জানেন কি ? দাঁতে পোকা বলে কিছু হয়না । আজীবন দাঁত ভালো রাখার আরো সিক্রেট জেনে নিন


দাঁত থাকতে দাঁতের মর্ম বোঝেন কজন। মুখের সৌন্দর্য অনেকটাই নির্ভর করে দাঁত, মাড়ি ও চোয়ালের আকারের ওপর। তাই দাঁতে গঠনগত ত্রুটি বা দুর্ঘটনার কারণে কোনও খুঁত হলে, যোগাযোগ করুন কোনও ডেন্টাল সার্জেনের সঙ্গে। সুন্দর-নির্মল হাসির জন্য যে সুস্থ দাঁত দরকার।
গঠন: প্রাপ্ত বয়স্ক মানুষের দুটি চোয়ালে মত বত্রিশটি দাঁত থাকে। মানুষের দুবার দাঁত ওঠে। যেমন দুধের দাঁত(Milk Teeth) এবং স্থায়ী দাঁত(Permanent Teeth), মানুষের দাঁতের এই বৈশিষ্ট্যের জন্য মানুষের দাঁতকে ডাইফিডোন্ট(Diphidont) দাঁত বলে।

দাঁতের নানা কাজ: 
 ● খাদ্যবস্তুকে চিবিয়ে ক্ষুদ্র কনায় পরিণত করা।   
 ● মুখের সৌন্দর্য বা হাসি ধরে রাখা।
 ● স্পষ্ট উচ্চারণ করতে সাহায্য করা।
 ● সুন্দর মুখ ও হাসির জন্য চাই ঝকঝকে দুপাটি দাঁত।
 ● আত্মরক্ষায় দাঁত কামড়েও দেয় প্রতিপক্ষকে।

দাঁত সংক্রান্ত কিছু প্রচলিত ধারণা: 

 ● দাঁতের ব্যাথায় পেনকিলার খাওয়া উচিত?
   কী কারণে ব্যাথা হচ্ছে তা না জেনে দিনের পর দিন ব্যাথা কমানোর ওষুধ খাওয়া বুদ্ধিমানের কাজ নয়। এতে শরীরের ভালো তো হয়ই না উল্টে লিভার, কিডনি সহ শরীরের অন্যান্য অঙ্গের ক্ষতি হতে পারে। ওষুধ খেলে ব্যাথা কমে সাময়িক ভাবে, কিন্তু দাঁতের মূল যে সমস্যা, সেটা চিকিৎসা না করলে থেকেই যায়।
● দাঁতে পোকা আছে কি?
   পোকা বলে কিছু হয় না, দাঁতে সংক্রমণ হলে দাঁত ক্ষয়ে যায়, কালো কালো ছোপ দেখা যায়, যা আপাত দৃষ্টিতে পোকার মতো দেখতে লাগে।
● ব্যথার দাঁতে পেস্ট লাগলে ব্যাথা কমে যায়?
   ব্যাথা একটি বিশেষ ধরনের অনুভূতি যা, দাঁতের ভেতরে থাকা ডেন্টিনালের টিউবিউলসের মধ্যে দিয়ে পাল্পে পৌঁছায়, পাল্পের মধ্যে রক্তবাহী শিরা উপশিরা থাকে - পেস্ট লাগালে ডেন্টিনাল টিউবিউলসগুলি বন্ধ হয়ে যায়। ফলে ব্যাথা অনুভব হয় না। সাময়িক আরাম মেলে।
● দাঁতের ক্যাভিটি
   অনেকেরই ধারণা শক্ত কিছু খেতে গিয়ে দাঁত হটাৎ ভেঙে যাওয়া বা দাঁতে ক্যালসিয়াম কমে যাওয়া থেকে দাঁতে ক্যাভিটি হয়। এটা ভুল ধারণা। ক্যাভিটি হওয়ার মূল কারণ হলো ভুল পদ্ধতিতে দাঁত ব্রাশ করা। বেশিরভাগ মানুষই পদ্ধতি মেনে ব্রাশ করেন না। দাঁত মাজার নিয়মই হলো ওপর নিচ করে। কিন্তু প্রায় সকলেই সোজাসুজি দাঁত মাজেন। এর ফলে মাড়ি আর দাঁতের সংযোগ স্থল ঘষে যায়। দাঁতের ওপরের অংশের এনামেল ক্ষয়ে যায়। দাঁতের তুলনামূলক ভাবে কম শক্তিধর অংশ ডেন্টিন প্রকাশ্যে চলে আসে। চিকিৎসা করানোর প্রয়োজনও হয়। যদি ঠিকমতো দাঁত না মাজা হয়, দাঁতের মাঝে মাঝে লেগে থাকা খাদ্যকনাগুলি সঠিক ভাবে পরিষ্কার হয় না। নানা ধরণের ব্যাকটেরিয়া খাবারের কণা ভেঙে অ্যাসিড তৈরি করে, আর এর ফলেই দাঁতে ক্যাভিটি দেখা যায় এবং দাঁত ভাঙার সম্ভাবনাও বেড়ে যায়।
● গরম বা ঠান্ডা খেলে দাঁত শিরশির করে
   দাঁতের ডেন্টিনাল টিউবিউলসের থেকে ব্যাথা পাল্পে পৌঁছানোর জন্য এমন শিরশিরানি হয়েই থাকে। তাই কোনও সমস্যা হলে যত তাড়াতাড়ি সম্ভব দন্ত চিকিৎসকের পরামর্শ নিন।
● দাঁতের যত্ন না নিলে যে অন্যান্য রোগ হবার সম্ভাবনা বেড়ে যায়, তা হলো হার্টের রোগ - দাঁতের সমস্যা থেকে হার্টের ভালভের সমস্যা, ব্যাকটেরিয়াল এন্ডোকার্ডইটিস হতে পারে। ডায়াবেটিস সারে না। পাইরিয়ার চিকিৎসা না করলে ডায়াবেটিস এর ওষুধ খেলেও রোগ কমে না।
সংক্রমিত দাঁতের সমস্যার সমাধান না করে নি(knee) রিপ্লেসমেন্ট বা ছানির অপারেশন করালে মারাত্মক সংক্রমণ হওয়ার আশঙ্কা থাকে।
দাঁত ভালো রাখার পদ্ধতি:
● দিনে কমপক্ষে দুবার ব্রাশ করতে হবে। একবার ঘুম থেকে উঠে আর একবার আর একবার রাতে শুতে যাওয়ার আগে। ব্রাশ করতে হবে সঠিক পদ্ধতিতে। ব্রাশ চলবে ওপর থেকে নিচ, নীচের থেকে ওপরে, কখনওই দাঁতের ওপর আড়াআড়ি ভাবে ব্রাশ করা যাবে না। প্রতি তিনমাস অন্তর ব্রাশ পরিবর্তন করতে হবে। চিকিৎসকের পরামর্শ অনুযায়ী দাঁতের সমস্যার জন্য মেডিকেটেড টুথব্রাশ ব্যবহার করতে হবে।
● কোনো কিছু খাওয়ার পরেই জল দিয়ে ভালো করে মুখ কুলকুচি করে ফেলতে হবে। যাতে খাবারের টুকরো অংশ মুখে পচে দুর্গন্ধ সৃষ্টি না করে।
● দাঁত মাজার জন্য খৈনি, ছাই, গুড়াখু চলবে না। পান মশলা, জর্দা, সুপারি, বেশি গরম বা ঠান্ডা খাবার দাঁতের পক্ষে ভালো নয়।
● মূল খাবার গ্রহণের পর ফ্লস দিয়ে দাঁতের ফাঁকগুলি পরিষ্কার করে নেওয়া ভালো।
● ব্রাশ করার পর আঙ্গুল দিয়ে মাড়ি ম্যাসাজ করা উচিত।
● গায়ের জোরে দাঁত মাজা উচিত নয়।
● অসমান দাঁত ওঠা আটকাতে ছোটদের দুধের দাঁত সঠিক সময়ে ফেলতে হবে।
● মাড়ির যে কোনও রোগ, দাঁতের গোড়া দিয়ে রক্ত পড়লে অবহেলা করা উচিত নয়। প্রাথমিক অবস্থায় ডেন্টাল ক্যারিজ ধরা পড়লে সঠিক চিকিৎসায় তা সেরে যাবে।
● পুষ্টিকর খাবার, ফল, ও স্যালাড চিবিয়ে খেলে দাঁত ভালো থাকে।
● বাঁধানো দাঁত নিয়মিত পরিষ্কার রাখতে হবে। রাতে খুলে অ্যানটিসেপ্টিক লোশনে ভিজিয়ে রাখতে হবে। ঝকঝকে ও রোগহীন দাঁত ও মাড়ির জন্য বছরে একবার চিকিৎসকের পরামর্শ নেওয়া উচিত।
জানেন কি ? দাঁতে পোকা বলে কিছু হয়না । আজীবন দাঁত ভালো রাখার আরো সিক্রেট জেনে নিন জানেন কি ? দাঁতে পোকা বলে কিছু হয়না ।  আজীবন দাঁত ভালো রাখার আরো সিক্রেট জেনে নিন Reviewed by WisdomApps on জানুয়ারী ০৫, ২০২০ Rating: 5

কোন মন্তব্য নেই:

Blogger দ্বারা পরিচালিত.