Featured Posts

[Travel][feat1]

এই সপ্তাহের রাশিফল ১২ ই জুন থেকে ১৮ই জুন

July 12, 2020
মেষ রাশি:
এই রাশির জাতক-জাতিকাদের পক্ষে সপ্তাহটা বেশ আশাব্যঞ্জক। সপ্তাহের প্রাথমিকদিকে উপার্জন বৃদ্ধির ভাব সুস্পষ্ট। পারিবারিক সমস্যার সন্তোষজনক সমাধান। সপ্তাহের মধ্যভাগে উর্দ্ধতন কর্তৃপক্ষের অনুকূলে কর্মজগতে জটিল থেকে জটিলতর সমস্যার সমাধান। ব্যবসাক্ষেত্রে এত দিনের পরিশ্রমের ফল এবার পেতে শুরু করবেন। সপ্তাহের অন্তভাগে শরীর স্বাস্থ্যের উন্নতি। প্রবাসে বসবাসকারী আত্মীয়-পরিজনের বিষয়ে দুশ্চিন্তা বৃদ্ধি। সন্তানের বিদ্যাশিক্ষার তুলনামূলক অগ্রগতিতে মানসিক প্রশান্তি।

বৃষ রাশি: সপ্তাহের প্রথম দিকে কর্মক্ষেত্রের অত্যাধিক জটিলতা মানসিক উদ্বেগের প্রধানতম কারণ হয়ে দাঁড়াতে পারে। সন্তানের বিদ্যাশিক্ষায় অমনোযোগীতায় বৃদ্ধি। সপ্তাহের মধ্যে ব্যবসাক্ষেত্রে আয়-উপার্জন বৃদ্ধিতে মানসিক বল বৃদ্ধি। গুরুজন স্থানীয় ব্যক্তির শরীর স্বাস্থ্যের অগ্রগতি। ঋণ বৃদ্ধিতে পারিবারিক অসন্তোষ। সপ্তাহের অন্তভাগে মাত্রাছাড়া সন্দেহবাতিকতা দাম্পত্য অসন্তোষ এর অন্যতম প্রধান কারণ। প্রেমিক-প্রেমিকার অত্যাধিক আবেগপ্রবণতা বর্জনীয়।

মিথুন রাশি: সপ্তাহের প্রথম দিকেই পারিবারিক বিতর্কবিবাদ অসন্তোষের মীমাংসা করে নিতে বদ্ধপরিকর হওয়া প্রয়োজন। উচ্চতর গবেষণা অভিনয় চারুকলা ও শিল্পকলার সঙ্গে যুক্ত ব্যক্তিবর্গের পক্ষে মধ্যভাগ অত্যন্ত শুভ। বিষয় সম্পত্তি ক্রয়-বিক্রয় নিয়ে জ্ঞাতি পরিজনের সঙ্গে অশান্তি বৃদ্ধি। শরীর স্বাস্থ্যের প্রতি যত্নবান হওয়া এখনই প্রয়োজন। নতুবা বিপত্তি বৃদ্ধির যোগ সুস্পষ্ট। সপ্তাহের অন্তভাগে কর্মস্থলে প্রশাসনিক দায় দায়িত্ব মানসিক চাপ। ব্যবসা-বানিজ্যের অগ্রগতিতে মানসিক ভার লাঘব।

কর্কট রাশি: এই সপ্তাহের গোড়ার দিকে আধ্যাত্বিক কৃপায় শরীর স্বাস্থ্যের অত্যাশ্চর্য অগ্রগতিতে মানসিক বল বৃদ্ধি। উচ্চশিক্ষা বা কর্মক্ষেত্রে দায়িত্ব বৃদ্ধি কারণে দূরযাত্রার যোগাযোগ সুস্পষ্ট। সপ্তাহের মধ্যভাগে সহৃদয় ব্যবহার ও যুক্তিপূর্ণ সিদ্ধান্তে শত্রুর হৃদয় জয় করে কার্যসিদ্ধির উপায় উদ্ভাবন করে নেওয়াই শ্রেয়। নতুবা আইনি ঝামেলা বৃদ্ধি পাওয়ার যোগাযোগ থাকছে। সপ্তাহের অন্তভাগে ব্যবসাক্ষেত্রে অত্যাধিক বিনিয়োগ এখনই করার জন্য পার্টনারের চাপ বৃদ্ধি।

সিংহ রাশি: সপ্তাহের প্রথম দিকে এই রাশির জাতক-জাতিকারা মাতৃ পিতৃ শ্বশুরকুল থেকে আদর-আপ্যায়ন সহযোগিতা পেতে পারেন। প্রেম পরিণয় মতানৈক্য এড়িয়ে চলাই শ্রেয়। নতুবা মনোমালিন্য বৃদ্ধি পাওয়ার যোগ সুস্পষ্ট। সপ্তাহের মধ্যভাগটা ব্যবসায়ীদের পক্ষে বেশ আশাপ্রদ। তবে প্রয়োজনের অতিরিক্ত লগ্নিতে এখনই রাশ টানা প্রয়োজন। সপ্তাহের অন্তভাগে অপ্রাপ্তির বেদনায় নিত্য কর্তব্যে অমনোযোগিতা পারিবারিক অশান্তির কারণ হয়ে দাঁড়াতে পারে।

কন্যা রাশি: এই রাশির জাতক-জাতিকাদের পক্ষে সপ্তাহের প্রথম দিনগুলি যাবতীয় বাকবিতণ্ডা মতানৈক্য এড়িয়ে চলা উচিত। বিশেষ করে কর্মক্ষেত্রে ঠান্ডা মাথায় যাবতীয় অস্থিরতা সমাধানে উদ্যোগী হওয়া প্রয়োজন। সপ্তাহের মধ্যভাগে ব্যবসাক্ষেত্রে ঋণ বৃদ্ধি বিড়ম্বনার কারণ হয়ে দাঁড়াতে পারে। শিল্পী-কলাকুশলীদের পক্ষে সপ্তাহের অন্তঃভাগ যথেষ্ট গুরুত্বপূর্ণ। পারিবারিক জীবনে জ্ঞাতি পরিজনদের অমানবিক আচরনে হতাশা বৃদ্ধি বিদ্যাশিক্ষায় সন্তানের মনোযোগ বৃদ্ধিতে মানসিক প্রশান্তি।

তুলা রাশি: সপ্তাহের প্রথম দিকে বিকল্প উপার্জন ও স্বনির্ভর ব্যক্তিদের আয় বৃদ্ধির যোগাযোগ বেশ সুস্পষ্ট। বৃত্তি শিক্ষা কলা শিক্ষা চারুকলার সঙ্গে যুক্ত ব্যক্তিরা ও কর্মক্ষেত্রে নজর কাড়তে পারেন। সপ্তাহের মধ্য ভাগে দুর্জন ব্যক্তির অপচেষ্টা ব্যর্থ করে চাকরীক্ষেত্রে দায়দায়িত্ব সুনাম বৃদ্ধি। তৃতীয় ব্যক্তিকে ঘিরে দাম্পত্য কলহ ও পারিবারিক অসন্তোষের যথোপযুক্ত সমাধান এখনই করা প্রয়োজন। সপ্তাহের অন্তভাগে বিবাহবহির্ভূত সমস্যা সামাজিক বিড়ম্বনার কারণ হয়ে দাঁড়াতে পারে . প্রিয়জনের শরীর-স্বাস্থ্যের অগ্রগতিতে মানসিক ভার লাঘব।

বৃশ্চিক রাশি: দাম্পত্য সুরক্ষার প্রয়োজনীয় আইনি পরামর্শ ব্যবস্থাদি সপ্তাহের প্রথম দিকেই করে নেওয়া প্রয়োজন। ব্যবসাক্ষেত্রে ঢিলেঢালা মনোভাব শীঘ্র পরিহার করে আরো উদ্যোগী হওয়া প্রয়োজন। সপ্তাহের মধ্যভাগে কর্মক্ষেত্রের নিরন্তর কর্মী সংকোচনে মানসিক অস্থিরতা বৃদ্ধি। আমদানি রপ্তানি ব্যবসা নেটওয়ার্কিংয়ের ব্যবসায় বাড়তি বিনিয়োগের সুফল এবার পেতে শুরু করবেন। সপ্তাহের অন্তভাগে বহু শ্রম ও প্রচেষ্টার সুফল কর্মজগতে পাওয়ার যোগ সুস্পষ্ট প্রেম পরিণয় অত্যাধিক আবেগ বর্জন করে বাস্তবোচিত সিদ্ধান্তে অটল থাকাই সমীচীন।

ধনু রাশি: বিকল্প কর্মযোগের দীর্ঘ প্রচেষ্টার সুফল সপ্তাহের গোড়ার দিকেই পেয়ে যাবেন। ঈশ্বরের কৃপায় ব্যবসাক্ষেত্রে ধীরগতিতে হলেও আয়-উপার্জন বৃদ্ধিতে মানসিক বল বৃদ্ধি। সপ্তাহের মধ্যভাগে গৃহ সংস্কার ক্রয়-বিক্রয় সংক্রান্ত বিষয়ে জ্ঞাতি পরিজনের সঙ্গে বাদানুবাদ মনোমালিন্য। উচ্চতর বিদ্যার্জনে সফলতা স্বীকৃতিতে মানসিক প্রশান্তি। সপ্তাহের অন্তভাগে গুরুজনের পুরনো জটিল রোগ ব্যাধির উপশম। দাম্পত্য জীবনে ভুল বোঝাবুঝির অবসান।

মকর রাশি: সপ্তাহের শুরুর দিকে সন্তানের বিদ্যাশিক্ষা উত্তরোত্তর অমনোযোগীতায় হতাশা বৃদ্ধি। কর্মক্ষেত্রে অতিরিক্ত দায় দায়িত্ব বৃদ্ধিতে এতদিনের নৈরাজ্যকর অবস্থার সমাপ্তি। সপ্তাহের মধ্যভাগে বিকল্প জীবিকার আশাতিরিক্ত উপার্জনে যাবতীয় উদ্বেগ-উৎকণ্ঠার অবসান। সপ্তাহের অন্তভাগে উপযুক্ত আইন ব্যবস্থায় পুরনো মামলা-মোকদ্দমায় আপাতত স্বস্তি। সামান্য ভুল বোঝাবুঝি মনোমালিন্য কারণে পুরনো প্রেম পরিণয় যাতে আর চিড় না খায় সেজন্য এখনই উদ্যোগী হওয়া প্রয়োজন। 

কুম্ভ রাশি: পৈত্রিক সম্পত্তিতে নিকটাত্মীয়ের সন্দেহজনক মনোভাব সম্পর্কে অত্যন্ত সতর্ক হওয়া প্রয়োজন সপ্তাহের প্রথম দিকে এই ব্যাপারে আলাপ আলোচনার মাধ্যমে সমস্যার সমাধানে উদ্যোগী হওয়া আবশ্যক। উচ্চশিক্ষায় এতদিনের পরিশ্রমের স্বীকৃতি সপ্তাহের মাঝামাঝি সময়ে প্রাপ্তি হয়ে যাওয়ার যোগ সুস্পষ্ট। কর্মক্ষেত্রে ধীরগতিতে আয় উপার্জন বৃদ্ধির যোগ। অযথা তাড়াহুড়োয় ভুল সিদ্ধান্ত নেওয়া থেকে বিরত থাকা প্রয়োজন। সপ্তাহের অন্তভাগে ঈশ্বরের কৃপায় শরীর-স্বাস্থ্যের উল্লেখযোগ্য উন্নতি দাম্পত্য অসন্তোষের নিরাসন।

মীন রাশি: সপ্তাহের প্রথম দিকে শিল্পী কলাকুশলী অভিনেতাদের কর্মতৎপরতা বৃদ্ধি। পারিবারিক ক্ষেত্রে বিতর্কিত বিষয়ে মন্তব্য করা থেকে বিরত থাকুন নতুবা পারিবারিক অসন্তোষ বৃদ্ধির যোগ স্পষ্ট। সপ্তাহের মধ্যভাগে বাতবেদনায় মানসিক ও শারীরিক অসুস্থতা বৃদ্ধি। সপ্তাহের অন্তভাগে ব্যবসা-বাণিজ্যের ক্ষেত্রে উত্তরোত্তর আয়-উপার্জন বৃদ্ধিতে যাবতীয় হতাশা ও নৈরাশ্য থেকে মুক্তি। প্রেম পরিণয় বিতর্কবিবাদ অবসানে প্রফুল্লতা বৃদ্ধি।
এই সপ্তাহের রাশিফল ১২ ই জুন থেকে ১৮ই জুন এই সপ্তাহের রাশিফল ১২ ই জুন থেকে ১৮ই জুন Reviewed by WisdomApps on July 12, 2020 Rating: 5

হোমারের কিছু কথা - আপনাকে ভাবতে বাধ্য করবে

July 10, 2020


  •  কোনো অতিথি কখনই অতিথিপরায়ণ গৃহস্বামীকে ভুলে যায় না।
  •  যে অতিথি থাকতে চায় তাকে তাড়াতাড়ি বিদায় দেওয়া আর যে তাড়াতাড়ি চলে যেতে চায় তাকে ধরে রাখা সমান অপরাধ।
  •  অনেকেই যখন একটা কঠিন কাজে কাধ দেয় তখন কাজটা সহজ হয়ে যায়।
  •  নম্রতার দ্বারা অনেক কিছু অর্জন করা যায় কিন্তু ব্যয় হয় না কিছুই।
  •  পৃথিবীকে এমন অতৃতপ্তিকর আর কিছুই নেই মানুষের অভিমানী চাহিদা ছাড়া।
  •  বৃক্ষের পাতার মতো মানুষের প্রজাতি। এখন যৌবনের সবুজ কোন্টা__কোন্টা পড়ছে ঝরে। বসন্তে আসবে আর একটি প্রজন্ম-_যারা করছে তারা রেখে যাবে উত্তরাধিকার
  • অতি শিক্ষিত লোকের বৃদ্ধি কম।
  •  বর্তমানকে সঠিকভাহব পাঠ করা এবং সময়ের সঙ্গে এগিয়ে চলাই বিচক্ষণতার পরিচায়ক । 
  •  একজন সহানুভূতিশীল বন্ধু ভাইয়ের মতোই প্রিয় হতে পারে।
  •  অতিরিক্ত বিশ্রাম যন্ত্রণাদায়ক হয়ে ওঠে।
  •  বড় বড় কাজ এবং বড় বড় আবিষ্কার পারস্পরিক বিশ্বাস এবং. সহযোগিতার মাধ্যমে নিম্পন্ন হয়।
  • আমরা সবাই একদিন মরবো, এই সত্য স্বীকার করে জীবনের শেষদিন পর্যস্ত কাজ করতে করতেই মরা ভাল। টু ডাই ইন হারিনেস।
  •  বেশিরভাগ মানুষকেই অসহনীয় দুর্ভাগ্যের মোকাবিলা করতে এবং অকালে মৃত্যুর নির্মম শিকারে পরিণত হতে হয়।
  •  মানুষকে করতে হবে যুদ্ধ আর স্বর্গকে দিতে হবে সফলতা।
হোমারের কিছু কথা - আপনাকে ভাবতে বাধ্য করবে হোমারের কিছু কথা - আপনাকে ভাবতে বাধ্য করবে Reviewed by WisdomApps on July 10, 2020 Rating: 5

জীবন ও যৌনতা সম্পর্কে সিগমুন্ড ফ্রয়েডের কিছু অসাধারণ উক্তি

July 09, 2020

সিগমুন্ড ফ্রয়েড (মে ৬, ১৮৬৫- সেপ্টেম্বর ২৩, ১৯৩৯) ছিলেন একজন অস্ট্রিয় মানসিক রোগ চিকিৎসক এবং মনস্তাত্ত্বিক। তিনি "মনোসমীক্ষণ" (Psychoanalysis) নামক মনোচিকিৎসা পদ্ধতির উদ্ভাবক। ফ্রয়েড "মনোবীক্ষণের জনক" হিসেবে পরিগণিত। তার বিভিন্ন কাজ জনমানসে বিরাট প্রভাব ফেলেছে। মানব সত্বার 'অবচেতন', 'ফ্রয়েডিয় স্খলন', 'আত্মরক্ষণ প্রক্রিয়া' এবং 'স্বপ্নের প্রতিকী ব্যাখ্যা' প্রভৃতি ধারণা জনপ্রিয়তা পায়। একই সাথে ফ্রয়েডের বিভিন্ন তত্ত্ব সাহিত্য, চলচ্চিত্র, মার্ক্সবাদী আর নারীবাদী তত্ত্বের ক্ষেত্রেও গভীর প্রভাব বিস্তার করে। তিনি ইডিপাস কম্পলেক্স ও ইলেক্ট্রা কম্পলেক্স নামক মতবাদ সমূহের জন্য অধিক আলোচিত। এখানে  জীবন ও যৌনতা সম্পর্কে সিগামুন্ড ফ্রয়েডের কিছু অসাধারণ উক্তি দেওয়া হল - 


  • গণিকাবৃত্তি পৃথিবীর আদিমতম ব্যবসা । 
  • পুরুষ ও নারীর মধ্যে তেমন কোনো যৌন প্রতিদন্ধিতা নেই। শরীরের সম্পূর্ণ সুখানুভূতির জন্য তারা হলো একে অন্যের পরিপূরক।
  • প্রকৃতির নিয়মে বালিকারা যেমন এক লহমায় যুবতী হয়ে যায়, সমবয়সী পুরুষের চেয়ে শরীরে মনে অনেক বেশি পরিণত , সেই  ইঙ্গিতে তারাই আগে পা রাখে বার্ধক্যের উষর প্রান্তরে । 
  •  একথা স্বীকার করতেই হবে যে, মানবসত্তা পুরুষ ও নারীর যুগলবন্দি শুনতে চায়, তার এক হাতে পৌরুষের উদ্দাম মন্দিরা অপর হাতে নারীত্বের মরমী সেতার। এই দুই নিয়েই বেজে ওঠে জীবনের কনসার্ট। 
  •  সব পূর্ণতারই থাকে নিজস্ব অহমিকা।
  •  কিছু কিছু যৌন নির্ভরশীলতা হলো আবশ্যকীয়, যা প্রেমের বাধনকে সুসংহত ও সুসংবদ্ধ করে।
  • একটি সুন্দরী নারী দর্শনে পুরুষের  মনে এবং একটি বলিষ্ঠ স্বাস্থ্যের সুপুরুষ দর্শনে নারীর মনে আসক্তি ও কামভাব জাগ্রত হবে এটাই তো স্বাভাবিক। এই স্বাভাবিকত্বের মধ্যে যারা অন্যায় ও পাপ অনুসন্ধানে তৎপর হয়, তারা অসুস্থ মস্তিস্ক । 
  •  যে মেয়ে একবার তুলে দেয় শরীরের সমস্ত উপহার, সে কিছুতেই ভুলতে পারে না সেই প্রেমিক অথবা সুপুরুষের মুখ। 
  • সেক্স ব্যতীত প্রেম অলীক কল্পনা মাত্র।
  • রমণীত্ব হলো সেই গুণ, যা নারীকে বহু পুরুষের চোখে ভোগ্যা করে তোলে।
  • আমার মতে যে কোনো শিশুই স্বার্থপর, অপরাধপ্রবণ এবং আত্মসুখী। শিশুর যদি পর্যাপ্ত শক্তি সাধ্য থাকতো তাহলে সে গোটা পৃথিবীটাকে বুঝি ধ্বংস করে ফেলতো।
  • যৌন ইচ্ছা কোনো পাপের পরিণতি নয়, এ হলো জীবনের স্বাভাবিক সুন্দর বহিঃপ্রকাশ।
জীবন ও যৌনতা সম্পর্কে সিগমুন্ড ফ্রয়েডের কিছু অসাধারণ উক্তি জীবন ও যৌনতা সম্পর্কে সিগমুন্ড ফ্রয়েডের কিছু অসাধারণ উক্তি Reviewed by WisdomApps on July 09, 2020 Rating: 5

এই সপ্তাহের রাশিফল ০৫ই জুলাই থেকে ১১ই জুলাই

July 05, 2020
মেষ রাশি:
কর্মক্ষেত্রে দায়িত্ব বৃদ্ধি মাধ্যমে সপ্তাহটি শুরু হতে পারে। ব্যবসা-বাণিজ্যের ধীরগতিতে ,অগ্রগতিতে ধৈর্য বজায় রাখা প্রয়োজন। সপ্তাহের মধ্যে ভাগে দাম্পত্য কলহের কারণে পারিবারিক শান্তি বিঘ্নিত হতে পারে। বিবাহযোগ্য পুত্র-কন্যাকে নিয়ে দুশ্চিন্তা বৃদ্ধি। শেয়ার ফাটকা লটারিতে অত্যাধিক লগ্নি করা উচিত হবে না। সপ্তাহের অন্তভাগে বৃত্তিগত প্রশিক্ষণ, চারুকলা, হস্তশিল্পে প্রতিভার স্বীকৃতি। আধ্যাত্বিক কৃপায় শরীর স্বাস্থ্যের উন্নতিতে মানসিক বল বৃদ্ধি। সন্তানের বিদ্যাশিক্ষায় মনসংযোগ হীনতায় হতাশা বৃদ্ধি।

বৃষ রাশি: এই সপ্তাহের প্রথম দিকেই পুরনো মামলা-মোকদ্দমা, আইনি সমস্যায় সুনিশ্চিত ও আইনি পরামর্শ নেয়ার আবশ্যকতা দেখা দিতে পারে। ব্যবসায় বৃদ্ধিতে আরো বেশি উদ্যমী হওয়ার প্রয়োজন দেখা যাচ্ছে। সপ্তাহের মধ্যভাগে বিরূপ সহকর্মীর উস্কানিতে কর্মক্ষেত্রে অস্থিরতা বৃদ্ধি পেতে পারে। ঠান্ডা মাথায় উক্ত সমস্যা সমাধানে উদ্যোগী হওয়া প্রয়োজন। সপ্তাহের অন্তভাগে নিজের ও পরিবারের সদস্যদের সম্মান রক্ষায় বাড়তি সতর্কতার প্রয়োজন হতে পারে। উপস্থিত বুদ্ধি ও সময়োচিত সিদ্ধান্ত ব্যবসায় ভরাডুবি কাটিয়ে অগ্রগতি। 

মিথুন রাশি: এই রাশির জাতক জাতিকাদের আলোচ্য সপ্তাহের প্রথম দিকে বেশি দূরবর্তী যাত্রা এড়িয়ে যাওয়া প্রয়োজন। কর্ম ক্ষেত্রে বহু প্রত্যাশিত দায়িত্ব বৃদ্ধি পদোন্নতিতে মানসিক প্রফুল্লতা, সপ্তাহের মধ্যভাগে আয় উপার্জন বৃদ্ধি, দূরযাত্রা। প্রেম পরিণয় বিতর্কবিবাদ মানসিক স্থিরতা ভঙ্গ হতে পারে। সপ্তাহের অন্তভাগে ব্যবসায়ীদের ব্যবসা বৃদ্ধির সুযোগ আসতে পারে। স্থির সংকল্পের মাধ্যমে পুরনো গৃহবিবাদের সন্তোষজনক সমাধান।

কর্কট রাশি: সপ্তাহের প্রথম দিকে আয় উপার্জন বৃদ্ধির সুবর্ণ সুযোগ কাজে লাগাতে আরো উদ্যোগী হওয়া প্রয়োজন। শত্রুর সঙ্গে এখনো সংঘাতে না গিয়ে আপস মীমাংসা করে করে নেওয়াই বুদ্ধিমানের কাজ হিসেবে পরিগণিত হতে পারে। সপ্তাহের মধ্যযুগের সন্তানের বিদ্যাশিক্ষায় অগ্রগতি। প্রেম পরিণয়ে নৈরাশ্যের অবসান ঘটিয়ে রাগ অনুরাগ এর প্রাবল্য। সপ্তাহের আদ্যভাগে ভেষজ চিকিৎসা, যোগ, প্রাণায়াম শরীর-স্বাস্থ্যের অভূতপূর্ব অগ্রগতি। ঋণ আদায়কারী সংস্থার আচরণে সামাজিক সম্মানহানি।

সিংহ রাশি: মন ও বুদ্ধির অস্থিরতায় কর্ম ক্ষেত্রে সঠিক সিদ্ধান্ত নিরূপণে সিদ্ধান্তহীনতা। এই কারণে সপ্তাহের প্রথম দুই দিন কোন দৃঢ় সিদ্ধান্ত না নেওয়ায় শ্রেয়। সপ্তাহের মধ্যভাগে ব্যবসা-বাণিজ্যের ক্রমিক অগ্রগতিতে মানসিক অস্থিরতার অবসান। উচ্চতর বিদ্যার্জন, গবেষণামূলক অধ্যয়নে সফলতা। সপ্তাহের অন্তভাগে কর্মসূত্রে দূরযাত্রার প্রয়োজন দেখা দিলেও তা এড়িয়ে যেতে পারলে ভালো হয়। জ্ঞাতি পরিজনদের হৃদয়হীন আচরণে পারিবারিক শান্তি বিঘ্নিত।

কন্যা রাশি: এই সপ্তাহের গোড়ার দিকে সৃজনশীল উৎপাদনমূলক ও ইমারতি দ্রব্য ব্যবসার সঙ্গে যুক্ত ব্যক্তিরা ব্যবসা-বাণিজ্য বেশ কিছুটা সফলতা আশা করতে পারেন। সপ্তাহের মধ্যভাগে পারিবারিক ও দাম্পত্য জীবনা মতানৈক্য এড়িয়ে চলাই শ্রেয়। প্রেম পরিণয়ে বিতর্ক এড়িয়ে চলুন। সপ্তাহের অন্তভাগে ঋণ পরিশোধে মানসিক ভার লাঘব। অঙ্কন, চারুকলা, অভিনয় ও অন্যান্য শিল্পকর্মের সঙ্গে যুক্ত ব্যক্তিদের নতুন কর্মদ্যম ও কর্মপ্রেরণার সঞ্চার।

তুলা রাশি: এই জাতির জাতক-জাতিকাদের সপ্তাহের প্রথম দিকে কর্মক্ষেত্রের নতুন দায়িত্ব ন্যস্ত হতে পারে। ব্যবসাক্ষেত্রে ঋণ বৃদ্ধিতে মানসিক চাপ বৃদ্ধি। সপ্তাহের মধ্যভাগে জমি সম্পত্তি ক্রয়-বিক্রয়ের জ্ঞাতি পরিজনদের সঙ্গে মনোমালিন্য। বলবান শত্রুর কার্যকলাপ সম্পর্কে সজাগ দৃষ্টি রাখা প্রয়োজন। প্রবাসী আত্মীয়ের শরীর স্বাস্থ্য নিয়ে উৎকণ্ঠা বৃদ্ধি। সপ্তাহের অন্তভাগে পারিবারিক মতবিরোধের সন্তোষজনক মীমাংসা। সন্তানের বিদ্যাশিক্ষায় ক্রমিক অবনতিতে উদ্বেগ বৃদ্ধি।

বৃশ্চিক রাশি: সপ্তাহের প্রথম দিকে কারিগরি বিষয়, বৃত্তিমূলক প্রশিক্ষণ, হস্ত সূচি শিল্পের সঙ্গে যুক্ত ব্যক্তিবর্গের কর্মসংস্থানের নতুন দিগন্ত উন্মোচন।  প্রেমিক-প্রেমিকাদের পক্ষে সপ্তাহটি বেশ ভালোই যাবে। সপ্তাহের মধ্যভাগে কর্মক্ষেত্রে যে অনুযায়ী দায়িত্ব বৃদ্ধি হবে সেই অনুযায়ী স্বীকৃতি প্রাপ্তিতে বাধাবিঘ্ন। ব্যবসাক্ষেত্রে সন্তোষজনক অগ্রগতি। সপ্তাহের অন্তভাগে গুরুজনের স্বাস্থ্য নিয়ে দুশ্চিন্তার কারণ না থাকলেও সতর্কতাতা আবশ্যক।

ধনু রাশি: সপ্তাহের প্রথম দিকে কর্মক্ষেত্রে অত্যধিক জটিলতা মানসিক উদ্বেগের প্রধানতম কারণ হয়ে দাঁড়াতে পারে। উর্দ্ধতন কর্তৃপক্ষের সঙ্গে বিতর্কে না গিয়ে আপস করে নেওয়ায় এই মুহূর্তে সমীচীন।  সপ্তাহের মধ্যভাগে আয়ের থেকে ব্যয়ের ভাব বেশি। পাওনাদারের নিত্যনৈমিত্তিক তাগাদা বিড়ম্বনার কারণ হয়ে দাঁড়াতে পারে। দাম্পত্য জীবনে অতিরিক্ত আশা-প্রত্যাশা না করাই বাঞ্ছনীয়। সপ্তাহের অন্তভাগে প্রবাসী আত্মীয় স্বজনের খোঁজ খবরে মানসিক ভার লাঘব। উচ্চতর বিদ্যা, গবেষণামূলক কাজের সঙ্গে যুক্ত ব্যক্তিদের পক্ষে সপ্তাহটি অত্যন্ত ফলপ্রদ বলে বিবেচিত হতে পারে।

মকর রাশি: কর্ম জগতে নিত্যনৈমিত্তিক কর্মী সংকোচনের ঘটনা সপ্তাহের প্রথম দিকে মানসিক চাপ বৃদ্ধি করতে পারে। ব্যবসাক্ষেত্রে অনেকদিনের শ্রম ও প্রচেষ্টার শুভফল এবার হাতেনাতে পাবেন। সপ্তাহের মধ্যভাগে স্বামী-স্ত্রীর বোঝাপড়ায় তৃতীয় পক্ষের অবান্তর আগমন অশান্তির কারণ হতে পারে। তাই উক্ত বিষয়ে সতর্ক থাকা প্রয়োজন। সপ্তাহের আদ্যভাগে শেয়ার, ফাটকা, লটারিতে অর্থাগম মানসিক প্রফুল্লতা।

কুম্ভ রাশি: সপ্তাহের প্রথম দিকে এই রাশির জাতক-জাতিকারা বিকল্প কর্মানুসন্ধানা সফলতা লাভ করতে পারে। ব্যবসাক্ষেত্রে ধীরে ধীরে আয় উপার্জন বৃদ্ধি সুস্পষ্ট। সপ্তাহের মধ্যভাগে বিদ্যাশিক্ষা, কারিগরি ও বৃত্তিমূলক প্রশিক্ষনে সন্তোষজনক অগ্রগতিতে, গুরুজনস্থানীয় ব্যক্তির শরীর স্বাস্থ্যের অগ্রগতিতে মানসিকভার লাঘব। পুরানো মামলা-মোকদ্দমায় জটিলতা বৃদ্ধি উক্ত বিষয়ে আইনি ব্যবস্থা নেওয়া জরুরী।

মীন রাশি: সপ্তাহের প্রথম ভাগেই উপস্থিত বুদ্ধি ও প্রত্যুতপন্নমতিত্ব কর্মক্ষেত্রে শত্রুতা সৃষ্টিকারী ব্যক্তির ষড়যন্ত্র প্রতিহত করতে সফল হবেন। সপ্তাহের মধ্যভাগে আইনজীবী, চিকিৎসক ,জরুরি পরিষেবায় যুক্ত ব্যক্তিবর্গের উপার্জন বৃদ্ধির যোগ সুস্পষ্ট। আধ্যাত্মিক কৃপায় বহু পুরনো রোগ ব্যাধির উপশম। সপ্তাহের অন্তভাগে উত্তরাধিকার সূত্রে প্রাপ্ত সম্পত্তি ক্রয়-বিক্রয় বন্টনা দিতে জ্ঞাতি, পরিজনদের সঙ্গে মনোমালিন্য। প্রেম পরিণয়ে সন্তোষজনক মীমাংসায় মানসিক প্রফুল্লতা বৃদ্ধি।
এই সপ্তাহের রাশিফল ০৫ই জুলাই থেকে ১১ই জুলাই এই সপ্তাহের রাশিফল ০৫ই জুলাই থেকে ১১ই জুলাই Reviewed by WisdomApps on July 05, 2020 Rating: 5

এই সপ্তাহের রাশিফল - ২৮শে জুন থেকে ০৪ই জুলাই

June 28, 2020


মেষঃ সপ্তাহটা এই রাশির জাতক/জাতিকার পক্ষে বেশ চ্যালেঞ্জিং। সপ্তাহের প্রথম দিকেই অনেক জমে থাকা কাজ করে নেওয়ার প্রয়োজন। সহৃদয় শুভাকাঙ্খীর মধ্যস্থতায় বিতর্ক বিবাদের নিষ্পত্তি হয়ে যেতে পারে। সম্পত্তিজনিত বিষয়ে দৃঢ় অবস্থানে প্রতিপক্ষ পরাভুত। সপ্তাহের মধ্যভাগে আয়-উপার্জনের ক্রমিক অগ্রগতি। পারিবারিক সমস্যায় বহুকাঙ্খিত আপস-মিমাংসা। দূরবর্তী স্থলে কর্মরত প্রিয়জনের বিষয়ে অত্যাধিক দুশ্চিন্তা করা অর্থহীন। সপ্তাহের অন্তভাগে শরীর-স্বাস্থ্যের প্রভূত উন্নতি। উচ্চতর বিদ্যায় সন্তোষজনক অগ্রগতি।

বৃষঃ এই রাশির জাতক/জাতিকাদের পক্ষে সপ্তাহটা খুব একটা আশাপ্রদ নয়। কর্মক্ষেত্রে অস্থিরতা বৃদ্ধি মানসিক চাপের প্রধান কারণ হয়ে দাঁড়াতে পারে। সপ্তাহের প্রথম দিকে ব্যায়ভাবও যথেষ্ট বেশি। ব্যাবসা ক্ষেত্রে এই সময় বেশি ঝুঁকি না নেওয়াই শ্রেয়। সপ্তাহের মধ্যভাগে দৈব কৃপায় কর্মক্ষেত্রে জটিলতার সাময়িক আবসান। বিকল্প উপার্জনের নতুন দিশায় যাবতীয় হতাশার অবসান। সপ্তাহের অন্তভাগে প্রেম-পরিণয়ে অহেতুক বিতর্ক-বিবাদ এড়িয়ে চলাই শ্রেয়। যোগ/প্রানায়াম/মানসিক দৃঢ়তায় বেশ কিছুদিন ধরে চলতে থাকা শারীরিক সমস্যার আশাতীত সমাধান।

মিথুনঃ সপ্তাহের প্রথম দিকেই কর্মক্ষেত্রে দায়-দায়িত্ব বৃদ্ধি হতে পারে। আশানুরুপ আয়-উপার্জন না হওয়ায় ব্যাবসায়ীদের হতাশা বৃদ্ধি। সপ্তাহের মধ্যভাগে সন্তানের শরীর-স্বাস্থ্য, বিদ্যার্জনের সন্তোষজনক অগ্রগতিতে অনেকদিন ধরে পুঞ্জিভুত মানসিক ভার লাঘব। সম্পত্তি রক্ষায় আইনি পরামর্শ নেওয়া জরুরি। শক্তিশালী, প্রতিপক্ষের সঙ্গে সম্মানজনক আপসে মানসিক বল বৃদ্ধি। সপ্তাহের অন্তভাগে দাম্পত্য জীবনে জটিলতা বৃদ্ধি। শিল্পী, কলাকুশলীদের কাজকর্মের ক্রমিক অগ্রগতিতে নতুন আশা-আকাঙ্খার সঞ্চার।

কর্কটঃ এই রাশির জাতক/জাতিকার সপ্তাহের গোড়ার দিকে বেশ কিছুটা অপ্রাত্যশিতভাবেই বিকল্প কর্মানুসন্ধানে সাফল্য পেতে পারেন। সন্তানের বিদ্যা শিক্ষায় আমনোযোগিতা দুশ্চিন্তার কারণ হতে পারে। সপ্তাহের মধ্যভাগে ব্যাবসা-বাণিজ্যের ক্রমিক অগ্রগতিতে আত্মবিশ্বাস বৃদ্ধি। স্বামী-স্ত্রীর সম্পর্কের উন্নতি। সপ্তাহের অন্তভাগে পুরানো মামলা-মোকদ্দমায় আইনি জটিলতা বৃদ্ধি হতে পারে। প্রেম-পরিণয়ে অত্যাধিক আবেগ প্রবণতায় লাগাম দেওয়াই সমীচীন।

সিংহঃ সপ্তাহের শুরুর দিকটা অত্যন্ত সাবধানতার মাধ্যমে অতিবাহিত করে নেওয়াই দূরদর্শিতার পরিচায়ক। সপ্তাহের মধ্যবর্তী সময় থেকেই ব্যাবসা-বাণিজ্যের সন্তোষজনক অগ্রগতি। আয় উপার্জন বৃদ্ধি। বাস্তুজনিত জটিলতার সমস্যাগুলির দিকে এবার নজর দেওয়া আবশ্যক। সপ্তাহের অন্তভাগে ঘনিষ্ঠ বন্ধু, আত্মীয় পরিজনের উদাসীন আচরণে হতাশা বৃদ্ধি। ঋন বৃদ্ধিতে মানসিক চাপ। কর্মক্ষেত্রে সন্তানের অগ্রগতিতে মানসিক প্রফুল্লতা বৃদ্ধি।

কন্যাঃ কর্মক্ষেত্রে নতুন করে জটিলতা বৃদ্ধিতে মানসিক অবসাদ। সপ্তাহের প্রথম দিকে পাওনাদারের তাগাদায় বিড়ম্বনা বাড়তে পারে। দু'চাকার বাহন ক্রয়ের উদ্যোগ। সপ্তাহের মধ্যভাগে গুরুজন স্থানীয় ব্যাক্তির শরীর-স্বাস্থ্যের সন্তোষজনক অগ্রগতিতে মানসিক ভার লাঘব। প্রেম-পরিণয়ে প্রিয়জনের উন্নাসিক আচরণে হতাশা বৃদ্ধি। সপ্তাহের  অন্তভাগে বিদ্যাশিক্ষায় সন্তানের ক্রমিক আবনতিতে দুশ্চিন্তা বৃদ্ধি। সুম্পত্তি সুরক্ষায় আইনি পদক্ষেপ নির্ণয়। 

তুলাঃ সপ্তাহের প্রথম দিকে ব্যাবসা-বাণিজ্যের অগ্রগতি সম্পর্কে বিচার-বিশ্লেষণ। সম্পত্তিজনিত বিষয়ে সুচিন্তিত আইনি পরামর্শ করে নেওয়া অত্যন্ত আবশ্যক। সপ্তাহের মধ্যভাগে হাঁটু, অস্থি, বাতজ বেদনায় ক্লেশ। আত্মীয়-স্বজনের বিরূপ আচরণে গৃহ পরিবেশের শান্তি-শৃঙ্খলায় বিঘ্ন। সপ্তাহের অন্তভাগে আয়-উপার্জন বৃদ্ধিতে মানসিক প্রফুল্লতা। কর্মক্ষেত্রে গুপ্তশত্রুতায় মদত দেওয়া ব্যাক্তির স্বরুপ উদ্ঘাটন। সন্তানের বিদ্যা শিক্ষায় মনোযোগহীন্তায় দুশ্চিন্তা বৃদ্ধি। 

বৃশ্চিকঃ এই রাশির জাতক/জাতিকাদের কীটপতঙ্গ, জীবাণুঘটিত রোগ সংক্রমণের ব্যাপারে যথেষ্ট সজাগ থাকা প্রয়োজন। জ্ঞাতি-শত্রুর চক্রান্তের যথোপযুক্ত জবাবে মনোবল বৃদ্ধি। সপ্তাহের মধ্যভাগে কর্মক্ষেত্রে শ্রম, অধ্যাবসায়ের স্বীকৃতিহীনতায় হতাশা বৃদ্ধি। ব্যাবসায়িদের অত্যাধিক পরিশ্রমে শারীরিক ক্লান্তি। সপ্তাহের অন্তভাগে বিষয় সম্পত্তি ক্রয়-বিক্রয়ে জ্ঞাতি-পরিজনের সঙ্গে মতান্তর। দাম্পত্য জীবনে স্বামী-স্ত্রি'র যৌথ বোঝাপড়ায় জ্ঞাতি শত্রুর চক্রান্ত দমনে সাফল্য।

ধনুঃ সপ্তাহের প্রথম দিকে সহৃদয় ব্যাক্তির সহযোগিতায় বিকল্প কর্মানুসন্ধানে সফলতা। পুরানো কর্মক্ষেত্রে যদিও অস্থিরতা বজায় থাকবে। সপ্তাহের মধ্যভাগে ঘনিষ্ঠ জনের প্রতারণায় অর্থ ক্ষতির আশঙ্কা। সম্পত্তি সংস্কার বা গৃহ নির্মাণ/ক্রয়ের পরিকল্পনা আপাতত স্থগিত রাখাই শ্রেয়। সপ্তাহের অন্তভাগে আয়-উপার্জনের ক্রমিক অগ্রগতিতে মানসিক ভার লাঘব। গুরুজন স্থানীয় ব্যাক্তির শরীর-স্বাস্থ্যের সন্তোষজনক অগ্রগতি। 

মকরঃ সপ্তাহের প্রথম দিকে বলবান প্রতিপক্ষের ক্রিয়া-কলাপের প্রতি সজাগ দৃষ্টি দেওয়া দরকার। প্রয়োজনে আইনি ব্যাবস্থা নেওয়া জরুরি হয়ে পড়তে পারে। সপ্তাহের মধ্যভাগে ব্যাবসা-বাণিজ্যের সন্তোষজনক অগ্রগতিতে মানসিক প্রফুল্লতা বৃদ্ধি। শেয়ার, ফটকা, লটারিতে অপ্রত্যাশিত আয়। সপ্তাহের অন্তভাগে সুচিকিৎসায় শরীর-স্বাস্থ্যের সন্তোষজনক অগ্রগতি। সন্তানের বিদ্যাশিক্ষায় মনঃসংযোগ হ্রাসে দুশ্চিন্তা বৃদ্ধি। 

কুম্ভঃ স্বনিযুক্তি প্রকল্প/বিকল্প অর্থোপার্জনের অন্তরিক অধ্যাবসায়ের শুভ ফল এই সপ্তাহের প্রথম দিকেই মিলতে পারে। তবে অধিক উৎসাহে অতিরিক্ত লগ্নি না করাই শ্রেয়। সপ্তাহের মধ্যভাগে গুরুজন স্থানীয় ব্যাক্তির শরীর-স্বাস্থ্যের ক্রমিক অবনতি দুশ্চিন্তার কারণ হয়ে দাঁড়াতে পারে। সপ্তাহের অন্তভাগে জ্ঞাতি-পরিজনের বিরূপ আচরণে পারিবারিক শান্তি বিঘ্নিত হতে পারে। প্রেম-পরিণয়ে ভুল বোঝাবুঝির অবসানে মানসিক ভার লাঘব।

মীনঃ সপ্তাহের প্রথম দিকে কর্মক্ষেত্রে অতিরিক্ত দায়িত্ব বৃদ্ধিতে আত্মবিশ্বাস টালমাটাল হতে পারে। উচ্চতর বিদ্যার্জনে যৎপরনস্তি সাফল্য লাভ। সপ্তাহের মধ্যভাগে ব্যায়ভাব বেশি। ন্যুনতম সঞ্চয়ে এখনই উদ্যোগী হওয়া প্রয়োজন। দাম্পত্য জীবনে অতিরিক্ত আশা-প্রত্যাশাতে হতাশা বৃদ্ধির যোগ। সপ্তাহের অন্তভাগে ব্যাবসা-বাণিজ্যে অপ্রত্যাশিত অগ্রগতি। শরীর-স্বাস্থ্যের বিষয়ে সতর্কতা অত্যন্ত প্রয়োজন। নতুবা আকস্মিক স্বাস্থ্যহানির যোগ। প্রেম পরিণয়ে নৈরাশ্য বৃদ্ধি। বলবান শত্রুর সঙ্গে সন্তোষজনক সন্ধি। 
এই সপ্তাহের রাশিফল - ২৮শে জুন থেকে ০৪ই জুলাই এই সপ্তাহের রাশিফল - ২৮শে জুন থেকে ০৪ই জুলাই Reviewed by WisdomApps on June 28, 2020 Rating: 5

এই সপ্তাহের রাশিফল- ২১শে জুন থেকে ২৭শে জুন

June 21, 2020





মেষঃ সপ্তাহের শুরুটা সুসংবাদ দিয়েই হতে পারে। পুরনো জটিল রোগের থেকে অনেকটা সুরাহা মিলতে পারে। স্বামী-স্ত্রীর সম্পর্কের উন্নতি। সপ্তাহের মধ্যভাগে ব্যাবসায়িক ক্ষেত্রে ধীরে ধীরে আয়-উপার্জন বৃদ্ধির যোগ। প্রেম-পরিণয়ে অহেতুক বিতর্ক-বিবাদ এড়িয়ে চলাই শ্রেয়। সন্তানের পড়াশুনায় মনোযোগ বৃদ্ধি। সপ্তাহের অন্তভাগে উত্তরাধিকার সূত্রে প্রাপ্ত সম্পত্তি থেকে আয়-উপার্জন। শক্তিশালী প্রতিপক্ষের সঙ্গে সন্তোষজনক বোঝাপড়া।

বৃষঃ এই রাশির জাতক/জাতিকাদের সপ্তাহের প্রথমদিকটা খুব সাবধানতার মাধ্যমে চলতে হবে। শরীর-স্বাস্থ্যের দিকটা আর বেশি অবহেলা না করাই সমীচীন। সপ্তাহের মধ্যভাগে আয়-উপার্জন বৃদ্ধি হলেও ব্যায়ভাবও ততোধিক থাকছে। উচ্চতর বিদ্যায় অগ্রগতি বেশ আশাপ্রদ। প্রেম-পরিণয়ে বিতর্ক-বিবাদের আবসানে মানসিক ভার লাঘব। সন্তানের অন্তভাগে দূরে বসবাসকারী প্রিয়জন, নিকট আত্মীয় সম্পর্কে দুশ্চিন্তা বৃদ্ধি। কর্মসংস্থান কর্তৃপক্ষের উদাসীনতায় হতাশা বৃদ্ধি। 

মিথুনঃ কর্মক্ষেত্রে জটিলতা বৃদ্ধির মধ্যমে সপ্তাহটা শুরু হতে পারে। তবে বিকল্প কর্মসংস্থান/ উপার্জনের সম্ভাবনাও বেশ প্রবল। দাঁতের যন্ত্রণা, বাতজবেদনা, পুরনো জটিল রোগে কাহিল হতে পারেন। সপ্তাহের অন্তভাগে পারিবারিক সমস্যা- সংকটের সন্তোষজনক বোঝাপড়ায় মানসিক ভার লাঘব। কর্মক্ষেত্রে জটিল সমস্যার কিছুটা সুরাহায় মানসিক বল বৃদ্ধি। 

কর্কটঃ এই সপ্তাহের প্রথম দিকটা মিশ্র। তাই সবদিক থেকে সতর্ক, সজাগ থাকা প্রয়োজন। বলবান প্রতিপক্ষের সঙ্গে প্রয়োজনীয় সমঝোতা করে নেওয়াই শ্রেয়। সপ্তাহের মধ্যভাগে ব্যাবসা ক্ষেত্রে ক্রমিক অগ্রগতিতে অনেকদিনের জমে থাকা মানসিক চাপ লাঘব। শরীর-স্বাস্থ্যের প্রতি যত্নবান হওয়া প্রয়োজন। সপ্তাহের অন্তভাগে ব্যায়ভাব বেশি হওয়ার যোগ। অত্যধিক ঋনে রাশ টেনে নেওয়া এখনই প্রয়োজন।

সিংহঃ এই রাশির জাতক/জাতিকার সপ্তাহের প্রথমদিকে বেশ কয়েকটা ক্ষেত্রে শুভ ফলের আশা করতে পারেন। বিশেষ করে আয়-উপার্জন বৃদ্ধির শুভ যোগ তো বেশ সুস্পষ্ট। সপ্তাহের মধ্যভাগে পাওনাদারের তাগদা বেশ বিড়ম্বনার সৃষ্টি করতে পারে। প্রিয়জনের আচর-আচারণ উদসীনতায় হতাশা বৃদ্ধি। সপ্তাহের অন্তভাগে গুরুজনস্থানীয় ব্যাক্তির শরীর-স্বাস্থ্যের প্রভূত উন্নতি কর্মক্ষেত্রে বহুদিন ধরে চলে আসা অচলাবস্থার অবসানে মানসিক ভার লাঘব। 

কন্যাঃ সপ্তাহের প্রথমদিকটা যথেষ্ট চাপের। আয়-ব্যায়ের সমতা বিধানের জন্য সচেষ্ট হওয়া এখনই প্রয়োজন। সপ্তাহের মধ্যভাগে কায়িক শ্রম বৃদ্ধি। পড়াশুনা, উচ্চতর গবেষণামূলক কার্যে বহুদিনের প্রচেষ্টা, প্রয়াসের স্বীকৃতিতে মানসিক প্রফুল্লতা বৃদ্ধি। পারিবারিক ক্ষেত্রে মতবিরোধ, মনোমালিন্য, এড়িয়ে যাওয়াই শ্রেয়। সপ্তাহের অন্তভাগে ব্যাবসা-বাণিজ্যের সন্তোষজনক অগ্রগতিতে মানসিক অবসাদ থেকে কিছুটা মুক্তি। 

তুলাঃ এই রাশি জাতক/জাতিকার আলোচ্য সপ্তাহের প্রথম দিকে বেশকিছু ক্ষেত্রে দূরদর্শী, চিন্তাভাবনার সুফল পেতে শুরু করবেন। বিশেষত শত্রুদমন, ব্যাবসায়িক উদ্যোগ, সুম্পত্তিজনিত বিষয়ে বেশ আশা-আকাঙ্খার সঞ্চার হতে পারে। সপ্তাহের মধ্যভাগে পারিবারিক বিতর্ক বিবাদের নিস্পত্তিতে মানসিক ভার লাঘব। প্রিয়জনের জন্য দুশ্চিন্তা বৃদ্ধি। সপ্তাহের অন্তভাগে বাস্তুজনিত বিষয়ে অস্বস্তি বাড়তে পারে। ত্বকের সমস্যা, চক্ষু-পীড়া, হজমের গোলমাল বৃদ্ধির যোগ রয়েছে। সতর্কতা আবশ্যক।

বৃশ্চিকঃ এই সপ্তাহের গোড়ার দিকে পাওনাদারের তাগাদা যথেষ্ট অস্বস্তির কারণ হয়ে দাঁড়াতে পারে। শরীর-স্বাস্থ্যের দিকে নজর দেওয়া এখনই প্রয়োজন। ভগবানের কৃপায় কর্মক্ষেত্রে অনেকদিন ধরে চলে আসা অচলাবস্থার অবসানে মানসিক ভার লাঘব। সপ্তাহের মধ্যভাগে আয়-উপার্জন বৃদ্ধিতে মানসিক বল বৃদ্ধি। স্বামী-স্ত্রীর সম্পর্কের উল্লেখযোগ্য উন্নতি। সপ্তাহের অন্তভাগে শেয়ার-ফটকা-লটারিতে লোকসানের সম্ভাবনা। সম্পত্তিজনিত বিষয়ে গুরুত্বপূর্ণ সিদ্ধান্ত নেওয়ার আবশ্যকতা। 

ধনুঃ তুলানমূলকভাবে এই সপ্তাহটা বেশ শুভ। সপ্তাহের প্রথমদিকেই পারিবারিক ক্ষেত্রে ভুল বোঝাবুঝির অবসানে মানসিকভার লাঘব। আধ্যাত্মিক কৃপায়-শরীর-স্বাস্থ্যের উল্লেখযোগ্য উন্নতি। সপ্তাহের মধ্যভাগে ব্যাবসাক্ষেত্রে ঋন বৃদ্ধি। বিদ্যা- শিক্ষায় মনঃসংযোগ বৃদ্ধি। প্রেম-পরিণয়ে নৈরাশ্য বৃদ্ধি। সপ্তাহের অন্তভাগে কর্মক্ষেত্রে অতিরিক্ত দায়িত্ব বৃদ্ধি। ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের উদাসীন আচরণে হতাশা বাড়তে পারে। বিকল্প রোজগারে নতুন দিগন্তের উন্মোচনে মানসিক বল বৃদ্ধি।

মকরঃ এই রাশির জাতক/জাতিকাদের পক্ষে সপ্তাহের প্রথমদিকটা মিশ্র ফল দেবে। কর্মক্ষেত্রে নতুন দায়িত্ব বৃদ্ধি। পারিবারিক ক্ষেত্রে মনোমালিন্য অবসানে মানসিক ভার লাঘব। সপ্তাহের মধ্যভাগে ব্যাবসা-বাণিজ্যে ক্রমিক অগ্রগতিতে মানসিক বল বৃদ্ধি। প্রেম-পরিণয়ে বিতর্ক-বিবাদের অবসান। সপ্তাহের অন্তভাগে উচ্চশিক্ষায় সন্তোষজনক অগ্রগতি। মামলা-মোকদ্দমা-পুলিশি ঝামেলায় উপযুক্ত আইনি পরামর্শ নেওয়ার ক্ষেত্রে আর বিলম্ব ঠিক হবে না।

কুম্ভঃ সপ্তাহের প্রথমদিকেই আধ্যাত্মিক কৃপায় শরীর-স্বাস্থ্যের উল্লেখযোগ্য উন্নতিতে মানসিক বল বৃদ্ধি। বাস্তুজনিত পুরনো সমস্যায় অস্থিরতার বৃদ্ধির যোগ রয়েছে। সপ্তাহের মধ্যভাগে ব্যাবসা-বাণিজ্য আশাতীত অগ্রগতি। সন্তানের বিদ্যাশিক্ষায় মনঃসংযোগ হ্রাসে হতাশা বৃদ্ধি। সপ্তাহের অন্তভাগে কর্মক্ষেত্রে গোলোযোগ বাড়তে পারে। আত্মবিশ্বাস বজায় রেখে সিদ্ধান্ত নেওয়া প্রয়োজন। পুরানো বন্ধু, সহকর্মীর কর্কশ/উদাসীন আচরণে হতাশা বৃদ্ধি।

মীনঃ এই সপ্তাহের প্রথম দু'দিন অত্যাধিক গুরুত্বপূর্ণ। বিবেচনার সঙ্গে সিদ্ধান্ত নেওয়া প্রয়োজন। কর্মক্ষেত্রে মতান্তর এড়িয়ে চলাই সমীচীন। সপ্তাহের মধ্যভাগে ব্যাবসা-বাণিজ্যে অগ্রগতি হলেও পাওনাদারের তাগাদা বিব্রত রাখতে পারে। গৃহজ সমস্যায় মধ্যস্থতাকারীর সহযোগিতায় বিতর্ক-বিবাদের সাময়িক আবসান। সপ্তাহের অন্তভাগে শরীর-স্বাস্থ্যের উন্নতি। ব্যাবসা-বাণিজ্যে আয় উপার্জন বৃদ্ধি। বিকল্প রোজগার/ উপার্জনের নতুন ক্ষেত্র উন্মোচনে প্রফুল্লতা বৃদ্ধি। 

 
এই সপ্তাহের রাশিফল- ২১শে জুন থেকে ২৭শে জুন এই সপ্তাহের রাশিফল- ২১শে জুন থেকে ২৭শে জুন Reviewed by WisdomApps on June 21, 2020 Rating: 5

মারণ ভাইরাস কোরোনা আমাদের কি কি শিক্ষা দিল ? - এই শিক্ষা ভুলবার নয় ।

June 16, 2020



☞ পৃথিবী ফেরত চেয়েছেন ঈশ্বর।

☞ কি হলো এত পরমাণু বোমা, হাইড্রোজেন বোমা বানিয়ে আমেরিকার বি-স্টেলথ ( B-2 Spirit ) বোমারু বিমান নাকি আলপিনের ডগায় বোমা ফেলতে পারে কয়েক কিলোমিটার উঁচু থেকে, রাশিয়ান S-400 Triumph মিসাইল ডিফেন্স সিস্টেম, নাকি পৃথিবীকে কয়েক চক্কর কেটে ফেলার ক্ষমতা ধরে। AK107 ( Russian 5.45 ✘39mm. assault rifle) রাইফেল নাকি আস্ত ট্যাংক উড়িয়ে দেয় এক নিমেষে। 

☞ মানুষ মারার কত আয়োজন। 

☞ মনে আছে, সিরিয়ার সেই ৩ বছরের ছেলেটির কথা ? বোমায় ক্ষতবিক্ষত শরীর নিয়ে মরে যাবার আগে যে বলেছিল, "আমি ঈশ্বরকে সব বলে দেব।"

☞ সে হয়তো ঈশ্বরকে সব ব'লে দিয়েছে।

☞ হয়তো বলে দিয়েছে,
আমাদের পৈশাচিকতার কথা, লোভের কথা, অসভ্যতার কথা, নির্যাতনের কথা।

☞ আমরা মানুষ মেরেছি হাজারে হাজারে, একে অপরকে ধ্বংস করার জন্য মারণাস্ত্র বানিয়েছি লক্ষ - কোটি। প্রকৃতিকে ধ্বংস করে গড়ে তুলেছি গগনচুম্বী অট্টালিকা।  মানুষে মানুষে বিভেদ বাড়ানোর জন্য তৈরি করেছি নানান গোপন অস্ত্র।

☞ সুইডেনের ইন্টারন্যাশনাল পীস রিসার্চ ইনস্টিটিউটের গবেষণা বলছে ২০১৮ সালে পৃথিবীতে কেবলমাত্র যুদ্ধের প্রস্তুতির জন্য খরচ হয়েছে ১.৮২২ ট্রিলিয়ন মার্কিন ডলার।

☞ সে হয়তো ঈশ্বরকে সব বলে দিয়েছে।

☞ বলেছে সেই পাখিটির কথা, যে আর আকাশে ওড়ে না। বলেছে সেই আকাশের কথা, যা একদিন নীল ছিল। বলেছে সেই বাতাসের কথা, যা একদিন নির্মল ছিল। বলেছে সেই পৃথিবীর কথা, যা একদিন সবার ছিল।

☞ এই সবার পৃথিবীকে আমরা ভাগ করেছি ইচ্ছেমতো।

☞ ধর্মের নামে, দেশের নামে, ভাষার নামে মানুষকে দূরে সরিয়েছি।

☞ চামড়ার রং দিয়ে, গণতন্ত্রের নাম দিয়ে, রাজনৈতিক স্বার্থে স্বৈরতান্ত্রিক ক্ষমতা প্রয়োগ করে, কেটে টুকরো টুকরো করেছি নিজেদের।

☞ সাগর পাড়ে পরে থাকা আ্যালান কুর্দি, কাঁটাতারে ঝুলতে থাকা ফেলানি হয়তো সব বলে দিয়েছে ঈশ্বরকে।

☞ ঈশ্বর তার পৃথিবী ফেরত চেয়েছেন এবার।

☞ তিনি হয়তো শুনেছেন সব অভিযোগ। হয়তো শুনেছেন প্রকৃতির করুণ আর্তনাদ। শুনেছেন সেই পাখিটির কান্না।

☞ এটাই হয়তো ঈশ্বরের মার, কিংবা প্রকৃতির প্রতিশোধ। বৈভবে মোড়া দুবাই - এর ৮২৮ মিটার উঁচু বুর্জ খলিফা নাকি খাঁ খাঁ করছে। সোনা আর পেট্রো ডলারে মুড়ে রাখা অহংকার থরথর করে মৃত্যুভয়ে কাঁপছে। 

☞ ক্ষুদ্রাতিক্ষুদ্র একটা ভাইরাসের ভয়ে প্রবল পরাক্রমশালীরা অসহায়ের মত ফ্যালফ্যাল করে তাকিয়ে আছেন কোটের কলার ফাটা বিজ্ঞানীর দিকে, অথবা রাতজাগা ক্লান্ত অবসন্ন, কিন্তু হার না মানা জেদি ডাক্তার আর নার্সের দিকে।

☞ চরম উন্নাসিকতায় যাদের দিকে কেউ ফিরেও তাকাত না, আজ সেই সাফাইকর্মীদের পুষ্পবৃষ্টি আর শঙ্খধ্বনিতে হচ্ছে আবাহন। 

☞ তবে এ যুদ্ধ কি কেবল অদৃশ্য ভাইরাসের বিরুদ্ধে ? বোধহয় নয়। লকডাউনে খাবারের অভাবে গঙ্গায় পাঁচ সন্তানকে মায়ের বিসর্জন। এক পেট ক্ষিদে নিয়ে, এক বুক কষ্ট নিয়ে, নিজের এক রাশ না পাওয়ার সাম্রাজ্যে ফিরতে চাওয়া, একাধিক শ্রমিকের মৃত্যু। কোমল রক্তাক্ত পা'য়ে ১১ বছরের জামলোর মৃত্যু। সন্তানের মুখে সামান্য খাবার তুলে দিতে না পারার অব্যক্ত যন্ত্রনায় কর্মহীন পিতার আত্মহত্যা। এইসব কিছুর বিরুদ্ধে আমরা কি প্রতিদিন নিজেদের মনের ভিতরে এক অদৃশ্য লড়াই করছি না ?  

☞ একদিন হয়তো সব ঠিক হবে, কিন্তু আমরা কি সত্যিই মানুষ হবো ?

☞ এই অন্তহীন প্রশ্ন ভবিষ্যতের জন্য রেখে আজ অন্তত বাঁচার স্বপ্ন দেখি।

☞ আমরা রাষ্ট্রের আহ্বানে সম্মিলিতভাবে থালাবাসন না বাজিয়ে, সম্মিলিতভাবে মোমবাতি না জ্বালিয়ে, আতসবাজি না পুড়িয়ে,  ফানুস না উড়িয়ে। নিজেদের অন্তরের আহ্বানে সম্মিলিতভাবে প্রতিজ্ঞাবদ্ধ হই। 

☞ এ যাত্রায় যদি বেঁচে থাকি, একটি সবুজের বীজ বপন করবো। তাকে সন্তানস্নেহে লালন করে মহীরুহে পরিণত করবো। একটি পাখীর শিকল কেটে উড়তে দেবো। আর নিজের সন্তানকে তথাকথিত শিক্ষিত, ধনী ও স্বার্থপর নাগরিক হওয়ার নয়, দেবো প্রকৃত মানুষ ( মান ও হুঁস ) হয়ে ওঠার শিক্ষা।


সংগৃহীত। লিখেছেন সুব্রত উকিল মহাশয় । 
মারণ ভাইরাস কোরোনা আমাদের কি কি শিক্ষা দিল ? - এই শিক্ষা ভুলবার নয় । মারণ ভাইরাস কোরোনা আমাদের কি কি শিক্ষা দিল ? - এই শিক্ষা ভুলবার নয় ।  Reviewed by WisdomApps on June 16, 2020 Rating: 5

লকডাউনে ঘরে বসে বেতন নিচ্ছেন শিক্ষক - ক্লাস কি চলছে ?

June 14, 2020



আমিএকজনশিক্ষক ।ঘরে বসে দুমাস ধরে যে সরকারের কাছ থেকে বেতন নিচ্ছি।এই বিষয়ে কথা বলার আগে একটা ঘটনা শেয়ার করি আপনাদের সঙ্গে।

একবার হাওড়া থেকে লোকাল ট্রেনে ফেরার সময় বাধ্য হয়ে জেনারেল কামরায় উঠি।ওঠা থেকেই পিছনের দিকে কোনা থেকে কিছু অল্পবয়সী ছেলেদের উল্লাসময় চিৎকার এবং নিজেদের মধ্যে মাত্রাতিরিক্ত ইয়ার্কি ঠাট্টায় সবাই বিরক্ত হই। কিছুক্ষন পর ফিরে তাকাতেই তাদের একজনের দিকে চোখ পড়ে এবং চিনতে পারি সে আমারই স্কুলের প্রাক্তন ছাত্র। সেও চিনতে পারে এবং হাসিমুখে জিজ্ঞাসা করে কেমন আছি।আমি আবার আমার মত থাকি।খানিক পর খেয়াল করি পুরো গ্রূপটাই চুপচাপ। অল্প কিছু কথা ভেসে আসছে তবে বেশ নিচু গলায়।তারকেশ্বর অবধি এটাই চলে।বুঝতে পারি ছাত্রটি বাকিদের নিয়ন্ত্রণ করেছে আমার প্রতি সম্মান প্রদর্শন বশত।
এটা একটিমাত্র নয়।এমন অনেক ঘটনার সাক্ষী আমরা শিক্ষকরা সকলেই কমবেশি।আর যারা শিক্ষক নন তারাও।শিক্ষকদের সুকর্মের সুফলটা কিন্তু সকলেই ভোগ করেন।নিশ্চিন্ত সুষ্ঠ সামাজিক জীবন যাপন করেন।

এবার বলি কেন এই ঘটনার অবতরণ
আপনারা যারা বলছেন আমরা বিনা শ্রমে বেতন নিচ্ছি তারা একটিবারও ভেবে দেখেছেন 'শিক্ষা' কি?ঘন্টা ধরে সময় মেপে পাঠ্যপুস্তক আউড়ে দেয়াটাই কি শিক্ষা? না।সেটা আপনারাও জানেন। কিন্তু স্মৃতি বিচ্যুতির কারনে আজ রে রে করে উঠছেন শিক্ষকের বিরুদ্ধে।ভেবে দেখেছেন আপনার ছাত্রাবস্থায় আপনি শিক্ষককে কি দিয়ে বিচার করতেন?তাদের মাসমাইনে কত খোঁজ রাখতেন? না।বরং বলব তাদের প্রত্যেকের নিজ নিজ অভ্যাসগুলো খুঁটিয়ে দেখতেন।তাদের অনুকরণ অনুসরণ করবার কথা ভাবতেন।ভালোবাসে দুষ্টুমি করে তাদের নানান নামকরণ করতেন।তাদের দেওয়া শিক্ষা কাজে লাগিয়েই আজ আপনারা সমাজে সভ্য বলে পরিচিত।যেমন করে ওই ছেলেগুলি সেদিন তার অর্জিত শিক্ষার পরিচয় দিয়েছিল। অর্থাৎ ভাঙিয়ে খাওয়া। শিক্ষকের কাছে থেকে আমরা যা পাই তা আসলে সময়ের মাপদন্ড দিয়ে বিচারযোগ্য নয়। ক্লাস শেষ হয়ে যায় ।স্কুল ছাড়তে হয়।কিন্তু শিক্ষাটা বহন করে নিয়ে যায় ছাত্ররা।ভবিষ্যৎ জীবনে একজন সুনাগরিক হয়ে ওঠে।
তাই আজ যে ছেলেটা রাস্তায় থুথু ফেলছেনা,জল অপচয় করতে গিয়ে একবার থমকাচ্ছে,পরিবেশ নিয়ে ভাবছে,মানুষের পাশে ত্রাণ নিয়ে দাঁড়াচ্ছে,কোয়ারেন্টাইন সেন্টারে স্বাস্থ্যকর পরিবেশ বজায় রাখছে তাদের প্রত্যেকের সঙ্গে রয়েছি আমরা। কোথাও না কোথাও কোনো না কোনো শিক্ষক রয়েছেন একজন ভালো নাগরিক গঠনে। শিক্ষকের ব্যক্তিত্ব অনুসরণ করতে চাওয়া ছাত্রাবস্থায় খুব স্বাভাবিক একটি ঘটনা যা আপনিও চেয়েছেন।কিন্তু আজ ভুলে গিয়ে বেতন নেওয়াটা দেখছেন।অলক্ষ্যে আমাদের শিক্ষার প্রবাহই যে আপনার সন্তানকে সুসন্তান করে রেখেছে,আপনার প্রতিবেশীকে সুপ্রতিবেশী করে রেখেছে আপনাকে প্রতিবাদমুখর সচেতন করে রেখেছে সেটা দেখতে পাচ্ছেননা।
#সিলেবাস শেষ হবেই।স্কুলও খুলবেই। কিন্তু বই পড়ে কি শিক্ষা সম্পুর্ন হয়?হয়না। হয় শিক্ষকের সান্নিধ্য থেকে। একটা সান্নিধ্য হাজারটা সুশিক্ষার বাহক।
গাছের মূল কোনোদিনই দেখা যায়না। পিতামাতা আর শিক্ষক এই ত্রয়ী আসলে শিকড়ের মত আড়ালে থাকে।কিন্তু এদের পুষ্টি সরবরাহ কখনো বন্ধ থাকতে পারেনা।এ নিরন্তর প্রবাহ। ছাত্রের অন্তরে প্রবাহিত হতে থাকে ।আর সমাজে তার ছাপ পড়তে থাকে।
আমি নিজে সেই কবে ছাত্রাবস্থায় আমার শিক্ষকদের বেতন দিয়েছি ।বিনিময়ে ক্লাস নিয়েছি। কিন্তু ক্লাসের বাইরে তাদের থেকে যা নিয়েছি সেই তাদের শিক্ষাকে ভাঙিয়ে তাদের ব্যক্তিত্বকে অনুসরণ করেই আজও আমার শিক্ষকজীবনকে সমৃদ্ধ করে যাচ্ছি।মেপে তো দেখিনি কতটা দিয়েছি আর কতটা পেয়েছি।
মালির মত গোড়ায় সার জল দিয়ে যে শক্তি সঞ্চয় করে দেন শিক্ষকরা তাই আজীবনের পুঁজি হয় ছাত্রদের। কিছুদিন পর তার প্রয়োজন ফুরোয় ঠিকই কিন্তু তার অবদান ফুরোয়না।

তাই কতটা দিলাম কতক্ষন দিলাম না দেখে সিলেবাসের বাইরে বেরিয়ে ভাবুন কি দিলাম আমরা। আর একটিবার আপনার ছাত্রাবস্থায় ফিরে যান।দেখবেন শিক্ষক আসলে শিক্ষা থেকে বিরত থাকেননি কখনো। প্রতিটা ক্ষেত্রে সফল মানুষের পিছনে একজন না একজন শিক্ষক অবধারিতভাবে আছেন। একবার নির্মল হোন। হিংসামুক্ত হোন আপনার জীবনের সেই সব শিক্ষকদের সম্মানার্থে।
স্কুল মানে একটা বিল্ডিং শুধু নয়। একটা সম্পর্ক।এ অবিচ্ছেদ্য। দুমাস তিনমাস বিরতি থাকতে পারে ঘন্টা বেঁধে ক্লাসরুমে।কিন্তু ঘন্টার বাইরে ক্লাসের বাইরে জানবেন ক্লাস সবসময় চলছে। আর যেটাকে আপনারা বেতন বলছেন সেটা আসলে আমরা জানি সাম্মানিক হিসাবে।যারা কথায় কথায় চাণক্য আওড়ান তারা ভুলে গেছেন তার অমোঘ বাণী।'একটি অক্ষর ও যদি শিক্ষক ছাত্রকে দেন তা কোনো পার্থিব বস্তু দিয়ে পরিশোধযোগ্য নয়'।
শুধু শিক্ষক হিসেবে নিজের কৈফিয়ত দিতে নয় যে লেখা লিখতে বাধ্য হলাম আমার জীবনে যাদের অবদান সেই সকল শিক্ষকদের সম্মান জানাতে। আর সেই সব ছাত্রদের ভালোবাসা জানাতে যারা আমাদের মাথা উঁচু করে দেয় গর্বে।যাদের জন্য চিৎকার করে বিনা দ্বিধায় বলতে পারি আমি একজন শিক্ষক। বলতে পারি ক্লাস চলছে।



- লেখাটি সংগৃহীত 
লকডাউনে ঘরে বসে বেতন নিচ্ছেন শিক্ষক - ক্লাস কি চলছে ? লকডাউনে ঘরে বসে বেতন নিচ্ছেন শিক্ষক -  ক্লাস কি চলছে ? Reviewed by WisdomApps on June 14, 2020 Rating: 5

এই সপ্তাহের রাশিফল - ১৪ই জুন থেকে ২০শে জুন

June 14, 2020

মেষ রাশি: শরীর ও স্বাস্থ্যের প্রভূত উন্নতির মাধ্যমে সপ্তাহের শুভ সূচনা। ধীরে ধীরে ব্যবসা বাণিজ্যের অগ্রগতির কারণে মানসিক বলবৃদ্ধি। সন্তানের পড়াশোনায় মনোনিবেশ। সপ্তাহের মধ্যভাগে আয় উপার্জন বৃদ্ধি। শত্রুদমনে সফলতা। সম্পত্তিজনিত ঝামেলায় সুষ্ঠ নিষ্পত্তি। প্রেম পরিণয়ে বিরহ ব্যাথা। সপ্তাহের অন্তভাগে শেয়ার, ফাটকা, লটারিতে অর্থক্ষতি। পারিবারিক ক্ষেত্রে সমস্যা বৃদ্ধি। মতানৈক্য বৃদ্ধি পেতে পারে এইরকম বিতর্কিত বিষয় এড়িয়ে যাওয়ার সমীচীন।

বৃষ রাশি: সপ্তাহের শুরুর দিকে অর্থনৈতিক সমস্যা সংকটের আপাত সুরাহা। ব্যবসা ক্ষেত্রে আশার আলো থাকলেও পাওনাদারের চাপ থাকবে। সপ্তাহের মধ্যভাগে বিদ্যা গবেষণামূলক কাজে সাফল্য। আধ্যাত্মিক কৃপায় বহুদিনের জটিল পারিবারিক সমস্যার সন্তোষজনক বোঝাপড়া। দাম্পত্য সমস্যায় কিছুটা আশার আলো। সপ্তাহের অন্তভাগে অত্যাধিক উচ্চাকাঙ্ক্ষায় ব্যবসায় লোকসানের ইঙ্গিত। কর্মক্ষেত্রে অনেকদিন ধরে চলে আসা সমস্যা সংকটের আপাত সুরাহা।

মিথুন রাশি: সপ্তাহের শুরুর দিকে বিকল্প রোজগারের রাস্তা উন্মোচন হবে। অত্যাধিক দুশ্চিন্তা, মানসিক অবসাদে শরীর স্বাস্থ্যের অবনতি হওয়ার সম্ভাবনা। সুতরাং উক্ত বিষয়ে সতর্কতা প্রয়োজন। সপ্তাহের মধ্যভাগে ব্যবসা বাণিজ্য কিছুটা শ্লথটা দেখা যাবে। সন্তানের পড়াশোনায় মনোসংযোগ বৃদ্ধিতে মানসিক প্রফুল্লতা। সপ্তাহের অন্তভাগে প্রেম পরিণয়ে শুভ খবর। দাম্পত্য জীবনে ভুল বোঝাবুঝির অবসানে মানসিক স্বস্তি।

কর্কট রাশি: ব্যবসা বাণিজ্যের উল্লেখযোগ্য অগ্রগতিতে সপ্তাহের শুভ শুভ সুচনা। আকস্মিক স্বাস্থ্যহানি, চোট আঘাত প্রাপ্তির যোগ থাকলেও খুব দুশ্চিন্তার কিছু নেই। সপ্তাহের মধ্যভাগে কর্মক্ষেত্রে দায়িত্ব বৃদ্ধি। পারিবারিক মনোমালিন্যের অবসান। গুপ্ত শত্রু দমনে উল্লেখযোগ্য সাফল্য। শিল্পী, কলাকুশলীদের নব উদ্যমে আশার আলো। সপ্তাহের অন্তভাগে ব্যায়ভাব বেশি। ঈশ্বরের কৃপায় শরীর স্বাস্থ্যের উল্লেখযোগ্য উন্নতি। গুরুজন স্থানীয় ব্যক্তির আরোগ্য।

সিংহ রাশি: সপ্তাহের শুরুটা যথেষ্ট চাপের। অর্থনৈতিক ক্ষেত্রে ঋণ বৃদ্ধি। পাওনাদারের তাগদায় বিড়ম্বনা বৃদ্ধি। সপ্তাহের মধ্যভাগে গুরুজন স্থানীয় ব্যক্তির শরীর স্বাস্থ্যের সতর্কতা প্রয়োজন। মামলা মোকদ্দমায় প্রয়োজনীয় বোঝাপড়ায় সফলতা বৃদ্ধি। সপ্তাহের অন্তভাগে ঋণ শোধে মানসিক ভার লাঘব। ব্যবসা বাণিজ্যের অগ্রগতিতে মানসিক প্রফুল্লতা। সন্তানের বিদ্যাশিক্ষায় উৎসাহ বৃদ্ধি, কর্মক্ষেত্রে অগ্রগতি।

কন্যা রাশি: যথেষ্ট উৎসাহ উদ্যোগের মধ্য দিয়ে সপ্তাহটি শুরু হবে। ব্যবসা বাণিজ্য অত্যাধিক লগ্নি বিষয়ে প্রয়োজনীয় সতর্কতা আবশ্যক। সপ্তাহের মধ্যভাগে বিকল্প উপার্জনে উল্লেখযোগ্য অগ্রগতি। বাতজ বেদনা বিষয়ে যথেষ্ট সতর্কতা প্রয়োজন। সপ্তাহের অন্তভাগে চাকুরিজীবীদের দায়িত্ব বৃদ্ধি হলেও সেই অনুযায়ী উপার্জন বৃদ্ধি নাও হতে পারে। তবে আশাহত হওয়ার কারণ নেই। বিদেশে অধ্যয়ন/কর্মরত সন্তানের কুশল সমাচারে মানসিক ভার লাঘব।

তুলা রাশি: সপ্তাহের শুরুটা যথেষ্ট আশাব্যঞ্জক। অর্থনৈতিক ক্ষেত্রে অনেকদিনের আটকে থাকা অর্থ উদ্ধার। দাম্পত্য সমস্যার ভুলবোঝাবুঝির অবসান। সপ্তাহের মধ্যভাগে শারীরিক সমস্যার অগ্রগতি। সন্তানের বিদ্যাশিক্ষায় মনোসংযোগ অভাবে দুশ্চিন্তা বৃদ্ধি। শেয়ার ফাটকা অপ্রত্যাশিত লাভ। সপ্তাহের অন্তভাগে সম্পত্তিজনিত সমস্যায় জটিলতা বৃদ্ধি। দূরবর্তীস্থলে থাকায় প্রিয়জনের বিষয়ে মানসিক উদ্বেগ।

বৃশ্চিক রাশি: কর্মক্ষেত্রে নতুন আশা আশঙ্কায় সূচনার মাধ্যমে সপ্তাহের শুরু হওয়ার যোগ। প্রিয়জনের শরীর স্বাস্থ্য বিষয়ে অত্যাধিক দুশ্চিন্তার কারণ দেখা যাচ্ছে না। সপ্তাহের মধ্যভাগে বিদ্যা শিক্ষায় সাফল্য। প্রেম পরিণয়ে বিতর্কিত বিষয়ে মৌনব্রত নেওয়ায় বুদ্ধিমানের কাজ। সপ্তাহের অন্তভাগে ব্যবসা বাণিজ্যের উল্লেখযোগ্য অগ্রগতি। গুরুজনের শারীরিক আরোগ্য। রাজনৈতিক পদাধিকারীদের পদ ও দায়িত্ব বৃদ্ধি।

ধনু রাশি: সপ্তাহের শুরুতেই ঋণ পরিশোধে মানসিক ভার লাঘব। শিল্পী, কলাকুশলীদের নতুন কর্মদ্যমে আশা আকাঙ্খার সঞ্চার। সপ্তাহের মধ্যভাগে ব্যবসা বাণিজ্যের অগ্রগতি। মামলা মোকদ্দমায় সন্তোষজনক ফল প্রাপ্তি। সপ্তাহের অন্তভাগে অত্যাধিক পরিশ্রমে শারীরিক ও মানসিক ক্লান্তি। স্বামী-স্ত্রী পরিবারের প্রয়োজনীয় কর্তব্য সম্পাদনে মানসিক প্রফুল্লতা বজায়। গুরুজন স্থানীয় ব্যক্তির শরীর স্বাস্থ্যের উল্লেখযোগ্য অগ্রগতিতে মানসিক ভার লাঘব।

মকর রাশি: সপ্তাহটি খুবই গুরুত্বপূর্ণ। অনেকদিনের জমে থাকা কর্মসম্পাদনের সুযোগে সদব্যবহার করা প্রয়োজন। উপস্থিত বুদ্ধিমত্তার মাধ্যমে উর্ধতন কতৃপক্ষের সুনজরে পরার সম্ভাবনা। সপ্তাহের মধ্যভাগে ব্যবসাক্ষেত্রে ঋণ বৃদ্ধি। পাওনাদারদের তাগদায় সমস্যা সংকট। সপ্তাহের অন্তভাগে সন্তানের বিদ্যাশিক্ষায় মনোসংযোগ বৃদ্ধিতে নতুন আশা আকাঙ্খার সূচনা। ঝুঁকি রয়েছে এইরকম দূর যাত্রা এখন না করায় শ্রেয়।

কুম্ভ রাশি: নতুন কর্মদ্যমের মাধ্যমে সপ্তাহের শুভ সূচনা। ব্যবসাক্ষেত্রে আয় উপার্জন বৃদ্ধি। সপ্তাহের মধ্যভাগে কায়িক পরিশ্রমে অত্যাধিক ক্লান্তি। প্রিয়জনের শরীর স্বাস্থ্যের বিষয়ে দুশ্চিন্তা বৃদ্ধি। প্রেম পরিণয়ে অহেতুক জটিলতা বৃদ্ধি। সপ্তাহের অন্তভাগে কর্মক্ষেত্রে জটিলতার সাময়িক সুরাহা। দাম্পত্য সমস্যায় খুব একটা উল্লেখযোগ্য অগ্রগতি দেখা যাচ্ছে না। উচ্চশিক্ষায় গবেষণামূলক কাজে স্বীকৃতির অভাবে হতাশা বৃদ্ধি।

মীন রাশি: সপ্তাহের প্রথম দিকেই যাবতীয় গুরুত্বপূর্ন সিদ্ধান্ত নিয়ে নেওয়াই দূরদর্শিতার পরিচায়ক হতে পারে। অত্যধিক ঝুঁকি রয়েছে এইরকম ব্যবসায় লগ্নি না করায় শ্রেয়। সপ্তাহের মধ্যভাগে পুরোনো রোগ ব্যাধির কিছুটা উপশম। পরিবারের প্রতি দায়বদ্ধতা পালনে আরও দায়িত্ববান হওয়া প্রয়োজন। সপ্তাহের অন্তভাগে বিদ্যাশিক্ষা গবেষণামূলক কাজে সাফল্য বৃদ্ধি। যোগ, প্রাণায়মের মাধ্যমে শরীর স্বাস্থ্যের প্রভূত উন্নতিতে মানসিক বল বৃদ্ধি।


This is complete bengali rashifal. Plesae Share with everyone. 
এই সপ্তাহের রাশিফল - ১৪ই জুন থেকে ২০শে জুন এই সপ্তাহের রাশিফল - ১৪ই জুন থেকে ২০শে জুন  Reviewed by WisdomApps on June 14, 2020 Rating: 5

স্তব্ধ যাদের জীবন চাকা , কেমন আছেন তাঁরা ? চেনাপরিচিত হকার দের অচেনা গল্প

June 14, 2020



কেমন আছেন তাঁরা ?
লোকাল ট্রেনের সেই বন্ধুরা? যাঁরা হকার নামে পরিচিত। কতো বিচিত্র ভঙ্গি তাঁদের,কতো বৈচিত্রের সমাহার। কেউ কেউ বাচন ভঙ্গি আর স্টাইলে হয়ে ওঠেন অনন্য। তাঁদের মার্কেটিং ম্যানেজার নেই, নিজেরাই তৈরী করেন বিপণনের নানান চিত্তাকর্ষক পদ্ধতি।

ট্রেনে চা বিক্রি করেন ক্ষুদিরামদা। তিনি এসেই বলবেন, হ্যালো, আপনারা চা টা খেয়ে নিন। দাদা বিস্কুটটা ধরুন। বিকেলের দিকের ট্রেন। অনেক ডেলি প্যাসেঞ্জার। ক্ষুদিরামদা জানে কারা চা খাবে।  এই যে দাদা, চা নিন বলে বলে চা দিচ্ছেন পরপর। এক বয়স্ক ভদ্রলোক, তিনি নতুন, ভাবলেন ফ্রিতে চা বুঝি। তিনি নিজে নিলেন, গিন্নিকেও দিলেন। গিন্নির খুব একটা ইচ্ছা ছিলো না। তবুও যেচে দিচ্ছে। খেলেন। এরপর যখন পয়সা দেবার সময় এলো, দেখার মতো হয়েছিলো ভদ্রলোকের মুখটা। না জানি আরো কতোজন এইভাবে ক্ষুদিরামদার চা খেয়েছেন।

এক ফলওয়ালা আছেন। হেভি  মজার লোক। কাঁচা ছোলা বিক্রি করছেন একজন। এই যে ছোলা, এই যে ছোলা। ফলওয়ালা তার পেছন পেছন এলেন, কলা নিয়ে, এই যে আছোলা, এই যে আছোলা বলতে বলতে। লোক হেসেই অস্থির। ছোলাওয়ালা রেগে যেতেই বলেন, কলা ছাড়ানো নয়, তাই আছোলা।

একজন লেবু বিক্রি করছেন, লেবু রুগী বাচ্চা খাবে। তিনি এসেই শুরু করলেন, আমার লেবু মুরগি বাচ্চা খাবে। আবার হাসি সবার। এছাড়াও নানা আকর্ষণীয় অফার। আপেল নিন, ধান বেচে পয়সা, ডালিম নিন, আলু উঠলে পয়সা। লেবু নিন পুরনো নোটে দাম দিন। বেদানা খান, বেদনা কমান। নানা অফারের ছড়াছড়ি। একজন ফলের দাম শুনে আশ্চর্য হয়ে বললেন, বাবা!! তৎক্ষণাৎ জবাব, বাবা বাড়িতে, ফল গাড়িতে। গুলিয়ে ফেলবেন না।
 
এছাড়া ছিলো মিলনীর চানাচুর। খেলে বেকার ছেলে চাকরি পাবে,ফেল করা পাশ করবে, এক দেখায় মেয়ের বিয়ে হবে। লোক আশ্চর্য হয়ে শুনতো।ইন্দিরা গান্ধী, জ্যোতি বসু কে না খায় সেই চানাচুর।সেই হরিদাসের বুলবুল ভাজা স্টাইল," মহারানী ভিক্টোরিয়া, এ ভাজা খান রোজ কিনিয়া।" বলার গুণে বিক্রিও হতো বেশ। তাদেরই এক ভাই আসতেন, চানাচুর, চানাচুর বলে এগিয়ে যেতেন, পিছন থেকে কেউ যদি চাইতেন, বলতেন আর হবে না।এক অজ্ঞাত কারণে পিছনে ফিরে এসে আর বিক্রি করতেন না। লোকে হেভি মজা নিত।

একজন ছিলেন সন্তোষ চক্রবর্তী। হজমি গুলি বিক্রি করতেন। কি কনফিডেন্স। রাইফেলের গুলি মিস হবে, কিন্তু সন্তোষ চক্রবর্তীর গুলি মিস হবে না। দিনের পর দিন, মাসের পর মাস কামরা শুদ্ধ লোককে ফ্রিতে গুলি খাওয়াতেন। পাবলিকও তেমনি, রোজ হাত পেতে খেতো, কিন্তু বেশিরভাগই কিনত না। কিভাবে চলতো তাঁর কে জানে।

একজন পুরোনো ম্যাগাজিন বিক্রি করতেন। আনন্দমেলা, শুকতারা, দেশ ইত্যাদি 2/5 টাকায় বিক্রি হতো। সে উঠলেই লোক চিৎকার করতো 5 টাকায় দেশ বেচে দিচ্ছ। সেও রাগে চিৎকার করতো। শেষে এমন হলো, যে কামরায় যান, সেখানেই এক প্রশ্ন। বই বিক্রি ছেড়েই দিলেন বেচারা।

একজন গুড় কাঠি বা কাঠি গজা বিক্রি করেন। তিনি এককালে বলতেন, গজা নিন ঘিয়ে ভাজা। একদিন একজন ডাকলো, এই ঘিয়ে ভাজা এদিকে দেখি। তিনি রেগে গেলেন, ঘিয়ে ভাজা বললেন কেন? ব্যাস লোকে খোরাক পেয়ে গেলো। তিনি উঠলেই সমস্বরে চিৎকার, এই ঘিয়ে ভাজা। গালাগালির ঝড়। বেচারা প্ল্যাটফর্মে দাঁড়িয়ে থাকলেও ট্রেন থেকে প্রবল চিৎকার ভেসে আসে, ঘিয়ে ভাজা, ঘিয়ে ভাজা।

একজন বই বিক্রি করেন। মানুষকে বশ করার উপায়। দারুণ কায়দা তাঁর। চটি বই পিন আপ করা।সূচিপত্র ছাড়া কিছু দেখা যাবে না। বইটি কিনে ট্রেনে পড়া যাবে না। বাড়িতে একলা পড়তে হবে।কাউকে দিলে কাজ হবে না। দারুণ বিক্রি।লোকে ভাবে মন্ত্র তন্ত্র।আসলে কিচ্ছু না, কিভাবে মানুষের সাথে কথা বলতে হয়, তার উপায়। প্রচারের কায়দা দেখার মতো। সেই গুণেই হট কেকের মত বিক্রি।

একজন আসেন চপ নিয়ে। কতো অভুক্ত মানুষের খাদ্য ঐ গরমাগরম চপ আর এক ঠোঙা মুড়ি।সাথে কাঁচা লংকা ফ্রি। কিন্তু তাঁর দোষ, দাদা নিমপাতার চপ আছে বললেই, বিক্রি ছেড়ে ঝগড়ায় মত্ত। মেজাজ গরম, চপ ঠান্ডা।

আর ছিলেন 'প্রাঞ্জল' ভাই। জল চাই জল! জল খেলে প্রাণ জুড়িয়ে যাবে ওনার দাবি তাই পাবলিকের দেওয়া নাম। ব্যাগের মধ্যে থরে থরে কাঁচের বোতল। অর্ডার পেলেই ওপেনার দিয়ে ধাতব ছিপি খুলতেই ফটাস শব্দ। ভেতরে চাপে থাকা কার্বন ডাই অক্সাইড গ্যাসের সাদা ধোঁয়া বেরোনো। জল খেয়ে লোকেদের তৃপ্তির ঢেঁকুর তোলা এ সব এখন অতীত।

আসতেন এক বয়স্ক ব্যক্তি। লজেন্স বিক্রি করতেন। এসেই শুরু করতেন, আর কারো ঠকবার ইচ্ছে আছে? সেই আশি থেকে দু'হাজার কুড়ি, একটানা চল্লিশ বছর, রেল গাড়িতে রেকর্ড।

একজনকে দেখি মাশরুম বিক্রি করেন। সুর করে বলেন মাশরুম আছে, প্রোটিন আছে, ছাতু আছে। খান দাদা খান, খেলেই আপনারা পাবেন প্রোটিন,আমি পাবো ভাত।
আর একজন এসেই বলতেন, স্বপন এসে গেছে। স্বপন আপনাদের সকলের কুশল কামনা করছে। নিজেদের মধ্যে বিবাদ করবেন না। ঝঞ্ঝাট ঝামেলা সংসারে থাকবেই, ওপরওয়ালার ওপর ভরসা রাখুন, আর মুখে হাসি থাকুক, সব বিপদ কেটে যাবে। স্বপন বাবুর বাচন ভঙ্গি লোককে বেশ স্বস্তি দিতো। তিনি লজেন্স বিক্রি করতেন।খুচরোর আকালের সময়ও 1 টাকার লজেন্স কিনলে 100 টাকার খুচরো করে দিতেন।

একজন এসেই বলতেন দাদারা দিদিরা আপনাদের মাথার চুল থেকে পায়ের নখ, সব দায়িত্ব আমার। চুল আঁচড়ানোর চিরুনি, কপালের টিপ, চোখের কাজল,কানের বাড, পিঠ চুলকানোর প্লাস্টিক হাত, গোড়ালি ঘষা ব্রাশ, নখ কাটার যন্ত্র সব আমি দেবো। আপনার পুরোটাই আমার কাঁধে।

এইরকম বিচিত্র অভিজ্ঞতার ঝুলি নিয়ে আসেন ট্রেনের হকার দল। কতো বিচিত্র জিনিস, কতো আকর্ষণীয় বাচন ভঙ্গি। দেবো নাকি দাদা, ছাল ছাড়িয়ে নুন মাখিয়ে? কচি শশা। অথবা এই যে দাদারা ছারপোকার বাচ্চারা, বিছের বংশরা, যদি আপনাকে কামড়ায়, লাগান এই বিষহরি তেল। বলার গুণে কামরার হট্টগোল যায় থেমে, আকর্ষণ করার ক্ষমতা আর রসবোধ দেখে অবাক হতে হয়। 

কেনা বেচার সম্পর্ক ছাড়িয়ে অনেকেই হয়ে ওঠেন প্রাণের বন্ধু। খবরাখবর নেন, ভালো আমটা লেবুটা বেছে দেন। ভাঁড় শেষ হবার পর ঢেলে দেন ভালোবাসার ফ্রী চা।

*অনেক দিন দেখিনা তাঁদের। ট্রেন বন্ধ হয়েছে আড়াই মাস পেরিয়ে গেলো। জানিনা কোথায় কেমন আছেন তাঁরা? সেই স্বপনদা হাসি মুখেই আছেন আশা করি। মাশরুমের বিক্রেতার ঘরের ভাত কিভাবে আসছে? চালের পাঁপড় বিক্রেতার ঘরে চাল,আর ঘরের চালের খবর কী? বয়স্ক লজেন্স দাদু নিজেই বুঝি ঠকে যাচ্ছেন রোজ। পাঁচ টাকার দেশ পত্রিকা বেচা মানুষটার খবর কী রাখে দেশ? মজা করে ধান বেচে পয়সা বলা মানুষটার ঘটি বাটি বেচতে হচ্ছে না তো? তাঁরা সবাই আকুল হয়ে তাকিয়ে আছেন শূন্য রেল কামরার দিকে। রেল চললেই চলে তাঁদের সংসার। অচল সংসারের চাকাটা বড়ো ভারী লাগে, টানা বড়ো কষ্টকর। জানিনা কেমন আছেন সেই স্বপ্নের ফেরিওয়ালারা। বড়ো দুঃসময়। ভালো থাকুন।
আমরা অনেকেই জানিনা সেই সমস্ত প্রান্তিক মানুষেরা যারা খুব স্বচ্ছল না হলেও একেবারে গরীব নয়, এখন কিভাবে দিনযাপন করছেন ।



লেখাটি সংগৃহীত - 

নিশ্চিন্তে শেয়ার করতে পারেন । 
স্তব্ধ যাদের জীবন চাকা , কেমন আছেন তাঁরা ? চেনাপরিচিত হকার দের অচেনা গল্প স্তব্ধ যাদের জীবন চাকা , কেমন আছেন তাঁরা ? চেনাপরিচিত হকার দের অচেনা গল্প Reviewed by WisdomApps on June 14, 2020 Rating: 5

এই সপ্তাহের রাশিফল ( ০৭ই জুন থেকে ১৩ই জুন )

June 07, 2020


মেষ রাশি:
তীব্র সংকল্পের মাধ্যমে সপ্তাহটি শুরু করুন। সপ্তাহের প্রথমদিকেই বহুবিধ প্রতিকূলতাকে জয় করার জন্য দৃঢ় সংকল্পের বিকাশ। অর্থনৈতিক ক্ষেত্রে আয় উপার্জন বজায় থাকবে। সপ্তাহের মধ্যভাগে শরীর স্বাস্থ্যের উন্নতি প্রভূত। দৃঢ় ইচ্ছা শক্তির দ্বারা বহুবিধ বাধা বিপত্তি অতিক্রম। প্রেম পরিণয়ে সম্পর্কের উন্নতি। দাম্পত্য শান্তি বজায় থাকবে। সপ্তাহের অন্তভাগে উচ্চতর বিদ্যার্জনে সফলতা। গুরুজনের শরীর স্বাস্থ্যের দ্রুত উন্নতি। শেয়ারে লগ্নি এখনই উচিত হবে না।

বৃষ রাশি: আধ্যাত্মিক কৃপায় গুরুজনের শরীর স্বাস্থ্যের প্রভূত উন্নতি। সপ্তাহের প্রথম দিকে কর্মক্ষেত্রে বাদানুবাদ, মনোমালিন্য এড়িয়ে চলায় উচিত। সম্পত্তিজনিত মামলা মোকদ্দমা, পুলিশি ঝামেলায় যথোপযুক্ত সতর্কতা অবলম্বন করা প্রয়োজন। সপ্তাহের মধ্যভাগে সন্তানের মনোসংযোগ বৃদ্ধি ও পড়াশোনায় মনোনিবেশ। ব্যবসায়ীদের নতুন কর্মোদ্দীপনার সঞ্চার। সপ্তাহের অন্তভাগে শিল্পীদের নতুন যোগাযোগ। অর্থনৈতিক ক্ষেত্রে আগের সংকট অবশ্যই কাটিয়ে উঠবেন। 

মিথুন রাশি: সপ্তাহের প্রথমদিকে বিকল্প কর্মঅনুসন্ধানে সাফল্য। ব্যবসা বাণিজ্য নতুন আশা উদ্যোগ। উপার্জন বৃদ্ধি। প্রেম পরিণয়ে অহেতুক আবেগ বর্জনীয়। সপ্তাহের মধ্যভাগে বিদ্যার্থীদের তুলনামূলক শুভ। বিদেশে চাকুরীরত ব্যক্তিদের কর্মক্ষেত্রে সংকট বাড়তে পারে। মাতুলস্থানীয় ব্যক্তির শরীর স্বাস্থ্যের অবনতি। সপ্তাহের অন্তভাগে শত্রুদমনে উল্লেখযোগ্য সাফল্য। দাম্পত্য ক্ষেত্রে অসন্তোষ বৃদ্ধি। শরীর স্বাস্থ্যের উল্লেখযোগ্য উন্নতিতে মনোবল বৃদ্ধি। 

কর্কট রাশি: সপ্তাহের প্রথমদিকে এই রাশির জাতক জাতিকাদের দাম্পত্য কলহ বৃদ্ধি হতে পারে। প্রেম পরিণয় বিতর্কিত বিষয় এড়িয়ে যাওয়া সমীচীন। সপ্তাহের মধ্যভাগে চাকুরীক্ষেত্রে সমস্যা বৃদ্ধি, আটকে থাকা অর্থ আদায়। শরীর স্বাস্থ্যের আকস্মিক অবনতি। সপ্তাহের অন্তভাগে দেব কৃপায় মনোবল বৃদ্ধিতে যাবতীয় প্রতিকূলতা জয়। ব্যবসায়ীদের পক্ষে সপ্তাহের শেষের কটা দিন অত্যন্ত শুভ। 

সিংহ রাশি: এই রাশির জাতির জাতিকাদের সপ্তাহের শুরুতেই কর্মস্থানে শুভ সংবাদ। অনেকদিন চলতে থাকা কর্ম সমস্যার সাময়িক সুরাহা। সপ্তাহের মধ্যভাগে যোগ, প্রাণায়াম প্রভৃতির মাধ্যমে পুরোনো ব্যাধির জটিলতা হ্রাস। পারিবারিক ক্ষেত্রে জমে থাকা অসন্তোষ গুরুত্ব সহকারে সমাধান প্রয়োজন। নতুবা পারিবারিক সমস্যায় জটিলতা বৃদ্ধি। সপ্তাহের অন্তভাগে শত্রুদমনে উল্লেখযোগ্য সাফল্য। 

কন্যা রাশি: যদি কোনও গুরুত্বপূর্ন কাজ জমে থাকে তবে এই সপ্তাহের প্রথমদিকেই সেটা করে নেওয়া অত্যন্ত প্রয়োজন। আয় থেকে ব্যয় ভাব বৃদ্ধি পাবে। স্বামী স্ত্রীর সম্পর্কে পুরোনো রাগ অনুরাগ বৃদ্ধি। সপ্তাহের মধ্যভাগে ব্যবসায় নতুন উদ্যোগ আশা আকাঙ্খার সঞ্চার। বাতজ ব্যাথা বেদনা শিরোপীড়া ভোগার যোগ দেখতে পাওয়া যাচ্ছে। সপ্তাহের অন্তভাগে গবেষণামূলক কার্যে স্বীকৃতি মিলতে পারে। চিকিৎসা পরিষেবার সঙ্গে যুক্ত ব্যক্তিদের পক্ষে সপ্তাহটি বেশ শুভ।

তুলা রাশি: পুরোনো রোগ ব্যাধিতে আক্রান্ত ব্যক্তিরা এই সপ্তাহের প্রথম দিকেই অনেকটা আরোগ্য লাভ করবেন। কর্মক্ষেত্রে দায়িত্ব বৃদ্ধি হলেও আয় উপার্জনে খুব একটা অগ্রগতি দেখা যাচ্ছে না। সপ্তাহের মধ্যভাগে ব্যানসায়িক উদ্যোগ বৃদ্ধি। বিশেষত প্রসাধনী দ্রব্য, বস্ত্র ব্যবসায়ী উদ্যোগপতিদের নতুন কর্ম প্রেরণার সঞ্চার। প্রেমজ ক্ষেত্রে যথেষ্ট বেগ পেতে হতে পারে। সপ্তাহের অন্তভাগে বহুদিন ধরে আটকে থাকা অর্থ আদায়, মানসিক প্রফুল্লতা বৃদ্ধি। সন্তানের বিদ্যা শিক্ষায় আগ্রহ বৃদ্ধি।

বৃশ্চিক রাশি: সপ্তাহের প্রথমদিকে কর্মক্ষেত্রে অনেকদিন ধরে চলতে থাকা জটিলতার সমাধান। আইনজ্ঞ, চিকিৎসা পরিষেবায় যুক্ত ব্যক্তিদের পক্ষে সপ্তাহের প্রথমটি বেশ আশাপ্রদ। সপ্তাহের মধ্যভাগে বিদ্যার্জনে জটিলতার অবসান। শরীর স্বাস্থ্যের বিষয়ে অত্যন্ত সতর্কতা প্রয়োজন। পুরোনো মামলা মোকদ্দমায় জটিলতা বৃদ্ধি হতে পারে। তাই সুনিশ্চিত উদ্যোগ আবশ্যক। সপ্তাহের অন্তভাগে উপার্জন বৃদ্ধিতে যাবতীয় হতাশার অবসান। 

ধনু রাশি: সপ্তাহের প্রথমদিকে আধ্যাত্মিক প্রেরণায় মনোবল বৃদ্ধি। শরীর স্বাস্থ্যের প্রভূত উন্নতি। শত্রুদমনে উল্লেখযোগ্য সাফল্য। সপ্তাহের মধ্যভাগে ব্যবসায় নতুন কর্মপ্রেরণায় যাবতীয় মানসিক অবসাদ হতাশার অবসান। প্রেম পরিণয়ে সম্মানজনক আপসে মানসিক ভার লাঘব। সপ্তাহের অন্তভাগে কর্মক্ষেত্রে সংকটময় পরিস্থিতির উদ্ভব হতে পারে। এজন্য মানসিক ভাবে প্রস্তুত থাকা প্রয়োজন। পারিবারিক ক্ষেত্রে আত্মীয় বন্ধুদের আগমন। রাজনৈতিক ব্যক্তিদের দায়িত্ব বৃদ্ধি।

মকর রাশি: এই রাশির জাতক জাতিকাদের পক্ষে সপ্তাহটি তুলনামূলক অনেকটাই শুভ। সপ্তাহের প্রথমদিকে কর্মসূত্রে আয় বৃদ্ধিতে মনোবল বৃদ্ধি। সপ্তাহের মধ্যভাগে ব্যবসাক্ষেত্রে নব উদ্যোগ, আশা আকাঙ্খার সঞ্চার। নির্মাণ ব্যবস্থার সঙ্গে যুক্ত ব্যক্তিদের ক্ষেত্রে সপ্তাহের শেষটা অত্যন্ত শুভ। অনেকদিন থেকে আটকে থাকা অর্থ উদ্ধার। পুরোনো মামলা মোকদ্দমায় সন্তোষজনক সন্ধিতে মানসিক প্রফুল্লতা বৃদ্ধি।

কুম্ভ রাশি: সপ্তাহের প্রথমদিকে হাতে বেশকিছু টাকা আসবে। ঠিকমতো বুঝে শুনে তা লগ্নি করা প্রয়োজন। নতুবা অর্থক্ষতি সম্ভাবনা প্রবল। সপ্তাহের মধ্যভাগে বিকল্প রোজগার/কর্মে উল্লেখযোগ্য সাফল্য। বিদেশে কর্মরত ব্যক্তিদের শরীর স্বাস্থ্য নিয়ে যথেষ্ট চিন্তার অবকাশ রয়েছে। সপ্তাহের অন্তভাগে দাম্পত্য সমস্যা বৃদ্ধি। উচ্চতর বিদ্যা, গবেষণামূলক কার্যে স্বীকৃতির অভাবে হতাশা বৃদ্ধি।

মীন রাশি: সপ্তাহের শুরুর দিকে ব্যবসায়িক উদ্যোগ বৃদ্ধি। আয় উপার্জন উল্লেখযোগ্য সাফল্য। সপ্তাহের মধ্যভাগে স্বামী স্ত্রীর মধ্যে মনোমালিন্যের অবসান। সন্তানের বিদ্যা শিক্ষায় মনোযোগহীনতায় দুশ্চিন্তা বৃদ্ধি। সপ্তাহের অন্তভাগে শরীর স্বাস্থ্যের বিষয়ে প্রয়োজনীয়তা সাবধানতা অবলম্বন প্রয়োজন। গুপ্ত শত্রুদের যথোপযুক্ত জবাবে মনোবল বৃদ্ধি। অবৈধ প্রেম পরিণয়ে জটিলতা বৃদ্ধি।
এই সপ্তাহের রাশিফল ( ০৭ই জুন থেকে ১৩ই জুন ) এই সপ্তাহের রাশিফল ( ০৭ই জুন থেকে ১৩ই জুন ) Reviewed by WisdomApps on June 07, 2020 Rating: 5

এই সপ্তাহের রাশিফল ( ৩১শে মে থেকে ৬ই জুন )

May 31, 2020

মেষ রাশি:
সপ্তাহের শুরু মোটের ওপর শুভ।অনেক দিনের পরিশ্রমের স্বীকৃতি পেতে পারেন। রাজনৈতিক আকাঙ্খা পূরণ হতে পারে। সপ্তাহের দ্বিতীয়ভাগে ব্যবসা বাণিজ্যের মন্দা। বিদ্যার্থীদের পক্ষে মনোসংযোগের অভাব। অনাদায়ী অর্থের জন্য চিন্তা বৃদ্ধি। সপ্তাহের অন্ত ভাগে দুশ্চিন্তার অবসান। স্বামী স্ত্রীর অবস্থার উন্নতি। প্রেমজ ক্ষেত্রে আশাতীত সাফল্য। শেয়ার , ফাটকা, লটারিতে প্রভূত লাভ । 


বৃষ রাশি: সপ্তাহের প্রথম দিকে দাম্পত্য অশান্তি। সন্তানের বিদ্যস্থান অপেক্ষাকৃত শুভ। শিল্পী, কলাকুশলীদের সাফল্য। সপ্তাহের মধ্যভাগ ব্যবসা স্থানে মতানৈক্য এড়িয়ে চলা প্রয়োজন। প্রয়োজনের বেশি ঋণ না নেওয়ায় সমীচীন। প্রেমজ ব্যাথা বেদনা থাকতে পারে। সপ্তাহের অন্তভাগে কর্মপ্রাথীদের নতুন কর্মঅনুসন্ধানে সাফল্য। পারিবারিক ক্ষেত্রে মনোমালিন্য হতে পারে। প্রয়োজনীয় সমঝোতা করে নেওয়ায় শ্রেয়।

মিথুন রাশি: অর্থনৈতিক চাপের মধ্যদিয়ে সপ্তাহ শুরু। বিদেশে কর্মরত সন্তানের ব্যাপারে অত্যাধিক দুশ্চিন্তার প্রয়োজন ও যৌক্তিকতা নেই। ব্যবসায়ীদের বিকল্প ব্যবসার সন্ধানের উদ্যোগী হওয়া প্রয়োজন। সপ্তাহের মধ্যভাগে আয়ের থেকে ব্যায়ভাগ বেশি। পুরোনো প্রেমে জটিলতা বৃদ্ধির আশঙ্কা। সাংসারিক ক্ষেত্রে যতটা সম্ভব মতানৈক্য এড়িয়ে চলা প্রয়োজন। সপ্তাহের অন্তভাগে অর্থনৈতিক সমস্যার কিছুটা সুরাহা। রাজনৈতিক পাদাধিকারীদের উচ্চাভিলাশার পূর্তি হতে পারে। বিদ্যার্থীদের পক্ষে সপ্তাহটি বেশ শুভ।


কর্কট রাশি: মতান্তরের মধ্য দিয়ে সপ্তাহটি শুরু হবে। তাই বিতর্ক বিবাদ যতটা সম্ভব এড়িয়ে চলায় সমীচীন। গুপ্ত শত্রুতা মাথাচারা দিলেও পরে তা বশ মানবে। সপ্তাহের মধ্যভাগে বিকল্প কর্মসংস্থানের খোঁজ। অর্থের যোগান অব্যাহত রাখতে আরও উদ্যোগী হওয়া প্রয়োজন। শিল্পী, কলাকুশলীদের পক্ষে সপ্তাহটি আসার আলো নিয়ে আসতে পারে। সপ্তাহের অন্তভাগে বহু আকাঙ্খিত শারীরিক উন্নতি। পারিবারিক ক্ষেত্রে শুভ।


সিংহ রাশি: এই রাশির জাতক/জাতিকাদের জন্য সপ্তাহটি নতুন কর্মসংস্থান আশাতীত সাফল্য নিয়ে আসতে পারে। বিদেশে কর্মরত ব্যক্তিদের শরীর স্বাস্থ্যের ব্যাপারে সতর্কতা অবলম্বন করা প্রয়োজন। সপ্তাহের মধ্যভাগে বুঝে শুনে লগ্নি করা প্রয়োজন। নতুবা অর্থক্ষতির সম্ভাবনা প্রবল। বিদ্যার্থীদের জন্য গৃহের ঈশান কোনে পড়াশোনায় মনোসংযোগ বৃদ্ধি করবে। সপ্তাহের অন্তভাগে ব্যবসা ক্ষেত্রে বেশ কিছুটা আলোর সঞ্চার। পারিবারিক ক্ষেত্রে মনোমালিন্যের অবসান।


কন্যা রাশি: সপ্তাহের শুরুর দিকে ভালো খবর পেতে পারেন। ব্যবসা ক্ষেত্রে আশার আলো। প্রেম পরিণয়ে বাধা বিঘ্ন লেগেই আছে। সপ্তাহের মধ্যভাগে শরীর স্বাস্থ্যের বিষয়ে সাবধানতা অবলম্বন প্রয়োজন। উচ্চবিদ্যায় প্রতিবন্ধকতা দেখা যাচ্ছে। সপ্তাহের অন্তভাগে নতুন কর্মঅনুসন্ধানে শুভ খবর পেতে পারেন। তবে অর্থের যোগানে বাধা বিপত্তির যোগ থাকছে। আধ্যাত্মিক কৃপায় গুরুজন স্থানীয় ব্যক্তিদের শরীর স্বাস্থ্যের প্রভূত উন্নতি।


তুলা রাশি: সপ্তাহের শুরুর দিকে বেশ কয়েকটা গুরুত্বপূর্ন সিদ্ধান্ত নিতে হবে তাই এই বিষয়ে অত্যাধিক আবেগ বর্জন করাই বুদ্ধিমানের কাজ। দাম্পত্য সমস্যায় ভুল বোঝাবুঝি যত শীঘ্র সম্ভব মিটিয়ে নেওয়ায় প্রয়োজন। সপ্তাহের মধ্যভাগে ঋণ বৃদ্ধি। প্রিয়জনের অস্বাভাবিক আচরণে হতাশা বৃদ্ধি। সপ্তাহের অন্তভাগে বিকল্প জীবিকা সন্ধানে সাফল্য। গুরুজনের শরীর স্বাস্থ্যের উন্নতি। শিল্পী, কলাকুশলীদের নতুন যোগাযোগে মানসিক প্রফুল্লতা বৃদ্ধি।


বৃশ্চিক রাশি: সপ্তাহের শুরুর দিকে আধ্যাত্মিক কৃপায় শরীর স্বাস্থ্যের কৃপায় শরীর স্বাস্থ্যের প্রভূত উন্নতি। বিদ্যার্থীদের পক্ষে খুব একটা আশাব্যঞ্জক নাও হতে পারে। সপ্তাহের মধ্যভাগে কর্মক্ষেত্রে দ্বায়িত্বভার বৃদ্ধি পেতে পারে। অর্থনৈতিক ক্ষেত্রে আয় ব্যয়ের মধ্যে সমতা রক্ষা করা প্রয়োজন। রাজনৈতিক ব্যক্তিদের মানসিক স্থিরতা বজায় রাখা প্রয়োজন। সপ্তাহের অন্তভাগেই রাজনৈতিক পদ বৃদ্ধি পাওয়ার শুভ যোগাযোগ। সন্তানের ব্যাপারে অমূলক দুশ্চিন্তার প্রয়োজন নেই। শারীরিক ক্ষেত্রে অস্থিরতা অবসানে মানসিক প্রফুল্লতা বৃদ্ধি।


ধনু রাশি: এই রাশির জাতক জাতিকাদের শরীর স্বাস্থ্যের ব্যাপারে যত্নবান হওয়া প্রয়োজন। অর্থনৈতিক ক্ষেত্র বেশ চাপের। প্রেম পরিণয়ে সাফল্য। সপ্তাহের মধ্যভাগে উচ্চ বিদ্যার্জন, গবেষণামূলক কার্যে সাফল্য। শেয়ার ফাটকা, লটারিতে লগ্নি না করায় শ্রেয়। অন্তভাগে বিকল্প ব্যবসায় উদ্যোগী হওয়ার প্রয়োজন। কর্মক্ষেত্রে জটিলতা বৃদ্ধি হলেও শেষমেশ কর্মচ্ছেদ হওয়ার কোনো যোগ এখনই নেই।


মকর রাশি: ব্যবসায়ীদের পক্ষে সপ্তাহটি যথেষ্ট চাপের। গৃহজ সমস্যা এর বশবর্তী হয়ে কোনো সিদ্ধান্ত এখনই না নেওয়ায় সমীচীন। সপ্তাহের মধ্যভাগটা কর্মপ্রার্থীদের পক্ষে বেশ শুভ। বিদ্যার্থীদের নতুন উদ্যোগে পড়াশোনা শুরু করা প্রয়োজন। সপ্তাহের অন্তভাগে বেশ কিছু অর্থপ্রাপ্তি হতে পারে। পুরাতন প্রেমে জটিলতা বৃদ্ধি। বাতজ বেদনা, পেটের সমস্যা চোটাঘাত/স্বাস্থ্যহানি থেকে সাবধান।



কুম্ভ রাশি: এই সপ্তাহে অর্থ সমস্যার কিছুটা সুরাহা হতে পারে। নতুন কর্মপ্রাপ্তিতে আসার আলো। ত্বকের সমস্যা, শরীরে মধ্যভাগে পীড়া নাজেহাল করতে পারে। সপ্তাহের মধ্যভাগে সম্পত্তিজনিত বিবাদে পুলিশি ঝামেলার যোগ দেখা যাচ্ছে। সপ্তাহের অন্তভাগে সন্তানের বিদ্যা, কর্ম বিষয় শুভ যোগাযোগ। গুপ্ত শত্রু থেকে সতর্কতা অবলম্বন প্রয়োজন।


মীন রাশি: অনেকদিনের প্রচেষ্টায় স্বীকৃতি স্বরূপ মনের মতো কর্মানুসন্ধানে আশাতীত সফলতার যোগ। পারিবারিক ক্ষেত্রে দৃঢ় সিদ্ধান্ত নিতে হতে পারে। সপ্তাহের মধ্যভাগে ঋণ বৃদ্ধি। অর্থের যোগান বজায় থাকলেও আয় এর থেকে ব্যয়ের পরিমান বেশি। সপ্তাহের অন্তভাগে রাজনৈতিক অভিলাষ পূর্তি হতে পারে। গুরুজনের শরীর স্বাস্থ্যের প্রভূত উন্নতি। বিদ্যক্ষেত্র শুভ। বিষাক্ত কীটপতঙ্গ জীবাণু সংক্রমণ।



-- শেয়ার করতে পারেন 

এই সপ্তাহের রাশিফল ( ৩১শে মে থেকে ৬ই জুন ) এই সপ্তাহের রাশিফল ( ৩১শে মে থেকে ৬ই জুন ) Reviewed by WisdomApps on May 31, 2020 Rating: 5

সাপ্তাহিক রাশিফল ২৪শে মে থেকে ৩০শে মে

May 24, 2020




মেষ রাশি:
খুবই গুরুত্বপূর্ণ সপ্তাহ। প্রথম দিকেই প্রয়োজনীয় সিদ্ধান্ত নিয়ে নেওয়া উচিত। কর্ম তৎপরতার মধ্যে দিয়েই সপ্তাহের প্রথম ভাগ অতিবাহিত হবে। সপ্তাহের দ্বিতীয়ভাগে ব্যবসা বাণিজ্যের অগ্রগতি। মানসিক বল বৃদ্ধি। প্রেম পরিণয়ে রাগ অনুরাগ বৃদ্ধি। সপ্তাহের দ্বিতীয় ভাগে যাবতীয় কর্মকুশলতার সুফল লাভ। শরীর স্বাস্থ্যের যত্ন নেওয়া প্রয়োজন। উচ্চতর বিদ্যার্জনে উল্লেখযোগ্য সাফল্য। আয় উপার্জন বৃদ্ধি।


বৃষ রাশি: অস্থিরতার মধ্য দিয়ে সপ্তাহের সূচনা। সপ্তাহের প্রথম দিকে বিতর্ক বিবাদ এড়িয়ে যাওয়া প্রয়োজন। আইনি ঝামেলার থেকে বিশেষ সতর্কতা। সপ্তাহের মধ্যভাগ তুলনামূলক শুভ। নতুন কর্মদ্যোগের মাধ্যমে মানসিক বল বৃদ্ধি। সন্তানের বিদ্যস্থান শুভ। দাম্পত্য সন্তোষ বজায় থাকবে। সপ্তাহের অন্তভাগে ঋণবৃদ্ধি। প্রেম পরিণয়ে মনোমালিন্য হতে পারে। রাজনৈতিক আকাঙ্খা পূরণ হতে পারে। আইনজ্ঞদের কাছে সপ্তাহটি বিশেষ গুরুত্বপূর্ন।


মিথুন রাশি: সপ্তাহের প্রথমভাগে কায়িক পরিশ্রমের মধ্য দিয়েই অতিবাহিত হতে পারে। গুরুজনের শরীর স্বাস্থ্যের উন্নতি। ব্যবসাক্ষেত্রে অর্থসংকটের বেশ কিছুটা সুরাহা। সপ্তাহের মধ্যভাগে ব্যবসা ক্ষেত্রে উন্নতি। চাকুরীজীবীদের ক্ষেত্রে এই সপ্তাহে অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ সিদ্ধান্ত নিতে হবে। সপ্তাহের অন্তভাগে বাড়িঘর পুনর্গঠনে সাফল্য। মানসিক বল বৃদ্ধি। প্রশাসনিক পদাধিকারীদের পক্ষে সপ্তাহটি বিশেষ গুরুত্বপূর্ন। প্রেম পরিণয়ে মানসিক চাপ বৃদ্ধি।


কর্কট রাশি: সপ্তাহের প্রথমভাগে উর্ধতন কতৃপক্ষের সহায়তায় চাকুরিজীবীদের বহুদিনের সমস্যা সংকটের সাময়িক সুরাহা। ব্যবসায়ীদের পক্ষে বেশ আশাব্যঞ্জক। বিদ্যার্জনে বাধা। সপ্তাহের মধ্যভাগে পারিবারিক সমস্যা, তৃতীয় পক্ষকে নাক গলাতে দেওয়া সমীচীন হবে না। শরীর স্বাস্থ্যের দিকে যথেষ্ট নজর দেওয়া প্রয়োজন। সপ্তাহের অন্তভাগে ঋণ শোধের মাধ্যমে মানসিক প্রফুল্লতা বৃদ্ধি। রাজনৈতিক ব্যক্তিদের পক্ষে সপ্তাহটি বেশ আশাপ্রদ।


সিংহ রাশি: সপ্তাহের শুরুর দিকের বেশ কিছু টাকা হাতে আসবে। তবে বুঝেশুনে লগ্নি করা প্রয়োজন। শরীর স্বাস্থ্যের উল্লেখযোগ্য উন্নতি। সপ্তাহের মধ্যভাগে পুরোনো বন্ধুর খোঁজ পাওয়ায় মানসিক প্রফুল্লতা বৃদ্ধি। কর্মক্ষেত্রে নতুন যোগাযোগ। সপ্তাহের অন্তভাগে ব্যবসা বাণিজ্যের আশাপ্রদ অগ্রগতি। গৃহ পরিবেশে শান্তি শৃঙ্খলা বজায় রাখতে উদ্যোগী হওয়ার প্রয়োজন। প্রেম পরিণয়ে মনোমালিন্যের অবসান। সন্তানের উচ্চশিক্ষায় সন্তোষজনক অগ্রগতি।


কন্যা রাশি: শিল্পী, কলাকুশলী ব্যক্তিদের পক্ষে সপ্তাহের শুরুর দিকটা বেশ আশাপ্রদ, ব্যবসায়ীদের আয় উপার্জন বৃদ্ধি। সপ্তাহের মধ্যভাগে ব্যবসা বাণিজ্য ঝুঁকি এড়িয়ে যাওয়াই সমীচীন। নতুন অর্থ্যক্ষতির আশঙ্কা। শেয়ার , ফাটকা লগ্নি একেবারেই পরিত্যাজ্য। সপ্তাহের অন্তভাগে দাম্পত্য সমস্যার মানসিক চাপ বৃদ্ধি। আকস্মিক স্বাস্থ্যহানি, চোট আঘাত থেকে সতর্কতা অবলম্বন প্রয়োজন। গবেষণামূলক কাজে স্বীকৃতির অভাবে হতাশা বৃদ্ধি।


তুলা রাশি: সপ্তাহের শুরুতে পিতা মাতা স্থানীয় ব্যক্তিদের শরীর স্বাস্থ্য নিয়ে উদ্বেগ, উৎকণ্ঠা বৃদ্ধি পেতে পারে। প্রেম ভালোবাসায় নতুন করে আগ্রহ বৃদ্ধি। সপ্তাহের মধ্যভাগে ব্যবসা ক্ষেত্রে উল্লেখযোগ্য সাফল্য। কর্মক্ষেত্রে গোলযোগ বজায় থাকবে ফলে মানসিক অশান্তি বাড়বে । আয় উপার্জনে বাধা বিঘ্ন। সপ্তাহের অন্তভাগে আর্থিক স্বচ্ছলতা বৃদ্ধি। গুরুজনের শরীর স্বাস্থ্যের উল্লেখযোগ্য উন্নতিতে মানসিক প্রশান্তি বৃদ্ধি। সন্তানের বিদ্যা শিক্ষায় মনোযোগ বৃদ্ধি। বহুদিনের আটকে থাকা অর্থ আদায় প্রফুল্লতা বৃদ্ধি।


বৃশ্চিক রাশি: বিদ্যার্থীদের পক্ষে সপ্তাহটি বেশ আশাব্যঞ্জক। গঠনমূলক কাজে উল্লেখযোগ্য সাফল্য। শিল্পী ও কলাকুশলীদের নতুন যোগাযোগে আশা প্রত্যাশার সঞ্চার। সপ্তাহের মধ্যভাগে শরীর স্বাস্থ্যের বিষয়ে যত্নবান হওয়া প্রয়োজন। কর্ম-প্রত্যাসীদের ক্ষেত্রে বিকল্প কর্ম সন্ধানে আশা আকাঙ্খার সঞ্চার। ব্যবসায়ীদের পক্ষে সপ্তাহটি খুব একটা আশাব্যঞ্জক না হলেও ঋণশোধে মানসিক চাপ লাঘব। সপ্তাহের অন্তভাগে বাতজ বেদনা পেটের সমস্যায় উৎকণ্ঠা বৃদ্ধি। দাম্পত্য সমস্যার বহু প্রত্যাশিত সমাধান। 


ধনু রাশি: এই রাশির জাতক জাতিকাদের পক্ষে এই সপ্তাহের প্রথমদিকে বেশ শুভ, শারীরিক সমস্যা তেমন একটা থাকবে না। তবে বেশ কিছু সিদ্ধান্ত গুরুত্বপূর্ন সিদ্ধান্ত সত্তর বিবেচনার কারণে মানসিক চাপ বাড়তে পারে। সপ্তাহের মধ্যভাগে কর্মক্ষেত্রে প্রত্যাশিত স্বীকৃতি প্রাপ্তি। সন্তানের কর্মে সন্তোষজনক অগ্রগতিতে মানসিক ভার লাঘব। সপ্তাহের অন্তভাগে গুরুজন স্থানীয় ব্যক্তিদের শরীর স্বাস্থ্য অগ্রগতি। ব্যবসায়ীদের পক্ষে সপ্তাহটি বেশ শুভ। আয় উপার্জন বৃদ্ধিতে হতাশা উৎকণ্ঠার অবসান। 


মকর রাশি: এই রাশির জাতক জাতিকাদের শরীর স্বাস্থ্য নিয়ে বড়সড় সমস্যা না থাকলেও ছোটখাটো সমস্যা লেগে থাকবে। বিশেষ করে মাথাব্যথা, বাতজ বেদনায় কাহিল হওয়ার আশা রয়েছে। সপ্তাহের মধ্যভাগে আয় উপার্জন বাধা বিঘ্নের আপাত সমাধান। শরীর স্বাস্থ্য উল্লেখযোগ্য উন্নতি। প্রেম পরিণয়ে মান অভিমান। বহুদিনের ত্যাগ স্বীকৃতির স্বরূপ প্রত্যাশিত রাজনৈতিক অভিলাষ পূর্তিতে মানসিক প্রফুল্লতা বৃদ্ধি। সপ্তাহের অন্তভাগে আয় উপার্জন বৃদ্ধি। দাম্পত্য সন্তোষ বজায়।


কুম্ভ রাশি: সপ্তাহের শুরুর দিকে বিতর্ক বিবাদ এড়িয়ে যাওয়া প্রয়োজন। নিকট আত্মীয় বন্ধুর দ্বারা প্রতারিত হওয়ার সম্ভাবনা। শরীর স্বাস্থ্যের উল্লেখযোগ্য উন্নতি। প্রেম পরিণয়ে মানসিক আঘাত। সপ্তাহের শেষভাগে ফাটকা লগ্নি থেকে আয় উপার্জন। তবে আয়ের থেকে ব্যায়ের ভাব বেশী । প্রয়োজনীয় সঞ্চয়ে নজর দেওয়া প্রয়োজন ।   বিদ্যার্জনে বাধা বিঘ্নের অবসান।


মীন রাশি: আধ্যাত্মিক কৃপায় সপ্তাহের শুরুতে আয় উপার্জন বৃদ্ধি। দাম্পত্য সমস্যা, গার্হস্থ্য হিংসায় ঝামেলা থেকে সতর্কতা অবলম্বন করা প্রয়োজন। সপ্তাহের মধ্যভাগে উচ্চতর গবেষণামূলক কার্যে উল্লেখযোগ্য সাফল্য। কর্মক্ষেত্রে গুপ্ত শত্রুতার অবসান। সপ্তাহের অন্তভাগে ব্যবসায়িক লাভ। প্রেমজ ব্যাথা বেদনার অবসান। অর্থনৈতিক ক্ষেত্র শুভ।

সাপ্তাহিক রাশিফল ২৪শে মে থেকে ৩০শে মে সাপ্তাহিক রাশিফল ২৪শে মে থেকে ৩০শে মে Reviewed by WisdomApps on May 24, 2020 Rating: 5

এই সপ্তাহের রাশিফল ১৭ই মে থেকে ২৩শে মে

May 17, 2020

মেষ রাশি:
সপ্তাহের শুরুটা তুলনামূলক ভাবে শুভ। শরীর স্বাস্থ্যের উল্লেখযোগ্য উন্নতি। ব্যবসায় নতুন যোগাযোগ। দাম্পত্য শান্তি। সপ্তাহের মধ্যভাগে চাকুরিস্থানে অস্থিরতা বৃদ্ধি। প্রেম পরিণয়ে বিরহ বেদনা। বিদ্যালাভ মনোসংযোগের অভাব। সপ্তাহের অন্তভাগে চাকুরি ক্ষেত্রে সমস্যা মিটিয়ে সাময়িক সমাধান। বহুদিন আটকে থাকা অর্থ আদায়। দৈব কৃপায় জটিল সমস্যার সন্তোষজনক সমাধান। শত্রুদমনে উল্লেখযোগ্য সাফল্য। গবেষণামূলক কাজে সাফল্য।

বৃষ রাশি: নতুন আশা কর্মদ্যমের মাধ্যমে সপ্তাহের সূচনা। সম্পত্তি জনিত সমস্যায় মানসিক চাপ বৃদ্ধি। বিদ্যা ক্ষেত্রে যথেষ্ট বাধা বিঘ্ন। শত্রুদমনে সাফল্য। সপ্তাহের মধ্যভাগে বিদ্যস্থানে মনঃসংযোগ বৃদ্ধি। কর্মস্থানে অস্থিরতা থাকায় মানসিক অস্থিরতা বৃদ্ধি। সপ্তাহের অন্তভাগে দাম্পত্য দাম্পত্য সন্তোষ। প্রেমজ সম্পর্কের আবেগ অনুরাগ বৃদ্ধি। অর্থনৈতিক ক্ষেত্রে নতুন আশা আকাঙ্খার সঞ্চারে মানসিক প্রফুল্লতা বৃদ্ধি।

মিথুন রাশি: ব্যক্তিগত শত্রুতার অবসান। আত্মীয় বন্ধুর সহায়তায় পুরোনো মনোমালিন্যের সন্তোষজনক সমাধান। আয় উন্নতিতে বাধা বিঘ্ন বজায় থাকায় মনোবল হ্রাস। সপ্তাহের মধ্যভাগে ব্যবসা ক্ষেত্রে নতুন উদ্যম। চাকরিক্ষেত্রে অস্থিরতা বজায় থাকায় হতাশা বৃদ্ধি। বিকল্প রোজগারের উপায় অনুসন্ধানে সাফল্য। সপ্তাহের অন্তভাগে রাজনৈতিক ব্যক্তিদের নতুন যোগাযোগ ও পদপ্রাপ্তি। পুরোনো মামলা মোকদ্দমায় মানসিক চাপ বৃদ্ধি। গৃহজ শান্তিতে মানসিক প্রফুল্লতা বৃদ্ধি।

কর্কট রাশি: সপ্তাহের শুরুতে নতুন কর্মানুসন্ধানে আশাতীত সাফল্য। পুরোনো কর্মক্ষেত্রে কতৃপক্ষের উদাসীনতায় অর্থপ্রাপ্তিতে বিলম্ব। ব্যবসায়ীদের পক্ষে এই সপ্তাহের মধ্যভাগটা যথেষ্ট চাপের। পারিবারিক মনোমালিন্য, গার্হস্থ্য হিংসা বৃদ্ধি। ঋণশোধে মানসিক অস্থিরতার অবসান। সপ্তাহের অন্তভাগে ব্যবসায়িক সমস্যার আশাপ্রদ সমাধান। প্রেম পরিণয়ে অভাব অভিযোগ পরিত্যাজ্য। বিদ্যার্থীদের বিসর্জনে নতুন উদ্যম। গুরুজন স্থানীয় ব্যক্তির শরীর স্বাস্থ্যের উল্লেখযোগ্য উন্নতি। 

সিংহ রাশি: এই রাশির জাতক জাতিকারা এই সপ্তাহটি যথেষ্ট সাবধানে থাকবেন। আকস্মিক ভাবে উঁচুস্থান থেকে পতন, কীটপতঙ্গের সংক্রমণ থেকে সাবধানতা অবলম্বন করুন। উচ্চশিক্ষায় প্রভূত উন্নতি। সপ্তাহের মধ্যভাগে কর্মস্থানে নতুন আশার সঞ্চয়। আয় উন্নতি বৃদ্ধি। দাম্পত্য সমস্যা, গার্হস্থ্য হিংসায় অস্থিরতা বৃদ্ধি। সপ্তাহের অন্তভাগে শরীর স্বাস্থ্যের উল্লেখযোগ্য উন্নতি। পারিবারিক সমস্যার সন্তোষজনক মীমাংসা। শত্রুদমনে সাফল্য।

কন্যা রাশি: অনেকদিনের জমে থাকা মনোমালিন্যের অবসানে মানসিক স্বস্তি। সপ্তাহের শুরুতেই কর্মক্ষেত্রে নতুন যোগাযোগ। প্রেম পরিণয়ে মান অভিমান বৃদ্ধি। সপ্তাহের মধ্যভাগে ব্যবসাক্ষেত্রে আটকে থাকা অর্থ আদায়। আইন পুলিশ সংক্রান্ত বিষয়ে সুচিন্তিত সিদ্ধান্ত নেওয়া প্রয়োজন। সপ্তাহের অন্তভাগে পারিবারিক চাপ বৃদ্ধি। সন্তানের বিদ্যা শিক্ষায় মানসিক উৎকণ্ঠা বৃদ্ধি। রাজনৈতিক ব্যক্তিদের পক্ষে নতুন আশা আকাঙ্খার সঞ্চার।

তুলা রাশি: সপ্তাহের প্রথমদিকে আধ্যাত্মিক কৃপায় শরীর স্বাস্থ্যের উন্নতি। ব্যবসায়িক যোগাযোগ বৃদ্ধি। নতুন উদ্যম। বিদ্যাস্থানে মনোযোগ হ্রাস। সপ্তাহের মধ্যভাগে আয় উপার্জন যথেষ্ট বাধা বিঘ্ন। চোট আঘাত প্রাপ্তির সম্ভাবনা। প্রেম পরিণয়ে রাগ অনুরাগ বৃদ্ধি। সপ্তাহের অন্তভাগে ব্যবসা বাণিজ্য নতুন বিনিয়োগ। গবেষণামূলক কাজে উল্লেখযোগ্য সাফল্য। উত্তেজনা রয়েছে এইরকম বিতর্ক এড়িয়ে যাওয়াই শ্রেয়।

বৃশ্চিক রাশি: সপ্তাহের শুরুতেই শুভ যোগাযোগ। ব্যবসায় নতুন আসার সঞ্চার। কর্মস্থানে অস্থিরতার অবসান। দাম্পত্য সন্তোষ বজায় থাকবে। সপ্তাহের মধ্যভাগে পেট, মুখমন্ডল, ত্বকের সমস্যা বৃদ্ধি। গুরুজনের শারীরিক অবস্থা স্থিতিশীল। নিজের পরিশ্রম এবং ধৈর্য্য বজায় রাখায় আয় উপার্জন বৃদ্ধি। সপ্তাহের শেষ দিকে ব্যবসা ক্ষেত্রে অস্থিরতা। বিতর্কিত বিষয়ে অনর্থক মন্তব্যে প্রেমজ সম্পর্কে উত্তেজনা বৃদ্ধি।

ধনু রাশি: শরীর স্বাস্থ্যের বিষয়ে অত্যন্ত সতর্কতা আবশ্যক। সপ্তাহের শুরুতে আয় উপার্জনে মন্দা। শেয়ার, ফাটকা ইত্যাদিতে হটকারি সিদ্ধান্ত নেওয়ার থেকে বিরত থাকায় ভালো। সপ্তাহের মধ্যভাগে অর্থ সমস্যার সুরাহা। কর্মক্ষেত্রে অস্থিরতা বজায় থাকায় হতাশা বৃদ্ধি। সপ্তাহের অন্তভাগে বিদ্যস্থানে প্রভূত উন্নতি। রাজনৈতিক আকাঙ্খায় নতুন আসার সঞ্চার। দাম্পত্য সমস্যার সন্তোষজনক সমাধান।

মকর রাশি: ব্যবসাক্ষেত্রে নতুন লগ্নির মাধ্যমে শুভ সূচনা। কর্মক্ষেত্রে আটকে থাকা বেতন প্রাপ্তি। প্রেম পরিণয়ে বিতর্ক বিবাদের অবসান। সপ্তাহের মধ্যভাগে শরীর স্বাস্থ্যের বিষয়ে সতর্কতা অবলম্বন আবশ্যক। অকস্মিক চোট আঘাতে পুরোনো ব্যাধিতে মানসিক অস্থিরতা বৃদ্ধি। গবেষণামূলক কাজে আশাতীত সাফল্য। সপ্তাহের অন্তভাগে শারীরিক সুস্থতা বৃদ্ধি। বিদ্যার্জনে প্রভূত সাফল্য। গার্হস্থ্য হিংসার প্রয়োচন থেকে সাবধান। প্রেমে সাফল্য।

মীন রাশি: সপ্তাহের শুরুটা বেশ আশাপ্রদ। আধ্যাত্মিক কৃপায় জটিল রোগের অবসান। ব্যবসা ক্ষেত্রে নতুন আসার সঞ্চার। সপ্তাহের মধ্যভাগে রাজনৈতিক ক্ষেত্র শুভ। যোগাযোগ নব আশা উদ্যম। সন্তানের বিদ্যাশিক্ষায় উল্লেখযোগ্য উন্নতিতে মানসিক প্রফুল্লতা। সপ্তাহের অন্তভাগে শেয়ার ফাটকা নিবেশে অর্থক্ষতি। কর্মক্ষেত্রে বিকল্প অনুসন্ধানে সাফল্য। গুপ্তশত্রুতার যথোপযুক্ত সাফল্য। গুপ্তশত্রুতার যথোপযুক্ত জবাব। দাম্পত্য সন্তোষ বজায়।
এই সপ্তাহের রাশিফল ১৭ই মে থেকে ২৩শে মে এই সপ্তাহের রাশিফল ১৭ই মে থেকে ২৩শে মে Reviewed by WisdomApps on May 17, 2020 Rating: 5

সাপ্তাহিক রাশিফল ১০ই মে থেকে ১৬ই মে

May 10, 2020


মেষ রাশি:
এই সপ্তাহের প্রথম দিকটা জাতক জাতিকাদের পক্ষে মোটের ওপর শুভই বলা চলে। শরীর ও স্বাস্থ্যের উন্নতি ঘটবে। অর্থকষ্ট থাকলেও উপার্জন বৃদ্ধির লক্ষণ সুস্পষ্ট। স্বামী বা স্ত্রীর শরীর স্বাস্থ্য নিয়ে উদ্বেগ থাকলেও খুব একটা দুশ্চিন্তার কারণ নেই। সপ্তাহের মধ্যভাগ ব্যবসায়ীদের পক্ষে অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। শিক্ষার্থীদের পক্ষে খুব আশাপ্রদ নয়। দাম্পত্য জীবন মোটের ওপর শুভ। প্রেম পরিণয়ে তিক্ততা বৃদ্ধি। সপ্তাহের অন্তভাগে ঋণশোধ। উপার্জন বৃদ্ধি। কর্মক্ষেত্রে জটিলতা বৃদ্ধি পাওয়ার সম্ভাবনা। 

বৃষ রাশি: সপ্তাহের শুরুতে আধ্যাত্মিক অনুপ্রেরণা বিকাশে মানসিক বল বৃদ্ধি। ঈশ্বরের কৃপায় দীর্ঘদিনের শারীরিক ব্যাথা বেদনার আংশিক উপশম। সপ্তাহের মধ্যভাগে ঋণশোধ। আর্থিক অবস্থার কিছুটা উন্নতি। বিদ্যার্থীদের পক্ষে সপ্তাহের চতুর্থদিন অত্যন্ত ফলপ্রসূ। ব্যবসায়িক ক্ষেত্রে উৎকণ্ঠা বৃদ্ধি পেলেও অতিরিক্ত দুশ্চিন্তার কোনো প্রয়োজন নেই। সপ্তাহের অন্তভাগে সাংসারিক শান্তি। শরীর স্বাস্থ্যের বিষয়ে সতর্কতা আবশ্যক, শত্রুদমন।

মিথুন রাশি: এত দুশ্চিন্তা কেন? ঐশ্বরিক কৃপায় এই সপ্তাহেই উদ্বেগ থেকে অনেকটাই মুক্তি। সপ্তাহের শুরুতে আয়ের উন্নতি পরিষ্কার। তবে ব্যায়ভাবও রয়েছে। আয় ব্যয়ের সামঞ্জস্য রক্ষা করা প্রয়োজন। সপ্তাহের মধ্যভাগে শারীরিক অবস্থার উন্নতি। সপ্তাহের অন্তভাগে দাম্পত্য সমস্যা মাথাচারা দিতে পারে। দ্রুত সামঞ্জস্য বিধান প্রয়োজন। কর্মসন্ধানে নতুন উৎসাহে মানসিক প্রফুল্লতা বৃদ্ধি।

কর্কট রাশি: এই সপ্তাহে কর্কট রাশির জাতক জাতিকাদের পক্ষে শুভ ফল দেবে। সপ্তাহের শুরুতে প্রতিকূলতা বৃদ্ধি পাবে। অর্থচিন্তায় মানসিক উদ্বেগ বৃদ্ধি। সাংসারিক অশান্তিতে চিত্ত চাঞ্চল্য। সপ্তাহের মধ্যভাগে সন্তানদের পক্ষে শুভ। ব্যয় বৃদ্ধি পেলেও অর্থের সংস্থান হয়ে যাবে। শারীরিক ব্যবস্থার উল্লেখযোগ্য উন্নতি। সপ্তাহের শেষদিকে তুলনামূলক শুভ। ঐশ্বরিক কৃপায় মানসিক পীড়া, উৎকণ্ঠার সাময়িক সমাধান। 

সিংহ রাশি: সপ্তাহের শুরুতে আর্থিক অবস্থার কারণে মানসিক অস্থিরতা। তবে খুব দুশ্চিন্তার কারণ নেই। শুভাকাঙ্খী আত্মীয় বন্ধুবর্গের সহায়তায় যাবতীয় প্রতিকূলতায় জয়লাভ অবশ্যম্ভাবী। সপ্তাহের মধ্যভাগে গৃহশান্তি বৃদ্ধি। যোগচর্চা ও প্রাণায়মে শারীরিক সুস্থতা বজায় থাকবে। ঋণশোধ, শত্রুদমন। সপ্তাহের অন্তভাগে আর্থিক সমস্যার সাময়িক সুরাহা। মানসিক সন্তোষ বৃদ্ধি।

কন্যা রাশি: ব্যবসায়িক মন্দায় সপ্তাহ শুরু হলেও শারীরিক সুস্থতায় মনোবল বৃদ্ধি। কর্মে নতুন উদ্দীপনা। শুভ যোগাযোগ। দাম্পত্য শান্তির। সপ্তাহের মধ্যভাগে ব্যবসায় কিছুটা উন্নতি। আর্থিক অবস্থা স্থিতিশীল। চাকরি ক্ষেত্রে আটকে থাকা বেতনে ছাড়পত্র। বিদ্যার্থীদের মনোসংযোগে বাধা বিপত্তি। সপ্তাহের অন্তভাগে উচ্চশিক্ষায় শুভ সংবাদ ও মানসিক বল বৃদ্ধি। সাংসারিক ক্ষেত্রে মনোমালিন্যের অবসানে মানসিক সন্তোষ বৃদ্ধি।

তুলা রাশি: এই রাশির জাতক জাতিকাদের পক্ষে এই সপ্তাহটি বিশেষ অর্থবহ। সপ্তাহের প্রথম দিকে সম্পত্তিজনিত বিবাদ পুনরায় মাথাচাড়া দিতে পারে। পুরোনো মামলা মোকাবিলায় পুলিশি ঝামেলায় মানসিক অস্থিরতা বৃদ্ধি। সপ্তাহের মধ্যভাগে স্থির সিদ্ধান্তে জটিল সমস্যার সমাধান। বন্ধুস্থানীয় ব্যক্তির সহযোগিতায় আইনি সমস্যায় আপাত স্বস্তি। সপ্তাহের অন্তভাগে বেশ শুভ। অর্থচিন্তায় অবসান। শরীর স্বাস্থ্যের উন্নতি। ঈশ্বরের কৃপায় মানসিক অস্থিরতার অবসান।

বৃশ্চিক রাশি: সপ্তাহের শুরুতেই কর্মক্ষেত্রের অস্থিরতায় মানসিক উদ্বেগ বৃদ্ধি। প্রিয়জন ব্যক্তিবর্গের সহযোগিতায় নতুন কর্মযোগ শুরু করা অভিপ্রেয়। ঈশ্বরের কৃপায় সপ্তাহের মধ্যভাগে কর্মস্থানে নতুন আলোর আশা। অর্থনৈতিক ক্ষেত্রে স্থিতাবস্থা। নতুন ব্যবসায় সন্ধানে আশার আলো। শারীরিক অবস্থার উন্নতি। সপ্তাহের অন্তভাগে গুরুজন ব্যক্তির স্বাস্থ এর উন্নতি। দাম্পত্য সমস্যায় ভুল বোঝাবুঝির অবসান, সন্তানের বিসর্জনে একাগ্রতা বৃদ্ধিতে মানসিক সন্তোষ।

ধনু রাশি: অর্থপার্জনে উল্লেখযোগ্য অগ্রগতিতে সপ্তাহের শুরুতে নতুন কর্মোদ্দীপনা বৃদ্ধি। প্রেম পরিণয় ভুল বোঝাবুঝির অবসান। ব্যবসা ক্ষেত্রে শুভ যোগাযোগ। সপ্তাহের মধ্যভাগে সম্পত্তিজনিত সমস্যায় মানসিক পীড়া। আত্মীয় বন্ধুর আচরণে মতানৈক্য। আধ্যাত্মিক শান্তির বিকাশে শারীরিক অবস্থার উন্নতি। সপ্তাহের অন্তভাগে সাংসারিক সমস্যায় মানসিক অস্থিরতা বৃদ্ধি। গুরুজন স্থানীয় ব্যক্তির শারীরিক অবস্থার সন্তোষজনক উন্নতি। মানসিক প্রফুল্লতা বৃদ্ধি।

মকর রাশি: সপ্তাহের শুরুর দিকে শুভ চিন্তার উদ্রেক। অর্থনৈতিক ক্ষেত্র মোটামুটি স্থিতিশীল। দাম্পত্য সন্তোষ বৃদ্ধি। বিদ্যার্জনে বাধা বিপত্তির অবসান। সপ্তাহের মধ্যভাগে প্রেম পরিণয়ে মানসিক প্রফুল্লতা বৃদ্ধি। যাবতিয় মতানৈক্যের অবসান। ঋণশোধ, শত্রুদমন। সপ্তাহের অন্তভাগে কর্মক্ষেত্রে কর্মপ্রতিভার স্বীকৃতি। উর্ধতন কতৃপক্ষের অনুগ্রহে কর্মক্ষেত্রে উৎকণ্ঠার অবসান। স্বাস্থ্যের ব্যাপারে সতর্কতা জরুরি। ব্যবসায়িক অগ্রগতি।

কুম্ভ রাশি: ব্যবসায়িক চিন্তায় নতুন সমাধানে আলোর আশা। সপ্তাহের প্রথমদিকে নতুন কর্ম উদ্দীপনা। বিদ্যস্থানে বাধা বিপত্তি। প্রেমজ ব্যাথা বেদনা। সপ্তাহের মধ্যভাগে গুপ্তশত্রুতার যথোপযুক্ত জবাব। গৃহশান্তি বজায় রাখা অত্যন্ত জরুরি। শারীরিক সতর্কতা আবশ্যক। সপ্তাহের অন্তভাগে আর্থিক সমস্যার সুরাহা। শরীর স্বাস্থ্যের উন্নতিতে মানসিক উদ্বেগের অবসান। প্রেম পরিণয়ে মানসিক উৎফুল্লতা বৃদ্ধি।

মীন রাশি: সপ্তাহের শুরুতে শারীরিক অবস্থার উল্লেখযোগ্য অগ্রগতি। অর্থনৈতিক স্থিতাবস্থা জারি। দাম্পত্য শান্তি বিধান। সপ্তাহের মধ্যভাগে বিকল্প কর্মচিন্তার নতুন পথের সন্ধান। সংসারে মানসিক দূরত্বের অবসান। বিদ্যস্থানে উল্লেখযোগ্য উন্নতি। ব্যয় বৃদ্ধি। সপ্তাহের অন্তভাগে গৃহজ সমস্যা বৃদ্ধি। আত্মীয় পরিজনের উদাসীন আচরণে মানসিক পীড়া।
সাপ্তাহিক রাশিফল ১০ই মে থেকে ১৬ই মে সাপ্তাহিক রাশিফল ১০ই মে থেকে ১৬ই মে Reviewed by WisdomApps on May 10, 2020 Rating: 5
Powered by Blogger.