঞ্চলিক উন্নয়ন পরিকল্পনার আধার। মানুষের ভালােবাসা ও সেবার ব্যাকুলতা স্বাভাবিক নির্গমনে ব্যর্থ হলে ভ্রান্ত পথে চলে যেতে চায় আর তখন তাদের মূর্তি হয়ে ওঠে সংহারক।

* সুখ-অসুখের হিসাব মিলিয়ে যিনি জীবনযাপন করতে চাইবেন জীবন ধারণ তার কাছে শীঘ্রই একটা বিড়ম্বনা স্বরূপ দেখা দেবে। 


Popular quotes by Amlan Dutta 

অম্লান দত্তের বানী - quotes by Amlan Dutta  অম্লান দত্তের বানী - quotes by Amlan Dutta Reviewed by WisdomApps on সেপ্টেম্বর ১১, ২০২০ Rating: 5

নারী ,প্রেম ও সমাজ নিয়ে শরৎচন্দ্র চট্টোপাধ্যায়ের বাণী

সেপ্টেম্বর ১০, ২০২০

শরৎচন্দ্র চট্টোপাধ্যায়ের বাণী 

* সমস্ত রমণীর অন্তরে নারী বাস করে কিনা তাহা জোর করিয়া বলা অত্যন্ত দুঃসাহসের কাজ। কিন্তু নারীর চরম সার্থকতা যে মাতৃত্বে এ কথা বােধ করি গলা বড়াে করিয়াই প্রচার করা যায়।

* বনের পাখির চেয়ে পিঞ্জরের পাখিটাই বেশি ছটফট করে। 

* ভালাে বক্তার কাছে জনতা যুক্তিতর্ক চাহে না, যাহা মন্দ তাহা কেন। মন্দ এ খবরে তাহাদের আবশ্যক হয় না। শুধু মন্দ যে কত মন্দ অসংখ্য বিশেষণ যােগে ইহাই শুনিয়া তাহারা চরিতার্থ হইয়া যায়।

* যেখানে ফেলে যাওয়াই মঙ্গল সেখানে আঁকড়ে থাকাতেই অকল্যাণ। 

* লােকে বলে, এই তাে দুনিয়া! এমনি ভাবেই ত সংসারের সকল কাজ চিরদিন হইয়া আসিয়াছে। কিন্তু এই কি যুক্তি! পৃথিবী কি শুধু অতীতের জন্য, মানুষ কি কেবল তাহার পুরাতন সংস্কার লইয়া অচল হইয়া থাকিবে! নূতন কিছু কি সে কল্পনা করিবে না! উন্নতি করা কি তাহার শেষ হইয়া গেছে!

* কোনাে প্রেমই কোনােদিন ঘৃণার বস্তু হতে পারে না।

* আমাদের দেশের লােক বই পড়েন বটে, কিন্তু পয়সা খরচ করে কিনে পড়েন না।

* অর্থশালী পুরুষের যে কোনাে দেশেই বয়সের অজুহাতে বিবাহ আটকায় , বাংলা দেশে ত নয়ই।

* পৃথিবীর আকর্ষণ ত চিরদিনই আছে কিন্তু সে আকর্ষণে আত্মসমর্পণ করতে গাছের পাকা ফলটিই পারে, কঁচায় পারে না। তার আঁশ শাঁস পৃথিবীর রসেই পাকে, স্বর্গের রসে পাকে না। সুন্দর ফুল রূপ দিয়ে, গন্ধ দিয়ে, মধু দিয়ে, মৌমাছি টেনে এনে ফলে পরিণত হয়, সেই ফল আবার ঠিক সময়ে মাটিতে পড়ে অঙ্কুরে পরিণত হয়। এ তার প্রকৃতি, এই তার প্রবৃত্তি, এই তার স্বর্গীয় প্রেম। বিশ্বজুড়ে এই যে অবিচ্ছিন্ন সৃষ্টির খেলা, রূপের খেলা চলেছে, স্বর্গীয় নয় বলে এতে দুঃখ করবার বা লজ্জা পাবার ত কিছু দেখিনে।

* সন্তানের নামকরণকালে পিতামাতার মূঢ়তায় বিধাতাপুরুষ অন্তরীক্ষে থাকিয়া অধিকাংশ সময়ে শুধু হাস্য করিয়াই শান্ত হন না, তীব্র প্রতিবাদ করেন। তাই অহাদের সমস্ত জীবনটা তাহাদের নিজেদের নামগুলোকেই যেন আমরন ভ্যাংচাইয়া চলিতে থাকে । 

* নারীর এক জাতীয় রূপ আছে যাহাকে যৌবনের অপর প্রান্তে না পৌছিয়া পুরুষ কোনােদিন দেখিতে পায় না।

* ছেলে বয়সের একটা মস্ত দোষ এই যে, অনেক বই পড়ার অভিমানটা এদের পেয়ে বসে। তাই নিজের লেখার মধ্যে নিজের কিছুই থাকে না, থাকে শুধু মুখস্থ করা পরের কথা। থাকে কারণে অকারণে যেখানে সেখানে খুঁজে দেওয়া বিদ্যার বাচালতা।

* যারা অধর্মকে ভয় করে না, লজ্জা ভয় যাদের নেই, প্রাণের ভয়টা যদি তাদের তেমন বেশি থাকে, তা হলে সংসার ছারখার হয়ে যায়। 

* সংসারে বন্ধু সংখ্যা যাহার অপরিমিত দুঃখের দিনে ডাক দিবার মতাে বন্ধুর তাহারি সবচেয়ে অভাব।

* স্পষ্ট করার লােভ যাদের বড় বেশি, বক্তা হলে তারা খবরের কাগজে বক্তৃতা ছাপায়, লেখক হলে নিজের গ্রন্থের ভূমিকা, আর নাট্যকার হলে তারাই সাজে নিজের নাটকের নায়ক।

* চটুল বাক্যের নানা অলঙ্কার গায়ে আমাদের জড়িয়ে দিয়ে যারা প্রচার করেছিল মাতৃত্বই নারীর চরম সার্থকতা, সমস্ত নারীজাতীকে তারা বঞ্চনা করেছিল।

* সর্বপ্রকার মতকেই শ্রদ্ধা করতে পারেন কে জানেন? যার নিজের মতের বালাই নেই। শিক্ষার দ্বারা বিরুদ্ধ মতকে নিঃশব্দে উপেক্ষা করা যায়।

* প্রায় কোনাে দেশেই পুরুষ নারীর যথার্থ মূল্য দেয় নাই।

* বিরাগ-বিদ্বেষ নিয়ে বিচার করতে গেলে কেবল একপক্ষই ঠকে না, অন্য পক্ষও ঠকে।

* যে সকল ব্যাপার সচরাচর এবং সহজভাবে ঘটে না এবং যাহার মধ্যে পাপ আছে, তাহা তলাইয়া বুঝিতে না পারিলেও সকলেই নিজের বুদ্ধি অনুসারে একরকম করিয়া বুঝিতে পারে।

* মনই যদি দেউলে হয়, পুরুতের মন্ত্রকে মহাজন খাড়া করে সুদটা আদায় হতে পারে, কিন্তু আসল ত ডুবল।

* যে লােক দাবী করতে ভয় পায়, পরের দাবী মেটাতেই তার জীবন কাটে।

* বড়াে দুঃখ ছাড়া কোনােদিন কোনাে বড়ড়া জিনিস লাভ করা যায় না।

* মনের বার্ধক্য আমি তাকেই বলি...যে মন সুমুখের দিকে চাইতে পারে


All quotes by Sarat Chandra Chattopadhyay । শেয়ার করুন 

নারী ,প্রেম ও সমাজ নিয়ে শরৎচন্দ্র চট্টোপাধ্যায়ের বাণী নারী ,প্রেম ও সমাজ নিয়ে শরৎচন্দ্র চট্টোপাধ্যায়ের বাণী Reviewed by WisdomApps on সেপ্টেম্বর ১০, ২০২০ Rating: 5

ভারতে নিষিদ্ধ হয়ে গেলো PUB-G সহ এই ১১৮ টি অ্যাপ - সম্পূর্ণ লিস্ট দেখে নিন

সেপ্টেম্বর ০২, ২০২০



ভারত সরকার আজ বুধবার ০২রা সেপ্টেম্বর ১১৮ টি চাইনিজ অ্যাপ ব্যাবহারের উপর নিষেধাজ্ঞা জারি করলেন । এর মধ্যে বিখ্যাত পাব-জি গেম ও পাব-জি লাইট আছে । ভারতের Information and Broadcasting (I&B) মন্ত্রক একটি নোটিফিকেশনের মাধ্যমে জানিয়েছে এই অ্যাপ গুলি এমন সমস্ত কাজ কর্মে লিপ্ত যা - " ভারতের সার্বভৌমত্ব ও অখণ্ডতার , ভারতের প্রতিরক্ষা, রাষ্ট্রের সুরক্ষা ও গণ-ব্যবস্থার জন্য ক্ষতিকারক " 

এই ১১৮ টি অ্যাপের লিস্ট নিচে দেওয়া হল । আপনার ফোনে এই অ্যাপগুলি থাকলে এখনই আন -ইন্সটল করে দিন । লেখাটি শেয়ার করে সমস্ত ভারতবাসীকে সতর্ক করে দিন - 

1. APUS Launcher Pro- Theme, Live Wallpapers, Smart

2. APUS Launcher -Theme, Call Show, Wallpaper, HideApps

3. APUS Security -Antivirus, Phone security, Cleaner

4. APUS Turbo Cleaner 2020- Junk Cleaner, Anti-Virus

5. APUS Flashlight-Free & Bright

6. Cut Cut Cut Out & Photo Background Editor

7. Baidu

8. Baidu Express Edition

9. FaceU - Inspire you're Beauty

10. ShareSave by Xiaomi: Latest gadgets, amazing deals

11. CamCard - Business Card Reader

12. CamCard Business

13. CamCard for Salesforce

14. CamOCR

15. InNote

16. VooV Meeting - Tencent Video Conferencing

17. Super Clean - Master of Cleaner, Phone Booster

18. WeChat reading

19. Government WeChat

20. Small Q brush

21. Tencent Weiyun

22. Pitu

23. WeChat Work

24. Cyber Hunter

25. Cyber Hunter Lite

26. Knives Out-No rules, just fight!

27. Super Mecha Champions

28. LifeAfter

29. Dawn of Isles

30. Ludo World-Ludo Superstar

31. Chess Rush

32. PUBG MOBILE Nordic Map: Livik

33. PUBG MOBILE LITE

34. Rise of Kingdoms: Lost Crusade

35. Art of Conquest: Dark Horizon

36. Dank Tanks

37. Warpath

38. Game of Sultans

39. Gallery Vault - Hide Pictures And Videos

40. Smart AppLock (App Protect)

41. Message Lock (SMS Lock)-Gallery Vault Developer Team

42. Hide App-Hide Application Icon

43. AppLock

44. AppLock Lite

45. Dual Space - Multiple Accounts & App Cloner

46. ZAKZAK Pro - Live chat & video chat online

47. ZAKZAK LIVE: live-streaming & video chat app

48. Music - Mp3 Player

49. Music Player - Audio Player & 10 Bands Equalizer

50. HD Camera Selfie Beauty Camera

51. Cleaner - Phone Booster

52. Web Browser & Fast Explorer

53. Video Player All Format for Android

54. Photo Gallery HD & Editor

55. Photo Gallery & Album

56. Music Player - Bass Booster - Free Download

57. HD Camera - Beauty Cam wif Filters & Panorama

58. HD Camera Pro & Selfie Camera

59. Music Player - MP3 Player & 10 Bands Equalizer

60. Gallery HD

61. Web Browser - Fast, Privacy & Light Web Explorer

62. Web Browser - Secure Explorer

63. Music player - Audio Player

64. Video Player - All Format HD Video Player

65. Lamour Love All Over Teh World

66. Amour- video chat & call all over teh world.

67. MV Master - Make Your Status Video & Community

68. MV Master - Best Video Maker & Photo Video Editor

69. APUS Message Center-Intelligent management

70. LivU Meet new people & Video chat with strangers

71. Carrom Friends : Carrom Board & Pool Game-

72. Ludo All Star- Play Online Ludo Game & Board Games

73. Bike Racing : Moto Traffic Rider Bike Racing Games

74. Rangers Of Oblivion : Online Action MMO RPG Game

75. Z Camera - Photo Editor, Beauty Selfie, Collage

76. GO SMS Pro - Messenger, Free Themes, Emoji

77. U-Dictionary: Oxford Dictionary Free Now Translate

78. Ulike - Define your selfie in trendy style

79. Tantan - Date For Real

80. MICO Chat: New Friends Banaen aur Live Chat karen

81. Kitty Live - Live Streaming & Video Live Chat

82. Malay Social Dating App to Date & Meet Singles

83. Alipay

84. AlipayHK

85. Mobile Taobao

86. Youku

87. Road of Kings- Endless Glory

88. Sina News

89. Netease News

90. Penguin FM

91. Murderous Pursuits

92. Tencent Watchlist (Tencent Technology

93. Learn Chinese AI-Super Chinese

94. HUYA LIVE Game Live Stream

95. Little Q Album

96. Fighting Landlords - Free and happy Fighting Landlords

97. Hi Meitu

98. Mobile Legends: Pocket

99. VPN for TikTok

100. VPN for TikTok

101. Penguin E-sports Live assistant

102. Buy Cars-offer everything you need, special offers and low prices

103. iPick

104. Beauty Camera Plus - Sweet Camera & Face Selfie

105. Parallel Space Lite - Dual App

106. "Chief Almighty: First Thunder BC

107. MARVEL Super War NetEase Games

108. AFK Arena

109. Creative Destruction NetEase Games

110. Crusaders of Light NetEase Games

111. Mafia City Yotta Games

112. Onmyoji NetEase Games

113. Ride Out Heroes NetEase Games

114. Yimeng Jianghu-Chu Liuxiang TEMPhas been fully upgraded

115. Legend: Rising Empire NetEase Games

116. Arena of Valor: 5v5 Arena Games

117. Soul Hunters

118. Rules of Survival



ভারতে নিষিদ্ধ হয়ে গেলো PUB-G সহ এই ১১৮ টি অ্যাপ - সম্পূর্ণ লিস্ট দেখে নিন ভারতে নিষিদ্ধ হয়ে গেলো PUB-G সহ এই ১১৮ টি অ্যাপ - সম্পূর্ণ লিস্ট দেখে নিন Reviewed by WisdomApps on সেপ্টেম্বর ০২, ২০২০ Rating: 5

ডঃ সর্বপল্লী রাধাকৃষ্ণানের ১০টি বানী - প্রতিটি ভারতবাসীর জানা উচিত

সেপ্টেম্বর ০২, ২০২০




মানুষের ভালাে করা, মানুষকে সত্যিকারের মানুষ করে তােলা আমাদের সকলের কর্তব্য। আর তা যদি আমরা করতে চাই তাহলেই আমরা কেবলমাত্র প্রেমের মাধ্যমে, ভালােবাসার মাধ্যমেই করতে পারি।

• কলেজে ঢােকা এখন আরও সহজ হয়েছে আর কঠিন হয়েছে শিক্ষিত হওয়া। পড়তে শেখানাে হচ্ছে আমাদের, ভাবতে শেখানাে হচ্ছে।

মানুষের সঙ্গে মেলামেশার ক্ষেত্রে বয়স, জাতি, পদমর্যাদা ও শিক্ষা প্রভৃতির পার্থক্য বিচারের কোনও মূল্যই আমার কাছে নেই।

• এক কথায় মানুষ হল শরীর, মন এবং আত্মা—এই তিন শক্তির সমষ্ঠী। 

কারিগর পরিণত হয়েছে মিস্ত্রিতে, বৃহত্তর উৎপাদনের খাতিরে সে এখন যন্ত্র মাত্র। এক ঘেয়ে কাজ মনকে জাগায় না। শরীরকে ক্লান্ত করে।


আরও পড়ুনঃ ভালোবাসা ও জীবন নিয়ে মাদার টেরেসার কিছু বানী 


• অর্থ সব নয়। অর্থের দ্বারা উৎকৃষ্টকে পাওয়া যায় না। আমাদের সব চাইতে কাম্য সম্পদ মন ও হৃদয়ে প্রশান্তি। আর সহৃদয়তা টাকায় বিকোয় না।

• মানুষ তারা যাদের মন টানে সৌন্দর্য প্রেম এবং সংস্কৃতির মত মানবিক মূল্যবােধে। মনের শান্তি আর মুক্তি না এলে বাইরের ব্যবস্থা কোনও সহায়তা করে না।

• আশা, উপলব্ধী, আত্মজ্ঞান লাভ এবং সর্বাত্মক পরিপূর্ণতা লাভই মানব জীবনের ভবিষ্যত।

• আমরা যদি সুখে স্বচ্ছন্দে থাকি আমাদের চারিদিকে অসংখ্য দুঃদশাগ্রস্থ, অবহেলিত ও নিপীড়িত মানুষ কোনও রূপে জীবন যাপন করতে বাধ্য হয়, তাহলে সেই বঞ্চিত মানুষদের প্রতি সহানুভূতি প্রকাশ, তাদের দুঃখে, সান্ত্বনাদান এবং তাদের দুঃখ মােচনের প্রচেষ্টাই হল আমাদের বিশেষ কর্তব্য।

• পৃথিবীর সব চাইতে জনপ্রিয় নেশা হল টাকা কামানাে। 

• যতদিন আমাদের মেয়েরা উচ্ছল পুরুষদের খেলার পুতুল এবং পরিচারিকারূপে পরিগণিত হতে থাকবে ততদিন সমাজব্যবস্থায় দুনীতি থেকেই যাবে।

ডঃ সর্বপল্লী রাধাকৃষ্ণানের ১০টি বানী - প্রতিটি ভারতবাসীর জানা উচিত ডঃ সর্বপল্লী রাধাকৃষ্ণানের ১০টি বানী - প্রতিটি ভারতবাসীর জানা উচিত Reviewed by WisdomApps on সেপ্টেম্বর ০২, ২০২০ Rating: 5

শিক্ষার লক্ষ্য সম্বন্ধে ডঃ সর্বপল্লী রাধাকৃষ্ণানের ১০টি কথা - প্রত্যেকের জানা প্রয়োজন

আগস্ট ৩১, ২০২০


ভারতের প্রথম শিক্ষা কমিশনের চেয়ারম্যান ছিলেন ডঃ সর্বপল্লী রাধাকৃষ্ণান । এই কমিশনটিকে রাধাকৃষ্ণান কমিশন ও বলা হয়ে থাকে । এই কমিশনের উদ্দেশ্য ছিল ভারতীয় শিক্ষা ব্যবস্থা ও বিশ্ববিদ্যালয় গুলির উন্নয়ন । এই কমিশনের প্রকাশিত রিপোর্টে শিক্ষার লক্ষ্য সম্বন্ধে ১০ টি কথা বলা হয় যা বর্তমান সময়েও সমানভাবে মূল্যবান । আসুন জেনে নিই ডঃ সর্বপল্লী রাধাকৃষ্ণানের তথা এই কমিটির সুপারিশ করা সেই ১০টি কথা - 

১ । জীবনের যে একটা অর্থ আছে তা শেখাতে হবে । 

২। জ্ঞানের আলো প্রজ্বলিত করে ব্যাক্তির অভ্যন্তরের সুপ্ত ক্ষমতাকে জাগিয়ে তুলতে হবে । 

৩। সমাজ দর্শনের সঙ্গে পরিচিত করাতে হবে , যে দর্শন শিক্ষা , অর্থনীতি ও রাজনীতিকে পরিচালিত করে । 

৪। শিক্ষার্থীদের গণতান্ত্রিক করার জন্য প্রশিক্ষণ দিতে হবে । 

৫। আত্ম উন্নতির জন্য প্রশিক্ষণ দিতে হবে । 

৬। কিছু মূল্যবোধকে বিকশিত করতে হবে , যেমন - মনের ভয়কে দূরীভূত করা , চেতনাকে শক্তিশালী করা ইত্যাদি । 

৭। উত্তরাধিকার সূত্রে প্রাপ্ত সংস্কৃতি ও কৃষ্টিকে পরবর্তী বংশধরের মধ্যে কিভাবে সঞ্চালিত করা যায় তার সঙ্গে পরিচিত হতে হবে । 

৮। শিক্ষা হচ্ছে জীবনব্যাপী প্রক্রিয়া তা বুঝতে হবে । 

৯। বর্তমান সময়কে বুঝতে হবে তার সঙ্গে সঙ্গে অতীতকেও জানতে হবে । 

১০। বৃত্তিমুখী ও পেশাগত প্রশিক্ষণ প্রদান করতে হবে । 

শিক্ষার লক্ষ্য সম্বন্ধে ডঃ সর্বপল্লী রাধাকৃষ্ণানের ১০টি কথা - প্রত্যেকের জানা প্রয়োজন শিক্ষার লক্ষ্য সম্বন্ধে ডঃ সর্বপল্লী রাধাকৃষ্ণানের ১০টি কথা - প্রত্যেকের জানা প্রয়োজন Reviewed by WisdomApps on আগস্ট ৩১, ২০২০ Rating: 5

সাপ্তাহিক রাশিফল ৩০শে আগস্ট থেকে ৫ই সেপ্টেম্বর ২০২০

আগস্ট ৩১, ২০২০

 




মেষঃ সপ্তাহের শুরুর দিকে বেশ কিছুটা অর্থ হাতে আসতে পারে। ব্যাবসায়ীদেরপক্ষে সপ্তাহটি মধ্যভাগটা যথেষ্ট আশাব্যঞ্জক। চাকুরিজীবীদের ক্ষেত্রে কর্মক্ষেত্রে অস্থিরতা বিদ্যমান। দাম্পত্যজীবনে বিতর্ক, বিবাদ এড়িয়ে চলা প্রয়োজন। বিবাহ যোগ্য সন্তানের বিবাহ বিষয়ে শুভ উদ্যোগ। সপ্তাহের শেসের দিকে শরীর স্বাস্থ্যের উল্লেখযোগ্য উন্নতি। প্রিয়জনের সান্নিধ্য লাভ। উচ্চশিক্ষা ও গবেষণায় সফলতা প্রাপ্তি।


বৃষঃ আলোচ্য সপ্তাহের প্রথম দিকে পারিবারিক বিবাদে আইনানুগ পরামর্শ নেওয়ার প্রয়োজন দেখা দিতে পারে। কর্মক্ষেত্রে অচলাবস্থা ও সংকট অব্যাহত থাকলে বিকল্প জীবিকা/ কর্মানুসন্ধানে সাফল্য। সপ্তাহের মধ্যবর্তী সময়ে ব্যাবসা ক্ষেত্রে উল্লেখযোগ্য অগ্রগতি। বন্ধুরুপী শত্রু বিষয়ে সতর্কতা অবলম্বন প্রয়োজন। প্রেম-পরিণয়ে নৈরাশ্য বৃদ্ধি। সপ্তাহের শেষের দিকে সন্তানের বিদ্যা শিক্ষায় মনোযোগ বৃদ্ধিতে মানসিক সন্তোষ। শিল্পী, কলাকুশলীদের নতুন যোগাযোগ ও আয় উন্নতি লাভ। 


মিথুনঃ সপ্তাহেরফ প্রথমদিকে দাম্পত্য অসন্তোষ মাথা চড়া দিতে পারে। প্রেম-পরিণয়ে তৃতীয় পক্ষের সন্দেহজনক আচরণ বিষয়ে সতর্কতা অবলম্বন প্রয়োজন। সপ্তাহের মধ্যবর্তী সময়ে জ্ঞাতি-পরিজনের হৃদয়হীন আচরণে হতাশা বৃদ্ধি। ব্যাবসাক্ষেত্রে ঋনবৃদ্ধি । প্রত্যাশিত সফল্য লাভে বাধা-বিঘ্ন। সপ্তাহের শেষের দিকে আধ্যাত্মিক কৃপায় শরীর-স্বাস্থ্যের উল্লেখযোগ্য উন্নতি। সন্তানের বিবায় বিষয়ে শুভ উদ্যোগ। শেয়ার, ফটকা লটারিতে খুব বেশি লগ্নি না করাই শ্রেয়। ঋন আদায়কারী ব্যাক্তি/সংস্থার বিরূপ আচরণে সামাজিক সম্মান হানির বিষয়ে সতর্কতা অবলম্বন প্রয়োজন। 


কর্কটঃ এই সপ্তাহের গোড়ার দিকে আর্থিক দিক থেকে লাভবান হতে পারেন। কর্মক্ষেত্রে দায়িত্ব বৃদ্ধি হলেও প্রত্যাশিত বেতন বৃদ্ধি নাও হতে পারে। সপ্তাহের মধ্যবর্তী সময়ে পারিবারিক ক্ষেত্রে সম্পত্তি ক্রয় বিক্রয়ে জ্ঞাতি-বিরোধ। প্রবাসী প্রিয়জনের বিষয়ে দুঃশ্চিন্তা বৃদ্ধি। সপ্তাহের শেষের দিকে প্রেম-পরিণয়ে বিতর্ক বিবাদের অবসান। দাম্পত্যজীবনে তৃতীয়পক্ষের কলকাঠিতে অসন্তোষ বৃদ্ধি।


সিংহঃ সপ্তাহের শুরুর দিকে ব্যাবসাক্ষেত্রে আয়, উন্নতি বৃদ্ধি হলে ঋনভার লাঘব করা প্রয়োজন। চাকুরিজীবীদের ক্ষেত্রে দায়-দায়িত্ব বৃদ্ধি। সপ্তাহের মধ্যভাগে সম্পত্তি ক্রয়-বিক্রয় সংস্কার বিষয়ে জ্ঞাতি-পরিজনের সঙ্গে আপস মীমাংসা করে নেওয়া প্রয়োজন। সপ্তাহের অন্তভাগে সন্তানের বিদ্যাশিক্ষায় সফলতা। কর্মসূত্রে দূরযাত্রার প্রয়োজনীয়তা দেখা দিলেও তা এড়িয়ে যাওয়া প্রয়োজন। 


কন্যাঃ আলোচ্য সপ্তাহের প্রথমভাগে ব্যাবসাক্ষেত্রে প্রত্যাশিত লাভে বাধা-বিঘ্ন দেখা দিতে পারে। সতর্কতা আবশ্যাক। কর্মক্ষেত্রে অস্থিরতা বজায় থাকবে। সপ্তাহের মধ্যভাগে ঐশ্বরিক কৃপা ও সুচিকিৎসায় শরীর স্বাস্থ্যের সন্তোষজনক অগ্রগতি। দাম্পত্যজীবনে ভুল বোঝাবুঝির অবসান। সপ্তাহের অন্তভাগে প্রবাসী প্রিয়জনের বিষয়ে দুশ্চিন্তা বৃদ্ধি। উচ্চশিক্ষা ও গবেষণায় সন্তানের কৃতিত্ব সম্মান লাভ। 


তুলাঃ এই সপ্তাহের প্রথমদিকে কর্মক্ষেত্রে অনেক দিন ধরে চলে আসা জটিলতার অবসান হতে পারে। ব্যবসা ক্ষেত্রে ঋণ বৃদ্ধিতে রাস টানা প্রয়োজন। সপ্তাহের মধ্যবর্তী সময়ে বিকল্প জীবিকা/ উপার্জনে সফলতা। সুচিকিৎসা শরীর স্বাস্থ্যের উল্লেখযোগ্য অগ্রগতি। সপ্তাহের শেষের দিকে পারিবারিক ক্ষেত্রে ভুল বোঝাবুঝির অবসান। প্রেম পরিণয়ে বিতর্ক বিপদ এড়িয়ে চলা প্রয়োজন। শিল্পী কলাকুশলী ব্যাক্তিদের পক্ষে সপ্তাহের শেষ দিকটা যথেষ্ট আশাপ্রদ। 


বৃশ্চিকঃ এই রাশির জাতক/জাতিকাদের পক্ষে সপ্তাহের শুরুর দিকটা অতীব শুভ। গুরুত্বপূর্ণ কাজকর্ম সপ্তাহের প্রথমদিকেই করে নেওয়া প্রয়োজন। সপ্তাহের মধ্যবর্তী সময়ে ব্যাবসা ক্ষেত্রে গোলযোগ বৃদ্ধি। ঋণ আদায়কারী ব্যাক্তি/ সংস্থার আচরণে সামাজিক সম্মানহানি। সপ্তাহের শেষের দিকে চাকুরিক্ষেত্রে দায়-দায়িত্ব বৃদ্ধি। প্রেম-পরিণয়ে বিতর্ক বিবাদের সাময়িক অবসান। শেয়ার-ফটকায় বেশ কিছু অর্থ হাতে আসতে পারে। 


ধনুঃ আলোচ্য সপ্তাহের প্রথমদিকে বিবাহযোগ্য সন্তানের বিবাহ বিষয়ে তৎপরতা আবশ্যক। ব্যাবসাক্ষেত্রে উল্লেখযোগ্য অগ্রগতিতে মনোবল ও উৎসাহ বৃদ্ধি। সপ্তাহের মধ্যভাগে পারিবারিক বিতর্ক বিবাদে রাশ টানা প্রয়োজন। বাস্তু-সমস্যার নাজেহাল হলেও বসতবাড়ি বিক্রয় করার চিন্তা না করাই সমীচীন। প্রয়োজনীয় বাস্তু সংস্কারে বাস্তু সমস্যার সমাধান মিলতে পারে। সপ্তাহের অন্তভাগে প্রেম-পরিণয়ে হতাশা বৃদ্ধি। দাম্পত্যজীবনে ভুল বোঝাবুঝির অবসান। 


মকরঃ এই সপ্তাহের শুরুর দিকটা এই রাশির জাতক/জাতিকাদের জন্য যথেষ্ট আশাব্যঞ্জক। কর্মক্ষেত্রে সুনামের সঙ্গে সঙ্গে দায়-দায়িত্ব ও পদ বৃদ্ধি। সপ্তাহের মধ্যভাগে উত্তরাধিকার সূত্রে সম্পত্তি থেকে হাতে বেশ কিছুটা অর্থ আসতে পারে। বাতজ বেদনা, স্নায়ু-পীড়া, অ্যাসিডিটির সমস্যা, জীবাণু সংক্রমণ বিষয়ে সতর্কতা প্রয়োজন। সপ্তাহের শেষের দিকে ব্যাবসায়িক ক্ষেত্রে সন্তোষজনক অগ্রগতি উচ্চশিক্ষা ও গবেষণায় প্রত্যাশিত সাফল্য লাভে বাধা বিঘ্নের যোগ। 


কুম্ভঃ আলোচ্য সপ্তাহের প্রথম দিকে ঐশ্বরিক কৃপায় শরীর-স্বাস্থ্যের উল্লেখযোগ্য অগ্রগতি। দাম্পত্যজীবনে ভুল বোঝাবুঝির অবসান। সপ্তাহের মধ্যভাগে ব্যাবসাক্ষেত্রে আশানুরুপ সাফল্য লাভে বাধা। ঋণবৃদ্ধিতে মানসিক চাপ বৃদ্ধি। সপ্তাহের শেষের দিকে দূর শিক্ষায় সফলতা ও কৃতিত্ব। সম্পত্তি সংস্কার ক্রয় বিক্রয় জ্ঞাতি বিরোধ। শেয়ার, ফটকায় আশাতীত উপার্জন। 


মীনঃ এই রাশির জাতক/জাতিকাদের জন্য সপ্তাহের শুরুর দিকটা যথেষ্ট আশাপ্রদ। ব্যাবসাক্ষেত্রে অগ্রগতি সন্তোষজনক। করমক্ষেত্রেফ দায়-দায়িত্ব ও সুনাম বৃদ্ধি হলেও অর্থনৈতিক প্রাপ্তি সেভাবে হচ্ছে না। সপ্তাহের মাঝামাঝি সময়ে রক্তে শর্করা ও ইউরিক অ্যাসিড বৃদ্ধিতে সমস্যা দেখা দিতে পারে। সপ্তাহের শেষের দিকটার পারিবারিক মতবিরোধের সন্তোষজনক সমাধান। 




সাপ্তাহিক রাশিফল ৩০শে আগস্ট থেকে ৫ই সেপ্টেম্বর ২০২০ সাপ্তাহিক রাশিফল ৩০শে আগস্ট থেকে ৫ই সেপ্টেম্বর ২০২০ Reviewed by WisdomApps on আগস্ট ৩১, ২০২০ Rating: 5

হাসির ছলে জীবন দর্শন - মার্ক টোয়েইন এর এই উক্তিগুলি আপনার হাসাবে ও ভাবাবে

আগস্ট ২৫, ২০২০


• মানুষ যখন নিজেকে একজন মিথ্যাবাদী বলে স্বীকার করে তখন তার থেকে সে কখনােই বেশি সত্যবাদী নয়।

• একজন মানুষ তার সাধারণ কথােপকথনে যে ধরনের বিশেষণ প্রয়ােগ করে তা থেকে তার চরিত্র জানা যেতে পারে।

• যে মানুষ পড়াশুনা করে না সে কখনাে পড়াশুনা না জানা লােকের থেকে বেশি সুযােগ-সুবিধা পায় না।

• যে মানুষ নতুন কোনাে কথা বলে তাকে সকলে পাগল ভাবে যতক্ষণ না তার কথা সফল হচ্ছে।

• Action speaks louder than words but not nearly as often.

• হাসির আঘাতের বিরুদ্ধে কিছুই দাঁড়াতে পারে না।

• All right, than, I'll go to hell.

• তােমার যা দরকার, তা হল কেবল অভিজ্ঞতা এবং আত্মবিশ্বাস , তাহলেই সাফল্য তােমার বাঁধা।

• বয়স হল বস্তুর ওপর মনের একটা ব্যাপার। যদি কিছু মনে না করাে, কিছুই যায় আসে না।

• ক্রোধ হল এমন এক ধরনের অ্যাসিড যাকে যে পাত্রে ঢালা হয় তার থেকে যে পাত্রে রাখা থাকে তার ক্ষতি বেশি করে।

• সর্বদা সঠিক কাজ করাে। তাতে কিছু লােক সন্তুষ্ট হবে, বাকিরা হবে বিস্মিত।

• যে-কোনাে আবেগ, যদি তা আন্তরিক হয়, তা স্বতঃস্ফূর্ত।

• যদি চাও নিজের পােশাক সম্পর্কে উদাসীন থাকতে পারাে। তবে সর্বদা আত্মাটা পরিচ্ছন্ন রেখাে।

• কথা বলার থেকে চুপ থাকা ভালাে, তাতে লােকে বোেকা ভাবে ভাবুক। কারণ মুখ খুললে তাে আর কোনাে সন্দেহই থাকবে না।

• প্রতিজ্ঞা না করার চেয়ে প্রতিজ্ঞা ভাঙা ভালাে।

• জমি কেন , কারণ কেউ ওটা আর বানাচ্ছেন না।

• সভ্যতা হল অপ্রয়ােজনীয় প্রয়ােজনের অগণন গুণন।

• একদিন ঝরে যাবে তুমি শারীরিকভাবে ,জীবিত থাকলেও তােমার বেঁচে থাকা স্তব্ধ হয়ে যাবে।

• যেখানকার লােকজন তােমাকে চেনে সেখানে মাছের গল্প বােলাে না, বিশেষ করে, তাদের বােলাে না যারা মাছ চেনে।

• Education consists mainly of what we unlearned.

• তােমার ভাবনাগুলি সমস্যার ভিড় থেকে কান ধরে টেনে বের করে আনাে, প্রয়ােজনে ঘাড় ধরে।

• সব কিছুরই একটা সীমা থাকে—লােহার আকরিককে শিক্ষিত করে কখনই সােনায় পরিণত করা যায় না।

• কিছু জিনিস আছে সহ্য করা কঠিন, একটি ভালাে উদাহরণের থেকেও।

• অতি নৈকট্য ঘৃণার জন্ম দেয় এবং শিশুদের।

• ধূমপান ছেড়ে দেওয়া পৃথিবীতে সব থেকে সহজ কাজ। আমি জানি, কারণ আমি অন্তত হাজারবার ছেড়েছি।

• Get your facts first, then you can distort them as you please.

• দুঃখ-যন্ত্রণা একা একাই নিজেদের বহন করতে পারে। কিন্তু তােমার আনন্দকে পূর্ণ মাত্রায় উপভােগ করতে অন্তত একজন দরকার যার সঙ্গে তা ভাগ করা যায়।

• সততাই শ্রেষ্ঠ পথ—বিশেষত যখন সেখানে অর্থ থাকে।

• হাস্যরস পৃথিবীর সর্বশ্রেষ্ঠ আশীর্বাদ।

• ভালাে বন্ধু, ভালাে বই এবং একটি ঘুমন্ত বিবেক ; এগুলিই হল আদর্শ জীবনের উপকরণ।

* এক টুকরাে আন্তরিক প্রশংসায় আমি অন্তত দুমাস বেঁচে থাকতে পারি । 




mark twain quotes in bengali , bengali quotes ,mark twain quotes education ,mark twain quotes politics ,mark twain quotes happiness ,mark twain quotes love ,mark twain quotes about death , মার্ক টোয়েন 

হাসির ছলে জীবন দর্শন - মার্ক টোয়েইন এর এই উক্তিগুলি আপনার হাসাবে ও ভাবাবে হাসির ছলে জীবন দর্শন -  মার্ক টোয়েইন এর এই উক্তিগুলি আপনার হাসাবে ও ভাবাবে Reviewed by WisdomApps on আগস্ট ২৫, ২০২০ Rating: 5

মানুষ , সমাজ ও রাজনীতি বিষয়ে আব্রাহাম লিঙ্কনের কালজয়ী বানী

আগস্ট ২৪, ২০২০


 • যদি কোনােদিন আমার নাম ইতিহাসে স্থান পায়, তাহলে আমার এই কাজটির জন্যই পাবে, এতে আমি নিজেকে পরিপূর্ণভাবে সমর্থন করেছি।

 • জনগণের জন্য, জনগণের দ্বারা, জনগণের শাসন, যা কখনাে পৃথিবী থেকে বিলুপ্ত হবে না।

• পৃথিবীতে একজন মানুষ স্বাধীন সত্তা নিয়ে বেঁচে থাকবে, তাকে কেন আমরা ক্রীতদাস হিসাবে পরিগণিত করব।

• সমস্ত মানুষের স্বাধীন চিন্তা করার অধিকার আছে আমরা কেউই তার ওই অধিকার কেড়ে নিতে পারি না।

• পৃথিবীর সব মানুষের মধ্যে সহমর্মিতা বজায় থাকবে। একজন অন্যজনের ওপর অন্যায় অত্যাচার করতে পারবে না। 

 • নারী এবং শিশুদের আলাদাভাবে রক্ষা করা দরকার। কারণ তারাই হল এই সমাজের সুগন্ধিত পুষ্প।

• ধনী এবং দরিদ্রের মধ্যে বিভাজন রেখাটি অবিলম্বে মুছে দেওয়া দরকার। না-হলে পৃথিবীতে কখনাে শান্তি আসবে না।

• অকারণে পররাজ্য লােভী হওয়া উচিত নয়। যদি যুদ্ধ করতেই হয়, তাহলে দরকার ছাড়া করা উচিত নয়।

• যৌবন জীবনের সর্বশ্রেষ্ঠ সময়, যৌবনকে কখনাে অবহেলা করতে নেই।

• পড়াশােনার প্রতি তীব্র আকাঙ্ক্ষা না থাকলে মানুষ জীবনে উন্নতি সাধন করতে পারবে না         অভিভাবকদের উচিত শিশুদের এই ব্যাপারে আরাে উৎসাহ দেওয়া।

 • বার্ধক্য কোনাে অভিশাপ নয়। বার্ধক্য হল জীবনের স্বাভাবিক পরিণতি।

• বিকলাঙ্গদের প্রতি আলাদাভাবে নজর দেওয়া উচিত। মনে রাখতে হবে, তারা এই সমাজেরই একজন।

• স্বপ্ন দেখার অধিকার সকলের থাকা উচিত, বলা তাে যায় না, কোনাে একটি স্বপ্ন কখনাে হয়তাে সফল হয়ে যাবে।

• নীরােগ শরীর না থাকলে মানুষ কোনাে কাজ করতে পারে না। নীরােগ শরীর রাখার জন্য নিয়মিত ব্যায়াম চর্চা করা উচিত।

• আগামী দিনের ইতিহাস রচিত হবে সাধারণ মানুষদের পরিশ্রমের দ্বারা। সাধারণ মানুষদের আমরা কখনাে সমাজের মূল স্রোত থেকে বিচ্ছিন্ন করতে পারব না।

 • আমরা সবাই মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের মহান আদর্শের প্রতি অনুগত থাকব। মনে রাখব সারা পৃথিবীতে মার্কিন দেশ এক অনন্য আসনে আসীন।

• যদি কেউ প্রশ্ন করে—আমি কী হিসাবে আপনাদের কাছে বেঁচে থাকব? আমি বলব, একজন সাধারণ মানুষ হিসাবে। এই প্রেসিডেন্টের মুকুট আমার মাথায় চাপিয়ে দেওয়া হয়েছে, এই মুকুট না থাকলেও আমি লিঙ্কন হিসাবেই থাকব।

• বিরােধী পক্ষকে উপযুক্ত মর্যাদা দিতেই হবে। গণতন্ত্রের প্রতি তার মস্ত বড়াে স্থান আছে, কিন্তু দুর্ভাগ্যের বিষয় অধিকাংশ ক্ষেত্রে এই আপ্তবাক্যটি ভুলে যাই।

• কখনাে কোনাে মানুষের প্রতি অন্যায় অত্যাচার করা উচিত নয়। মনে রাখতে হবে, যে কোনাে সময় দাবার চাল উলটে যেতে পারে।

• মার্কিন দেশের প্রেসিডেন্ট হিসাবে আমি সমস্ত পৃথিবীর সকলের সাথে সৌহার্দ্যপূর্ণ সম্পর্ক বজায় রাখতে আগ্রহী।

• প্রাকৃতিক বিপর্যয় দেখা দিলে ঠাণ্ডা মাথায় মােকাবিলা করা দরকার।  মনে রাখতে হবে প্রাকৃতিক বিপর্যয় চিরস্থায়ী হয় না।

• উত্তর এবং দক্ষিণ আমেরিকার মধ্যে অনভিপ্রেত কোনাে বিশৃঙ্খলা বরদাস্ত করা হবে না। মনে রাখতে হবে, এই দুটি অঞ্চল নিয়ে আমেরিকা গড়ে উঠেছে।

• আমেরিকার মধ্যে অনেক কিছু আছে, আছে অপরিমাপ্য প্রাকৃতিক সম্পদ, মানবিক সম্পদ, অর্থের জোগান, কিন্তু যেটার অভাব চোখে পড়ে তা হল দেশের প্রতি তীব্র ভালােবাসা।

• দেশকে ভালােবাসতে না পারলে আমরা কখনােই শক্তিশালী রাষ্ট্র গঠন করতে পারব না।



Quotes by Abraham Linkon in Bengali . Abraham Linkon's Quotes in Bengali. Bangla Quotes of Abraham Linkon , Bengali satus quotes for facebook, famous quotes for whatsapp, Famous Bengali Quotes , Popular Bangla Quotes,  Quotes on Nation and People 

মানুষ , সমাজ ও রাজনীতি বিষয়ে আব্রাহাম লিঙ্কনের কালজয়ী বানী মানুষ , সমাজ ও রাজনীতি বিষয়ে আব্রাহাম লিঙ্কনের কালজয়ী বানী Reviewed by WisdomApps on আগস্ট ২৪, ২০২০ Rating: 5

সাপ্তাহিক রাশিফল ২৩ আগস্ট থেকে ২৯ আগস্ট ২০২০

আগস্ট ২৩, ২০২০


মেষ: সপ্তাহের প্রথম দিকেই  হাতে বেশ কিছু অর্থপ্রাপ্তির যােগাযােগ মোছ। আধ্যাতিক কৃপায় শরীর-স্বাস্থ্যের উন্নতি, মানসিক বল বৃদ্ধি। সপ্তাহের মধ্যভাগে পারিবারিক সমস্যার আপাত সমান, মানসিক ভার লাঘব। সন্তানের বিদ্যা শিক্ষায় ক্রমিক অমনােযােগিতা, দুশ্চিন্তার কারণ হতে পারে। শেয়ার, ফাটকায় অত্যধিক নিবেশ না করাই শ্রেয়। সপ্তাহের অন্তভাগে ব্যবসায়িক যােগাযােগ বৃদ্ধি। চাকুরিজীবীদের দায়িত্ব বৃদ্ধি ও কর্মসূত্রে দূর যাত্রার যােগাযোগ। প্রেম-পরিণয়ে নৈরাশ্য।

বৃষঃ সপ্তাহের প্রথমভাগে অত্যাবশকীর কাজগুলি করে নেয়া দরকার। বলবান শত্রুর সঙ্গ আপস-মীমাংসা কর নেওয়াই সমীচীন। চাকরি ক্ষেত্রে অস্থিরতা বৃদ্ধি।  সপ্তাহের মধ্যভাগে ব্যবসায়িক মন্দা। পাওনাদারের তাগাদায় বিব্রত হওয়ার যােগাযােগ। শিল্পী, কলাকুশলীদের পক্ষে সপ্তাহের শেষভাগটা বেশ আশাপ্রদ । দাম্পত্যজীবনে যবতীয় ভুল বােঝাবুঝির অবসান । প্রেম-পরিণয়ে আশার আলো। প্রিয়জনের শরীর-স্বাস্থ্য নিয়ে দুশ্চিন্তা বৃদ্ধি। বিবাহযোগ্য সন্তানের বিবাহ বিষয়ক যোগাযোগ।

মিথুন: এই সপ্তাহের প্রথমভাগে জাতক জাতিকার বাতের ব্যাথা  , মাথাব্যাথ্যা ,  অ্যাসিডিটি সমস্যা, জীবাণু সংশের আশঙ্কা দেখা গেলেও তা নিয়ে খুব বেশি উতলা হওয়ার সেরকম কোনও কারণ নেই। সুচিকিৎসা, যােগ, প্রাণায়াম ও ঐশ্বরিক কৃপায় সপ্তাহের মধ্যভাগেই শারীরিক আরােগের সম্ভাবনা প্রবল। বৈষয়িক সম্পত্তি নিয়ে পারিবারিক মতবিরোধের সম্ভাবনা থাকছে। প্রেম-প্রণয়ে নৈরাশ্য মুক্তি। সপ্তাহের অন্তভাগে স্বামী স্ত্রীর-র সম্পর্কের অবনতি। চাকুরিক্ষেত্রে অস্থিরতাগুলি থাকায় হতাশা বৃদ্ধি। বিকল্প জীবিকা অর্থোপার্জনে মনােনিবেশ করা প্রয়োজন।

কর্কটঃ আলোচ্য গোড়ার দিকে কর্মক্ষেত্রে দায়িত্ব বৃদ্ধি হলেও আশানুরূপ অর্থকরী লাভের যােগাযােগ দেখা যাচ্ছে না। ব্যবসা ক্ষেত্রে ক্রমিক অগ্রগতির যোগাযােগ বেশ স্পষ্ট। সপ্তাহের মধ্যভাগে উচ্চতর বিদ্যা অর্জন ও গবেষণামূলক কার্যে সফলতা প্রাপ্তি। পারিবারিক ক্ষেত্রে গৃহ সংস্কার, ক্রয়-বিক্রয় নিয়ে মতবিরোধ।  অন্তভাগে দাম্পত্যজীবনে মতানৈক্য, বাকবিতণ্ডায় পারিবারিক শান্তি ব্যাহত হতে পারে। স্বনিযুক্তি প্রকল্পে কার্যে যুক্ত ব্যক্তিদের আয়-উন্নতি বৃদ্ধি ।

সিংহ: এই সপ্তাহের প্রথম দিকে ব্যবসায়িক যােগাযোগ ও আয় উন্নতি বৃদ্ধির শুভ যোেগ রয়েছে। সুপরিকল্পিত পথে কর্মক্ষেত্রে  দায়িত্ব ও সুনাম বৃদ্ধি। সপ্তাহের মধ্যভাগে উত্তরাধিকার সূত্রে প্রাপ্ত সম্পত্তি নিয়ে স্বজন বিদ্ৰোধ। শিল্পী, কলাকুশলী ব্যক্তিদের যােগাযোেগ/ আয় উন্নতি বৃদ্ধি। সপ্তাহের অন্তভাগে সন্তানের বিদ্যাশিক্ষায় ক্রমিক অবনতি দুশ্চিন্তা বুদ্ধির প্রধান কারণ হয়ে দাঁড়াতে পারে। শেয়ার, ফাটকা, লটারিতে অত্যধিক নিবেশ না করাই সমীচীন।

কন্যাঃ সপ্তাহের গােড়ার দিকে কর্মক্ষেত্রে অস্থিরতা বৃদ্ধি সত্ত্বেও উপস্থিত বুদ্ধিমত্তার জোরে ঊর্ধ্বতন  কর্তৃপক্ষের সুনজরে আসতে পারেন। ব্যবসায়িক ক্ষেত্রে মােটামুটিভাবে শুভই বলা চলে। সপ্তাহের মধ্যভাগে কোনও নিকটাত্মীয়ের বিরূপতায় সম্পত্তি ক্রয়/বিক্রয় স্থির সিদ্ধান্তে আসা যাবে না। সপ্তাহে অন্তভাগে উচ্চশিক্ষা ও গবেষণামূলক কাযে সফলতা প্রাপ্তি। স্বামী স্ত্রীর সম্পর্কের উন্নতি । 

তুলা: এই সপ্তাহের প্রথম ভাগে বিকল্প কর্মানুসন্ধানে শুভ ফল পাওয়া যেতে পারে।ব্যবসায়িক ক্ষেত্রে আর বেশি ঋণ না করাই সমীচীন। সপ্তাহের মধ্যভাগে পারিবারিক সম্পক্তি ক্রয় বিক্রয় স্বজন বিরোধ। প্রেম-পরিণয়ে বিতর্ক বিবাদ এড়িয়ে চলা প্রয়োজন। সপ্তাহের অন্তভাগে বিবাহ যোগ্য সন্তানের বিবাহ বিষয়ে আরও উদ্যোগী হওয়া প্রয়ােজন। বলবান শক্রর সঙ্গে আপাতত আপস মীমাংসা করে নেওয়াই শ্রেয়। 

বৃশ্চিকঃ এই রাশির জাতক ও জাতিকাদের পক্ষে সপ্তাহের প্রথমটা বেশ আশাপ্রদ । কর্মক্ষেত্রে পদোন্নতি দায়িত্ব বৃদ্ধি । ব্যবসায়িক ক্ষেত্রে আয়-উন্নতি বৃদ্ধির যােগ সুস্পষ্ট। সপ্তাহের মধ্যভাগে  বিকল্প  কর্মানুসন্ধানে সফলতা প্রাপ্তি। দাম্পত্যজীবনে বাকবিতণ্ডা ও মতবিরােধ এড়িয়ে চলা প্রয়োজন । সপ্তাহের অস্ত্র ভাগে প্রিয়জনের শরীর-স্বাস্থ্যের বিষয়ে সতর্কতা প্রয়ােজন। সন্তানের বিদ্যাশিক্ষায় সফলতা প্রাপ্তিতে মানসিক ভার লাগিল। প্রেম পরিণয়ে অধিক আবেগ বর্জনীয় । 

ধনুঃ সপ্তাহের প্রথমভাগে কর্মকুশলত্যার স্বীকৃতি প্রাপ্তিতে কর্মক্ষেত্রে প্রভাব-প্রতিপত্তি বৃদ্ধি । সুচিকিৎসা ও ঐশ্বরিক  কৃপায় শরীর স্বাস্থ্যের  উল্লেখযােগ্য অগ্রগতি।   সপ্তাহের মধ্যভাগে প্রেম-পরিণয়ে ভুল বােঝাবুঝির অবসানে মানসিক প্রফুল্লতা বৃদ্ধি। সপ্তাহের অন্তভাগে পারিবারিক সম্পত্তি নিয়ে স্বজন বিরােধ  তিক্ততার পর্যায়ে যেতে পারে। প্রয়ােজনে আইনি পরামর্শ নিয়ে রাখা দরকার হতে পারে। সন্তানের বিদ্যা শিক্ষায় উল্লেখযোগ্য কৃতিত্ব। 

মকর: শুভ সংকল্পের মাধ্যমে সপ্তাহটা শুরু করুন ।  অনেক দিনের আটকে থাকা জরুরি কাজগুলি সপ্তাহের প্রথমদিকেই হয়ে যেতে পারে। সপ্তাহের মধ্যভাগে গুরুজনস্থানীয় ব্যক্তির শরীর-স্বাস্থ্য বিষয়ে সতর্কতা প্রয়ােজন। সন্তানের বিদ্যাশিক্ষায় ক্রমিক অমনােযােগিতায় দুশ্চিন্তা বৃদ্ধি। সপ্তাহের অন্তভাগে প্রেম-পরিণয়ে নৈরাশ্য বৃদ্ধি। দাম্পত্যজীবনে তৃতীয় পক্ষের প্রভাব পরিহার করে চলা প্রয়োজন। শেয়ার, ,ফাটকাতে বেশ কিছু লাভের সন্ধান পেতে পারেন ।  

কুম্ভঃ  সপ্তাহের প্রথম দিকে প্রিয় জনের শরীর স্বাস্থ্যের উল্লেখযােগ্য অগ্রগতি। ব্যবসায়িক বেশ খানিকটা লাভের সন্ধান পেতে পারেন। সপ্তাহের মধ্যভাগে বিবাহযোগ্য সন্তানের বিবাহ বিষয়ক যোগাযোগ। পাওনা দারদের তাগাদায়  সামাজিক সম্মানহানি। সপ্তাহের অন্তভাগে কর্মক্ষেত্রে কর্মকুশলতার স্বীকৃতি পেলেও আর্থিকপ্রাপ্তি আশাপ্রদ নয়। দাম্পত্য জীবনে অহেতুক  আবেগ, আশা-প্রত্যাশা এড়িয়ে চলাই ভালো । 

মীনঃ আলোচ্য সপ্তাহের গোড়ার দিকটা এই রাশির বেশ শুভ  । আধ্যাত্মিক কৃপায় শরীর স্বাস্থ্যের উল্লেখযােগ্য উন্নতি। সপ্তাহের মধ্যভাগে ব্যবসায়িক ক্ষেত্রে আয় উপার্জন বৃদ্ধি। পারিবারিক বিবাদের  আপাত সমাধান। সপ্তাহের অন্তভাগে উচ্চশিক্ষা গবেষণামূলক কাজে  সফলতা প্রাপ্তি। কর্মসূত্রে দূরযাত্রা আপাতত এড়িয়ে যেতে পারলে ভালো হয় । 


সাপ্তাহিক রাশিফল ২৩ আগস্ট থেকে ২৯ আগস্ট ২০২০ সাপ্তাহিক রাশিফল ২৩ আগস্ট  থেকে  ২৯ আগস্ট ২০২০ Reviewed by WisdomApps on আগস্ট ২৩, ২০২০ Rating: 5
Blogger দ্বারা পরিচালিত.